BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

ফের আকাশসীমা লঙ্ঘন, ভারতে ঢুকে পড়া পাক বিমানকে নামাল বায়ুসেনা

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: May 10, 2019 7:26 pm|    Updated: September 8, 2020 1:13 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফের আকাশসীমা লঙ্ঘন করে গুজরাটের দিক দিয়ে ভারতে ঢুকে পড়ল পাকিস্তানের বিমান৷ ভারতীয় বায়ুসেনা সূত্রে খবর এমনটাই৷ তবে এই বিমানের প্রবেশ আর পাঁচটার মতো নয়৷ কীভাবে তা এদেশে ঢুকল, তা নিয়ে অন্য একটি তথ্য পাওয়া যাচ্ছে৷

জর্জিয়ার তৈরি অ্যান্তোনভ এএন-১২ বিমানটি করাচি থেকে দিল্লি আসার পথে গুজরাট-রাজস্থান সীমানার মাঝামাঝি আকাশসীমায় ঢুকে পড়ে, যা একেবারেই তার নির্ধারিত রুটের মধ্যে পড়ে না৷ বায়ুসেনার একটি সূত্রের মতে, বাহিনী অত্যন্ত সতর্ক ছিল এবং কড়া নজরদারি চলছিল৷ তাই পাকিস্তানের দিক থেকে আগত বিমানটিকে দ্রুতই চিহ্নিত করে এক সুখোই বিমান৷ জয়পুর বিমানবন্দরে নামানো হয় করাচি থেকে আগত বিমানটিকে৷ পাইলট এবং কেবিন ক্রু’দের নামিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে বায়ুসেনার তরফে৷

[আরও পড়ুন:শিখদাঙ্গা নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য স্যাম পিত্রোদার, মোদির নিশানায় কংগ্রেস]

সাধারণত জর্জিয়ার তৈরি অ্যান্তোনভ বিমানগুলি কার্গো ফ্লাইট অর্থাৎ পরিবহণের জন্য বেশি ব্যবহৃত হয়ে থাকে৷ পাইলট এবং বিমানের অন্যান্য কর্মীদের জিজ্ঞাসাবাদ থেকে বোঝা গিয়েছে, করাচি থেকে দিল্লিগামী এএন-১২ বিমানটিও পণ্য পরিবহণকারী৷ তাঁদের আরও দাবি, বিমানটি নির্দিষ্ট রুটেই যাচ্ছিল৷ কিন্তু তা সত্ত্বেও কীভাবে নিয়ম ভেঙে জয়পুরের আকাশসীমায় ঢুকে পড়ল, তা বুঝতে পারছেন না কেউই৷ শুক্রবার বিকেলের এই ঘটনায় ফের বাড়তি সতর্ক হয়ে গিয়েছে ভারতীয় বায়ুসেনা৷ নির্দিষ্ট আকাশপথের বাইরে গিয়ে করাচির কার্গো বিমানের রাজস্থানের সীমান্তে ঢুকে পড়ার পিছনে রহস্য উদঘাটনের চেষ্টায় মরিয়া আধিকারিকরা৷

[আরও পড়ুন: আইএস হানার আশঙ্কা, গোয়েন্দাদের নজরে ২৬ সন্দেহভাজন মুসলিম ধর্মগুরু]

পুলওয়ামা হামলা পরবর্তী সময়ে ভারত-পাকিস্তানের চরম দ্বন্দ্বের মুহূর্তে অন্তত ৩ বার পাক যুদ্ধবিমান আন্তর্জাতিক আকাশসীমা লঙ্ঘন করে ঢুকে পড়েছিল এদেশের আকাশে৷ প্রথমবার মিগ-২১ বিমান নিয়ে পাক বিমান এফ-১৬ তাড়া করতে গিয়েই পাকিস্তানে গিয়ে পড়েছিলেন বায়ুসেনার উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমান৷ সেখানে তাঁকে কাটাতে হয়েছিল অন্তত ২দিন৷ শেষপর্যন্ত আন্তর্জাতিক চাপের মুখে হার মেনে তাঁকে নিঃশর্তে মুক্তি দিয়েছিল ইমরান প্রশাসন৷ মাস তিন আগের সেই স্মৃতি এখনও টাটকা৷ বর্তমানে দু’দেশের মধ্যে সেই টানটান উত্তেজনা কিছুটা স্তিমিত হয়েছে৷ তা সত্ত্বেও শুক্রবার এভাবে এএন-১২এর অনুপ্রবেশ মোটেই ভাল চোখে দেখছে না ভারতীয় বায়ুসেনা বাহিনী৷ একে পাকিস্তানের কূটনৈতিক চাল হিসেবেই দেখছেন বায়ুসেনার অভিজ্ঞ আধিকারিকরা৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement