BREAKING NEWS

১৪ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

রাতের অন্ধকারে প্রেমিকার সঙ্গে শরীরী খেলা, ধরা পড়ে এ কী হল যুবকের!

Published by: Sayani Sen |    Posted: June 3, 2019 11:54 am|    Updated: June 3, 2019 12:12 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রেমিকার বাড়িতে ঘনিষ্ঠ অবস্থায় ধরা পড়ে গিয়ে গুলি চালাল যুবক৷ গুলি লক্ষ্যভ্রষ্ট হওয়ায় জখম হননি কেউই৷ তবে প্রেমিকার পরিজন এবং প্রতিবেশীদের গণধোলাইতে মৃত্যু হল যুবকের৷ নৃশংসতার সাক্ষী উত্তরপ্রদেশের গোরক্ষপুর৷ ঘটনায় প্রেমিকার পরিবারের মোট ছ’জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের হয়েছে৷

[ আরও পড়ুন: জোর করে চাপিয়ে দেওয়া হবে না হিন্দি, আশ্বাস বিদেশমন্ত্রীর]

প্রেমিকার সঙ্গে একান্তে কিছুটা সময় কাটাবেন ভেবেছিলেন যুবক৷ তাই তরুণীর বাড়িতে গিয়ে উঠেছিলেন৷ রাতের অন্ধকারে প্রেমালাপও শুরু করেছিলেন৷ কিছুক্ষণের মধ্যে ঘনিষ্ঠ হয়ে একে-অপরের কাছে চলে আসেন, শুরু হয় শরীরী খেলা৷ ঠিক সেই সময়ে ঘরে ঢুকলেন তরুণীর দাদা৷ কী করবেন কিছুই বুঝে ওঠার ক্ষমতাও তখন যেন হারিয়ে গিয়েছিল যুবকের৷ তরুণীর দাদা চিৎকার করতে শুরু করেন৷ বোনকে বকাঝকাও করতে থাকেন৷ দিকভ্রান্তের মতোই পকেটে হাত চলে যায় যুবকের৷ বন্দুক বের করে নেন৷ গুলি চালাতে থাকেন৷ গুলি লক্ষ্যভ্রষ্ট হওয়ায় কেউই জখম হননি৷ তবে গভীর রাতে গোলাগুলির শব্দে ঘুম ভেঙে যায় প্রতিবেশীদের৷ তারাও জড়ো হয়ে যান৷ ততক্ষণে ওই যুবককে প্রেমিকার পরিজন-প্রতিবেশীরা ঘিরে ধরেছেন৷ তরুণীর বাধা অগ্রাহ্য করেই শুরু হয় বেধড়ক মারধর৷ মাটিতে ফেলে কেউ লাঠি আবার কেউ ধারালো অস্ত্র দিয়ে ওই যুবকের উপর ঝাঁপিয়ে পড়ে৷ ব্যাপক মারে মাথায় চোট পান ওই যুবক৷ রক্তে সারা শরীর প্রায় ভিজে যায় তাঁর৷ অজ্ঞান হয়ে যান প্রহৃত যুবক৷ তখন ঘটনাস্থলে জড়ো হওয়া ব্যক্তিরা যুবককে উদ্ধার করেন৷ স্থানীয় হাসপাতালেও নিয়ে যাওয়া হয় তাঁকে৷ বেশ কিছুক্ষণ চিকিৎসাও হয় আক্রান্তের৷ তবে শেষরক্ষা হয়নি৷ যুবক মারা গিয়েছেন বলেই জানান চিকিৎসকেরা৷

[ আরও পড়ুন: আদালতের নির্দেশে এবার মানুষের মতো সব অধিকার পাবে পশুরাও]

এই ঘটনায় স্থানীয় থানায় খুনের অভিযোগ দায়ের হয়েছে৷ পুলিশ আধিকারিক সুনীল গুপ্তা বলেন, ‘‘প্রেমিকার সঙ্গে ঘনিষ্ঠ অবস্থায় ধরা পড়ে যায় যুবক৷ তার জেরে এত বড় কাণ্ড ঘটেছে৷ নিহত যুবকের দেহ ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়েছে৷ তরুণীর বাবা, দাদা-সহ মোট ছজনের বিরুদ্ধে মামলা রুজু করা হয়েছে৷’’ মর্মান্তিক ঘটনায় এখনও কেউ গ্রেপ্তার হয়নি৷ অভিযুক্তদের খোঁজে তল্লাশি জারি রয়েছে৷ 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement