৫ আশ্বিন  ১৪২৬  সোমবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ট্রাফিক আইনে কড়াকড়ির পর থেকেই মোটা অঙ্কের জরিমানার ঘটনা উঠে আসছে শিরোনামে। তবে এবার জরিমানার অঙ্ক জানলে আঁতকে উঠবেন। ট্রাকে অতিরিক্ত মাল বহনের অপরাধে এক লক্ষ ৪১ হাজার টাকা জরিমানা করা হল রাজস্থানের এক ট্রাক মালিককে।

সরকারের নয়া সিদ্ধান্তে ট্রাফিক আইন ভাঙলেই বিপাকে পড়তে হচ্ছে চালক ও মালিককে। সম্প্রতি নিয়মভঙ্গের অভিযোগে এক অটো চালককে ২৭ হাজার জরিমানা দিতে হয়েছিল। তারপরই সামনে আসে ওড়িশার ঘটনা। যেখানে একাধিক নিয়ম ভাঙায় এক ট্রাক চালককে ৮০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছিল। এসব ঘটনা রীতিমতো সোশ্যাল মিডিয়ায় চর্চার বিষয়ে পরিণত হয়েছিল। তবে এবার সেই আলোচনাকে পিছনে ফেলে দিল দিল্লির ঘটনা। সোমবার রাজস্থানের ট্রাক মালিক ভগবান রামকে ১ লক্ষ ৪১ হাজার ৭০০ টাকা জরিমানা করা হয় অতিরিক্ত মাল বহন করার অপরাধে। তাঁর চালানের ছবি এখন নেটদুনিয়ায় ভাইরাল।

[আরও পড়ুন: ‘ওলা-উবেরের জন্যই দুর্গতি গাড়ি শিল্পের’, দায় এড়িয়ে মন্তব্য অর্থমন্ত্রীর!]

সম্প্রতি কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নীতীন গড়কড়ি জানিয়েছিলেন, মুম্বইয়ের বান্দ্রা-ওরলি ব্রিজে দ্রুত গতিতে গাড়ি চালানোয় তাঁকেও জরিমানা দিতে হয়েছিল। অর্থাৎ আইন যে সবার ক্ষেত্রেই সমান, সেকথাই বুঝিয়ে দিয়েছিলেন মন্ত্রী। বিশেষ করে নয়া নির্দেশিকা জারি হওয়ার পর থেকে কাউকেই যে রেয়াত করা হবে না, তাও স্পষ্ট। গাড়ি চালানোর সময় মোবাইল কানে কথা বলা, ট্রাফিক সিগন্যাল না মানা, ভুল পথে গাড়ি চালানোর মতো বেশ কিছু নিয়ম ভঙ্গের ক্ষেত্রে মোটা অঙ্কের জরিমানার নির্দেশিকা জারি হয়েছে গত সপ্তাহ থেকেই।

নতুন নিয়ম অনুযায়ী, গাড়ি চালানোর সময় বেল্ট না পরলে গুনতে হবে ১০০০টাকা। আগে যা ছিল ১০০টাকা। মোবাইল ব্যবহারের ক্ষেত্রে জরিমানা ১০০০ থেকে বেড়ে হয়েছে ১০০০ থেকে ৫০০০ টাকার মধ্যে। পাশাপাশি মদ্যপ অবস্থায় গাড়ি চালালে দিতে হবে ১০ হাজার টাকা জরিমানা। অতিরিক্ত গতিতে গাড়ি চালালে এক থেকে দু’হাজার টাকা জরিমানা গুনতে হবে। ট্রাফিক আইন ভাঙলে সেই গাড়ির মালিককেই দোষী সাব্যস্ত করা হবে। যাঁর ২৫ হাজার টাকা জরিমানার পাশাপাশি তিন বছরের জেলও হতে পারে। সেই সঙ্গে তাঁর গাড়ির রেজিস্ট্রেশনও বাতিল করে দেওয়া হবে।

[আরও পড়ুন: গাঁজা সেবনে বিশ্বে তৃতীয় স্থানে দিল্লি! প্রকাশ্যে উদ্বেগজনক পরিসংখ্যান]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং