BREAKING NEWS

১৯  আষাঢ়  ১৪২৯  মঙ্গলবার ৫ জুলাই ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

এবার দিল্লিতে বেআইনি মন্দির ভাঙার নোটিস কেন্দ্রের, ক্ষোভে ফুঁসে উঠল AAP

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: April 24, 2022 3:19 pm|    Updated: April 24, 2022 3:19 pm

AAP attacks Centre over temple demolition notice in Delhi | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: জাহাঙ্গিরপুরীতে (Jahangirpuri) ‘বুলডোজার রাজ’ নিয়ে বিস্তর বিতর্কের মধ্যেই এবার দক্ষিণ দিল্লির একটি মন্দির ভাঙার নোটিস দিল কেন্দ্র। দক্ষিণ দিল্লির শ্রীনিবাসপুরীর ওই মন্দিরটি সরকারি জায়গায় অবৈধভাবে তৈরি হয়েছে বলে দাবি কেন্দ্রের আবাসন এবং নগরোন্নয়ন মন্ত্রকের। যদিও এই নোটিসের তীব্র প্রতিবাদ করেছে দিল্লির শাসকদল আম আদমি পার্টি (Aam Admi Party)।

বস্তুত, দিল্লির শ্রীনিবাসপুরী এলাকাটি পুনর্বিন্যাস করছে কেন্দ্র। ওই এলাকার নীলকণ্ঠ মহাদেব মন্দিরটি পুনর্বিন্যাসের কাজে বাধা হয়ে দাঁড়াচ্ছে বলে দাবি কেন্দ্রের আবাসন এবং নগরোন্নয়ন মন্ত্রকের (Ministry of Housing and Urban Affairs)। গত শনিবারই কেন্দ্রের ওই মন্ত্রক মন্দির কর্তৃপক্ষকে নোটিস পাঠিয়ে জানিয়ে দিয়েছে, মন্দিরের অবৈধ অংশটি খালি করে দিতে হবে, নাহলে মন্ত্রকের তরফে তা খালি করে ভেঙে দেওয়া হবে। এ প্রসঙ্গে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশের কথাও উল্লেখ করেছে কেন্দ্র। আবাসন এবং নগরোন্নয়ন মন্ত্রকের দাবি, শীর্ষ আদালতও (Supreme Court) জানিয়েছে কোনও ধর্মস্থান যদি অবৈধ জায়গায় তৈরি হয়, তাহলে ওই মন্দিরের বিগ্রহ রাখার জায়গা বাদে বাকি সবটাই ভেঙে দেওয়া যায়।

[আরও পড়ুন: রোজ ২০ হাজার কোটির ডিজিটাল লেনদেন হচ্ছে দেশে, ‘মন কি বাতে’ ক্যাশলেসে জোর মোদির]

কেন্দ্রের তরফে মন্দির ভাঙার এই নোটিস মন্দির কর্তৃপক্ষ দিতেই সরব হয়েছে দিল্লির শাসকদল আম আদমি পার্টি। আপের অভিযোগ, দিল্লিতে তোলাবাজির রাজনীতি করছে বিজেপি। এতদিন বাড়ি-দোকান ভাঙার হুমকি দিয়ে টাকা তুলত, এবার মন্দিরও ভাঙার হুমকি দিয়ে টাকা তোলা হচ্ছে। আপ নেত্রী অতসী টুইট করে কেন্দ্রের এই নোটিসের তীব্র বিরোধিতা করেছেন। স্থানীয়রাও মন্দির ভাঙার নোটিসের বিরুদ্ধে সরব। স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়ে দিয়েছেন, কেউ মন্দির ভাঙতে এলে সামনে দাঁড়িয়ে তাঁরা প্রতিবাদ করবেন।

[আরও পড়ুন: হনুমান চালিশা বিতর্ক: নবনীতের বিরুদ্ধে আরও একটি FIR, তুললেন ‘উদ্ধব ঠাকরে মুর্দাবাদ’ স্লোগান]

ঘটনা হল, দিল্লির জাহাঙ্গিরপুরীর সংখ্যালঘু অধ্যুষিত এলাকায় দিন দুয়েক আগে পর্যন্ত নির্বিচারে বুলডোজার চালিয়ে বাড়ি-দোকান ভেঙে দিচ্ছিল দিল্লি পুরনিগম। সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে তা বন্ধ হয়েছে। সেই উচ্ছেদের সময় আপের কোনও নেতা প্রতিবাদ করেননি, কাউকে জাহাঙ্গিরপুরীর ঘটনার পর ঘটনাস্থলেও দেখা যায়নি। অথচ, মন্দির ভাঙার নোটিস পেতেই ফুঁসে উঠল আপ।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে