BREAKING NEWS

১৪ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

‘ঘোড়া কেনাবেচা’র অভিযোগ, কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে নোটিস পাঠাল রাজস্থান পুলিশ

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: July 20, 2020 1:20 pm|    Updated: July 20, 2020 1:26 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: হাতিয়ার বিতর্কিত ‘অডিও টেপ’। এবার খোদ কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে নোটিস পাঠাল রাজস্থান সরকার। সোমবার কেন্দ্রীয় জলশক্তি মন্ত্রী গজেন্দ্র সিং শেখাওয়াতকে (Gajendra Singh Shekhawat) নোটিস পাঠিয়েছে রাজস্থান পুলিশের স্পেশ্যাল অপারেশন গ্রুপ (SOG)। কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে নিজের কণ্ঠস্বরের নমুনা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। নোটিসের প্রাপ্তি স্বীকার করেছেন জলশক্তি মন্ত্রীও। তিনি জানিয়েছেন, হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে তাঁর কাছে নোটিস পাঠানো হয়েছে। তবে নিজের পরবর্তী পদক্ষেপ নিয়ে এখনও কোনও মন্তব্য করেননি শেখাওয়াত।

রাজস্থানের টালমাটাল রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে নতুন মাত্রা যোগ করেছে দুটি অডিও টেপ। কংগ্রেসের (Congress) দাবি, ভাইরাল ওই অডিও টেপে স্পষ্ট প্রমাণ পাওয়া গিয়েছে যে, রাজস্থানের এক শীর্ষ বিজেপি নেতা এবং কেন্দ্রীয় জলশক্তি মন্ত্রীর সঙ্গে সরকার ফেলার দর কষাকষি করছে দুই দলীয় বিধায়ক। এর ভিত্তিতে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী গজেন্দ্র সিং শেখাওয়াতের নামে এফআইআরও করা হয়েছে। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী শেখাওয়াত আবার সেই অভিযোগ শুরু থেকেই অস্বীকার করে আসছেন। তাঁর স্পষ্ট দাবি, অডিও টেপে যে কণ্ঠস্বর শোনা যাচ্ছে, সেটা তাঁর নয়। প্রয়োজনে তদন্তে সবরকম সহযোগিতা করতে তিনি রাজি। যদিও, টেপে যে দুই কংগ্রেস বিধায়কের কথা উল্লেখ করা হয়েছে, তাঁরা নিজেদের ভয়েস স্যাম্পল দিতে অস্বীকার করেছেন।

[আরও পড়ুন: কোথায় আর্থিক সংকট? ৪০ কেজি রুপোর পাত দিয়ে তৈরি হবে রাম মন্দিরের ভিত]

এরই মধ্যে রাজস্থান পুলিশের তরফে শেখাওয়াতকে নোটিস পাঠানো হল। ওই অডিও ক্লিপদু’টিতে যে দু’জন বিধায়কের কণ্ঠস্বর শোনা যাচ্ছে তাঁদেরও খোঁজ করছে রাজস্থান পুলিশের স্পেশ্যাল অপারেশন গ্রুপ। ওই বিধায়কদের খোঁজে সোমবার ভোর পৌনে ছটা নাগাদ হরিয়ানার মানেসরের একটি হোটেলে হানা দেন স্পেশ্যাল অপারেশন গ্রুপের আধিকারিকরা। কিন্তু সেখানে তাঁদের খোঁজ মেলেনি। জানা গিয়েছে, হরিয়ানারই কোনও অজানা জায়গায় গা ঢাকা দিয়ে আছেন তাঁরা। এত নাটকের মধ্যেও কিন্তু ফুরফুরে মেজাজে মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলট (Ashok Gehlot)। আজ সকালেও গেহলট শিবিরের বিধায়কদের গান গাইতে শোনা গিয়েছে।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement