BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘আরও অন্তত দু’মাস চুপচাপ থাকুন’, করোনার টিকা প্রসঙ্গে মন্তব্য সেরাম কর্তার

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: August 28, 2020 10:49 am|    Updated: August 28, 2020 10:52 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভ্যাকিসিনের ট্রায়াল যে গতিতে চলছে, তাতে টিকা বাজারে আসতে দু’মাস সময় লেগেই যাবে। বক্তা স্বয়ং পুণের সেরাম ইনস্টিটিউটের কর্তা আদর পুনাওয়ালার। আপাতত অক্সোফোর্ড ও অ্যাস্ট্রাজেনেকার (Oxford-AstraZeneca) টিকা কোভিশিল্ডের দ্বিতীয় পর্যায়ের ট্রায়াল শুরু হয়েছে। পুণের ভারতী বিদ্যাপীঠ মেডিক্যাল কলেজে কোভিশিল্ডের ট্রায়ালের কাজ শুরু হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। এদিন সেরামের তরফে জনানো হয়েছে, ভবিষ্যতে ব্যবহারের জন্য কোভিশিল্ড টিকা মজুত করার অনুমতি দিয়েছে সরকার। ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল সফল হলে টিকা তৈরিতে যদি ছাড়পত্র মেলে, তবেই এর বাণিজ্যিক উৎপাদন শুরু হবে। মানবশরীরে করোনার বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে এবং করোনার বিরুদ্ধে এর প্রয়োগ নিশ্চিত ভাবে ফলপ্রসু হলে তবেই বাজারে আনা হবে এই টিকা। তার আগে নয়। সেরাম কর্তা আদর পুনাওয়ালা (Adar Poonawalla) বলছেন, আপাতত অন্তত দুমাস চুপচাপ থাকাই ভাল। সঠিক সময়ে সঠিক তথ্য দেওয়া হবে সংস্থার তরফে। তার আগে দয়া করে ট্রায়াল নিয়ে কেউ কোনও খবর পরিবেশন করবেন না। 

আপাতত দ্বিতীয় ধাপের পরীক্ষার ফলাফল জানতে আরও ১৫ দিন অপেক্ষা। তবে টিকা উৎপাদন এবং বণ্টনের রূপরেখা চূড়ান্ত হয়ে গিয়েছে বলেই সূত্রের খবর। কোভিশিল্ড টিকার দাম ২২৫ টাকা। প্রতিষেধক আবিষ্কার হলে তা যাতে দ্রুত এবং সুলভে দেশবাসীর কাছে পৌঁছে দেওয়া যায়, সে জন্য একটি পরিকল্পনা তৈরি করছে কেন্দ্র। ওই প্রকল্পের পোশাকি নাম ‘মিশন কোভিড সুরক্ষা’। সে জন্য বরাদ্দ করা হয়েছে তিন হাজার কোটি টাকা। কেন্দ্রের তরফে অবশ্য এই বিষয়টি নিয়ে আনুষ্ঠানিক ভাবে কিছু জানানো হয়নি।

[আরও পড়ুন: ফের রেকর্ড সংক্রমণ, দেশে একদিনেই করোনার কবলে প্রায় ৭৭ হাজার, মৃত হাজারের বেশি]

ভ্যাকসিনে আত্মনির্ভরতার কথা উল্লেখ করতে গিয়ে আইসিএমআরের ডিজি বলরাম ভার্গব জানিয়েছেন, দেশে তিনটি টিকা এখন অন্তিম পর্যায়ে ট্রায়ালে রয়েছে। তার মধ্যে দু’টি টিকা দেশজ। একটি ভারত বায়োটেকের। অন্যটি জাইদাস ক্যাডিলার। পুণের সেরাম ইনস্টিটিউটের  (Serum Institute of India) কোভিশিল্ডের ট্রায়ালে ১৭০০ স্বেচ্ছাসেবক নাম লিখিয়েছেন। আপাতত গোটা দেশ তাকিয়ে আছে সেরামের দিকেই। কারণ, এই তিনটি ভ্যাকসিনের মধ্যে ট্রায়ালে সবচেয়ে এগিয়ে আছে অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিনটিই।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement