BREAKING NEWS

১৭ ফাল্গুন  ১৪২৭  বুধবার ৩ মার্চ ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

কর্ণাটকের উল্লাল শহরকে পাকিস্তানের সঙ্গে তুলনা, বিতর্কিত মন্তব্য আরএসএস নেতার

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: January 29, 2021 10:15 am|    Updated: January 29, 2021 10:24 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভারতের বিভিন্ন এলাকাকে মাঝেমধ্যেই পাকিস্তানের সঙ্গে তুলনা করেন রাজনৈতিক দলের নেতারা। মহারাষ্ট্র থেকে পশ্চিমবঙ্গ, রাজনৈতিক নেতা থেকে বিখ্যাত অভিনেত্রী। এই বিষয়ে মন্তব্য করে বিতর্ক তৈরি করেছেন অনেকেই। এবার সেই তালিকায় নাম লেখালেন কর্ণাটকের একজন প্রভাবশালী আরএসএস নেতা কাল্লাদকা প্রভাকর ভাট। কর্ণাটকের মাঙ্গালুরু (Mangaluru) -তে অবস্থিত উল্লাল শহরকে পাকিস্তানের সঙ্গে তুলনা করে সেখানকার মানুষদের অমুসলিম বিধায়ক নির্বাচিত করার পরামর্শ দিলেন তিনি। তাঁর বক্তব্যের ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পরেই প্রবল বিতর্ক তৈরি হয়েছে। অবিলম্বে বিতর্কিত ওই মন্তব্যের জন্য তাঁর বিরুদ্ধে পুলিশি ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়েছে বিরোধীরা।

সম্প্রতি কর্ণাটকের ওই বিতর্কিত আরএসএস (RSS) নেতার একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হয়। তাতে প্রভাকর ভাটকে বলতে শোনা যাচ্ছে, ‘আজকে যাকে পাকিস্তান বলা হচ্ছে একসময়ে তা ভারতের সঙ্গেই ছিল। সেখানকার মানুষরাও সবাই ভারতীয় ছিলেন। কিন্তু, দেশভাগের পর ওরা নিজেদের মনোভাব বদলে ফেলে। ওখানকার জমি রক্তে লাল হয়ে ওঠে। প্রবল অত্যাচারের মুখোমুখি হতে হয় পাকিস্তানের হিন্দুদের। মন্দিরগুলি ধ্বংস করার পাশাপাশি হিন্দু মহিলাদের ধর্মান্তরিত করা হয়। তারপর থেকে মৌলবাদীরা এমন পরিস্থিতির সৃষ্টি করেছে যে হিন্দুদের পক্ষে আজ পাকিস্তানে থাকা অসম্ভব হয়ে পড়েছে।’

[আরও পড়ুন: ফের উদ্বেগ! একধাক্কায় অনেকটা বাড়ল দেশের দৈনিক করোনা আক্রান্তের সংখ্যা]

এরপরই কর্ণাটকের উল্লাল শহরের অবস্থা পাকিস্তানের মতো হয়ে গিয়েছে বলে অভিযোগ করেন কাল্লাদকা প্রভাকর ভাট (Kalladka Prabhakar Bhat)। এপ্রসঙ্গে বলেন,’ পাকিস্তানের মতো একই পরিস্থিতি আমরা উল্লালেও দেখতে পাচ্ছি। এই শহরকে পাকিস্তান বললেও ভুল বলা হবে না। আর এই মন্তব্য করার জন্য আমার কোনও অনুশোচনাও হচ্ছে না। কারণ আমি চাই এই ধরনের ঘটনা না ঘটুক আর মানুষ সতর্ক হোক। কয়েক বছর আগে এখানকার মৎস্যজীবীরা মাছ ধরতে গেলে তাঁদের বাড়ির মহিলাদের উপর চড়াও হত দুষ্কৃতীরা। কিছুদিন আগেই একজন যুবককে নৃশংসভাবে হত্যা করা হয়। যুবকরা বাইক করে ঘোরার সময় ছুরিবিদ্ধ হচ্ছেন। লাভ জেহাদ ও গোহত্যা সমানে চলছে। এটাকে যদি পাকিস্তান না বলা হয় তাহলে কাকে বলা হবে। এর সঙ্গে ওখানকার তফাত কী? আমি তো বলব আমাদের যদি দম থাকে তাহলে একজন অমুসলিমকে ওই এলাকার বিধায়ক নির্বাচিত করুন। তবে আমি মনে করি সেটা যেমন পাকিস্তানে সম্ভব নয় তেমনি উল্লালেও হবে না। ওখানকার বাসিন্দাদের হিন্দু হতে নয় ভারতীয় হওয়ার আবেদন জানাব।’

[আরও পড়ুন: নীতীশ কুমারের সঙ্গে দেখা করলেন AIMIM বিধায়করা, তুঙ্গে দলবদলের জল্পনা!]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement