BREAKING NEWS

৮ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২৬ নভেম্বর ২০২০ 

Advertisement

সাধারণ নাগরিকদের করোনা ভ্যাকসিন পেতে পেতে ২০২২, জানালেন এইমসের ডিরেক্টর

Published by: Biswadip Dey |    Posted: November 8, 2020 1:21 pm|    Updated: November 8, 2020 1:52 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আগের থেকে কম গতিতে হলেও দেশে নতুন কোভিড আক্রান্তের সংখ্যাটা বেড়েই চলেছে। মোট আক্রান্তের সংখ্যা পেরিয়ে গিয়েছে ৮৫ লক্ষের গণ্ডি। এই পরিস্থিতিতে দেশবাসীর জন্য খুব আশার কথা শোনাতে পারলেন না এইমসের (AIMS) ডিরেক্টর ড. রণদীপ গুলেরিয়া। তাঁর মতে, সাধারণ ভারতীয় নাগরিকদের কাছে ভ্যাকসিন (Corona vaccine) পৌঁছতে পৌঁছতে ২০২২ সাল হয়ে যাবে।

এক সংবাদমাধ্যমকে সাক্ষাৎকার দেওয়ার সময় তিনি জানিয়েছেন, করোনা ভ্যাকসিন ভারতীয় বাজারে সহজলভ্য হতে হতে এখনও প্রায় এক বছর লেগে যাবে। তাঁর কথায়, ‘‘আমাদের দেশের জনসংখ্যা বিপুল। ফলে কোনও সাধারণ ফ্লু ভ্যাকসিনের মতো বাজার থেকে সেটা কিনে ব্যবহার করার জন্য অপেক্ষা করতেই হবে। সেজন্য ২০২১-এর শেষ বা ২০২২-এর শুরু পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।’’

[আরও পড়ুন: দেশে দৈনিক করোনাজয়ীর সংখ্যা নামল ৫০ হাজারের নিচে, মোট আক্রান্ত পেরল ৮৫ লক্ষ]

কেবল ভারতই নয়, গোটা বিশ্ব অপেক্ষা করে রয়েছে করোনা ভ্যাকসিনের জন্য। জোরকদমে চলছে করোনা (Coronavirus) ভ্যাকসিন সংক্রান্ত গবেষণা। বিভিন্ন দেশে বিভিন্ন পর্যায়ে রয়েছে ভ্যাকসিনের ট্রায়াল। পিছিয়ে নেই ভারতও। ভ্যাকসিনের ট্রায়ালের পাশাপাশি দেশে সবচেয়ে আগে কারা তা নেবেন তার তালিকাও প্রস্তুত করা হচ্ছে। চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মী, সাফাইকর্মী, পুলিশ, বয়স্ক মানুষ এবং যাঁদের কো-মর্বিডিটি রয়েছে তাঁদেরই প্রাধান্য দেওয়া হচ্ছে প্রাথমিকভাবে।

এদিকে শীতকালে করোনার প্রকোপ বাড়া প্রসঙ্গে ড. গুলেরিয়া জানান, যেহেতু তাপমাত্রা কমছে তাই এই ভাইরাসের সংক্রমণ বাড়বে। দিল্লিতে তাপমাত্রা কমতেই সেখানে সংক্রমণ বেড়েছে। সেই প্রসঙ্গেই একথা বলেন তিনি। পাশাপাশি দিল্লির ক্ষেত্রে বায়ুদূষণকেও একটা ফ্যাক্টর বলে উল্লেখ করেন এইমসের ডিরেক্টর। প্রসঙ্গত, দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় ৪৫ হাজার ৬৭৪ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। যা আগের দিনের থেকে প্রায় ৫ হাজার কম।

[আরও পড়ুন: এক্সিট পোলের ফলের পরই মধ্যপ্রদেশে শুরু বিধায়ক কেনাবেচা! এবার কাঠগড়ায় কংগ্রেস]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement