১৭ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  রবিবার ৪ ডিসেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

ফের লকডাউনের পথে মহারাষ্ট্র, রবিবার থেকে জারি নাইট কারফিউ

Published by: Biswadip Dey |    Posted: March 28, 2021 8:13 pm|    Updated: March 28, 2021 8:13 pm

Amid a massive surge in coronavirus cases in Maharashtra Uddhav Thackeray asked to prepare for lockdown । Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মহারাষ্ট্রে (Maharashtra) প্রায় প্রতিদিনই লাফিয়ে বাড়ছে করোনা (Coronavirus) সংক্রমণ। মানা হচ্ছে না করোনা বিধি। ফলে লকডাউন ছাড়া দ্বিতীয় কোনও পথ নেই বলেই মনে করছেন মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে (Uddhav Thackeray)। লকডাউন (Lockdown) নিয়ে পরিকল্পনা তৈরির জন্য রাজ্যের আমলাদের নির্দেশও দিয়েছেন তিনি। আজ রবিবার এক বৈঠকে একথা তিনি বলেছেন বলে জানা গিয়েছে।

আজ রবিবার করোনা পরিস্থিতি নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী ঠাকরের নেতৃত্বে একটি বৈঠক হয়। সেখানে মহারাষ্ট্রের স্বাস্থ্যমন্ত্রী রাজেশ টোপে, মুখ্য সচিব সিতারাম কুঁটে, করোনা টাস্ক ফোর্সের চিকিৎসকরা এবং অন্যান্য আমলারা উপস্থিত ছিলেন। সেই বৈঠকেই লকডাউনের পথে যাওয়ার কথা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। বৈঠকে টাস্ক ফোর্সের সদস্যরা বাড়তে থাকা করোনার রোগীর সংখ্যা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন। সেই সঙ্গে করোনায় মৃত্যুর সংখ্য়া নিয়েও উদ্বেগ প্রকাশ করেন তাঁরা।

[আরও পড়ুন: চিনের রক্তচাপ বাড়িয়ে ভারত মহাসাগরে শুরু ভারত-মার্কিন যৌথ নৌ-মহড়া]

উদ্ধব ঠাকরে উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, করোনা মোকাবিলার জন্য বর্তমান পরিকাঠামোও হয়তো কম পড়তে পারে। দ্বিতীয় ঢেউ যে ভাবে আছড়ে পড়ছে মহারাষ্ট্রে, তা কীভাবে সামাল দেওয়া যায়, তা নিয়ে চিন্তিত গোটা মহারাষ্ট্র প্রশাসন। এমনকী মহারাষ্ট্র প্রশাসনিক ভবন মন্ত্রণালয়ে সাধারণ মানুষের আসা আপাতত বন্ধ রাখার কথা বলা হচ্ছে। স্বাস্থ্যমন্ত্রী স্পষ্ট ভাষায় বলেন, “মানুষ করোনা বিধি মানছে না। তাই  লকডাউনের পথে যাওয়া ছাড়া প্রশাসনের আর কোনও উপায় নেই।”

মহারাষ্ট্রের করোনার বর্তমান পরিস্থিতি বর্ণনা করতে গিয়ে সে রাজ্যের প্রিন্সিপাল সেক্রেটরি (স্বাস্থ্য) ডক্টর প্রদীপ ব্যাস জানিয়েছেন, মোট ৩ লাখ ৭৫ হাজার আইসোলেশন বেড রয়েছে। ইতিমধ্যেই ১ লাখ ৭ হাজার বেড ভরে গিয়েছে। বাকিগুলিও দ্রুত ভরতি হচ্ছে। তাই করোনা মোকাবিলা করতে যে পরিকাঠামো দরকার, তাও হয়তো একটা সময় গিয়ে বেশ কম পড়বে। আজ থেকেই মুম্বইয়ে রাত্রিকালীন কারফিউ জারি হচ্ছে। শপিং মলগুলি রাত ৮টা থেকে সকাল ৭টা পর্যন্ত বন্ধ  থাকবে।

[আরও পড়ুন: মাস্ক না পরলেই যেতে হবে জেলে, করোনা সংক্রমণ রুখতে কড়া দাওয়াই তেলেঙ্গানা সরকারের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে