১৬ ফাল্গুন  ১৪২৬  শনিবার ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

‘ক্ষমতা থাকলে আমার সঙ্গে বিতর্কে আসুন’, রাহুল-মমতাকে চ্যালেঞ্জ অমিতের

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: January 21, 2020 4:03 pm|    Updated: January 21, 2020 4:03 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: “বিভ্রান্তি ছড়াবেন না। যদি ক্ষমতা থাকে আমার সঙ্গে বিতর্কে আসুন। আমার সঙ্গে আলোচনায় বসুন। পারলে প্রমাণ করুন, সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন নাগরিকত্ব কেড়ে নেয়।”, বিরোধীদের চ্যালেঞ্জ ছুঁড়লেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ (Amit Shah)। সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন ইস্যুতে লখনউয়ের সভা থেকে রাহুল-মমতা-অখিলেশ এবং মায়াবতীদের তীব্র কটাক্ষে বিঁধলেন অমিত। এর আগে রাহুল গান্ধী প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে (Narendra Modi) একাধিকবার তাঁর সঙ্গে তর্কে বসার চ্যালেঞ্জ ছুঁড়েছিলেন। এবার রাহুলের সেই টোটকা তাঁকেই ফিরিয়ে দিলেন অমিত শাহ।

 

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (CAA) নিয়ে বিরোধীরা মিথ্যাচার করছে। বিজেপির এই অভিযোগ দীর্ঘদিনের। খোদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি সোমবার বিজেপি সভাপতি জেপি নাড্ডার সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে গিয়ে এই দাবি করেছেন। মঙ্গলবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রীও সেকথাই বললেন। অমিতের দাবি, ক্ষমতার মোহে অন্ধ হয়ে গিয়েছে বিরোধীরা। তাঁরা দেশের বাস্তব পরিস্থিতি দেখতে পাচ্ছে না। সেই সঙ্গে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী আরও একবার জানিয়ে দেন, “বিরোধীর যত খুশি আন্দোলন করুক। সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন থেকে পিছিয়ে আসার কোনও প্রশ্নই নেই।”

[আরও পড়ুন: ‘এবার আপনার উপরও আক্রমণ হবে’, IMF প্রধানকে সতর্ক করলেন চিদম্বরম]

একাধারে রাহুল-মমতা-অখিলেশ-মায়াবতীকে কটাক্ষ করে অমিত শাহ বলেন, “প্রতিদিন তৃণমূল, কংগ্রেস, সমাজবাদী পার্টি, বহুজন সমাজ পার্টি মিথ্যে কথা বলছে। মানুষকে বিভ্রান্ত করছে। যেদিন এই আইন পাশ হয়েছে, সেদিন থেকে খালি ‘কা কা কা কা’ করছে। আমি সবাইকে আশ্বস্ত করছি, নতুন আইনে কারও নাগরিকত্ব কেড়ে নেওয়া হবে না। এটা শুধু নিপীড়িত শরণার্থীদের সম্মান জানানোর আইন।” এদিন, বিরোধীদের কটাক্ষ করতে গিয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী বলেন, “ওঁরা দেশের কোনও কাজ হলেই বিরোধিতা করে। এমনকী, সেনা যখন সার্জিক্যাল স্ট্রইক করে, এয়ারস্ট্রাইক করে তখনও মমতা-মায়াবতী-রাহুল-অখিলেশরা বিরোধিতা করেছে।”

Mamata Banerjee
সিএএ বিরোধী বিক্ষোভের নেতৃত্বে মমতা

[আরও পড়ুন: সরবমতীর পর এবার নর্মদা, ফের JNU-তে হস্টেলে ঢুকে মারধরে কাঠগড়ায় এবিভিপি]

উল্লেখ্য, সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন পাশ হওয়ার পর থেকেই দেশজুড়ে বিক্ষোভ চলছে। অনেক জায়গায় পথে নেমেছেন সাধারণ নাগরিকদের একাংশ। সংখ্যালঘু মুসলিমরা তো বটেই, অন্যান্য ধর্মের মানুষও তাঁদের সাথে পা মিলিয়ছেন। যদিও গেরুয়া শিবিরের দাবি, এই বিক্ষোভ স্বতঃস্ফূর্ত নয়, এর পিছনে বিরোধীদের উসকানি এবং ইন্ধন রয়েছে।

An Images
An Images
An Images An Images