১৯ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  মঙ্গলবার ৬ ডিসেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

আলকায়দা যোগের অভিযোগ, অসমে বুলডোজারে গুঁড়িয়ে দেওয়া হল মাদ্রাসা

Published by: Kishore Ghosh |    Posted: August 31, 2022 1:05 pm|    Updated: August 31, 2022 6:51 pm

Another Assam madrassa demolished over al-Qaeda links | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফের অসমে (Assam) বুলডোজারের সাহায্যে গুঁড়িয়ে দেওয়া হল মাদ্রাসা (Madrasa)। ওই মাদ্রাসাটির সঙ্গে জঙ্গি গোষ্ঠী আলকায়দার (Al-Qaeda) যোগ রয়েছে বলে অভিযোগ। আলকায়দা যোগের অভিযোগে ক’দিন আগে পাঁচ বাংলাদেশিকে গ্রেপ্তার করা হয় বলে জানা গিয়েছে। এদিন অসমের বোঙ্গাইগাঁও (Bongaigaon) এলাকায় অবস্থিত ওই মাদ্রাসাটি ভেঙে দেওয়া হয়।

সাম্প্রতিক অতীতে উত্তরপ্রদেশে বুলডোজারের সাহায্যে দেশদ্রোহে অভিযুক্তদের বাড়ি ভেঙে দেওয়ার একাধিক ঘটনা ঘটেছে। এবার মাদ্রাসা গুঁড়িয়ে দিতে বুলডোজারের দেখা মিলল অসমে। কিছুদিন আগে জঙ্গি যোগের অভিযোগে রাজ্যের মৈরাবাড়ির মরিগাঁও এলাকায় অবস্থিত একটি মাদ্রাসা ভেঙে ফেলা হয়। তার আগে একই ধরনের অভিযোগে আরও একটি মাদ্রাসা ভাঙে প্রশাসন।

[আরও পড়ুন: বুলডোজারের ভয় দেখাতেই খুলল দরজা! বিতাড়িত স্ত্রীকে স্বামীর ঘরে ফেরাল পুলিশ]

বোঙ্গাইগাঁওয়ের মাদ্রাসাটি ভাঙা নিয়ে এসপি স্বপ্ননীল ডেকা জানান, জঙ্গি গোষ্ঠী আলকায়দার সঙ্গে যুক্ত এক ব্যক্তিকে খুঁজতে সম্প্রতি ওই মাদ্রাসায় তল্লাশি অভিযান চালায় গোয়ালপাড়া জেলা পুলিশ। এরপর প্রশাসনের নির্দশে মতো মাদ্রাসা ভাঙার কাজ হয়। স্বপ্ননীল আরও বলেন, “জেলা প্রশাসনের বক্তব্য, মাদ্রাসা ভবনটি নির্মাণে ত্রুটি ছিল। ভবনটি মানুষের বসবাসের পক্ষে বিপজ্জনক। তাছাড়া পুর আইন মেনে সেটি তৈরি হয়নি। এইসব কারণেই তা ভাঙা হচ্ছে।”

[আরও পড়ুন: গঙ্গাবক্ষে নৌকায় বসে হুঁকো পান, মাংস রান্না যুবকদের! ভিডিও ঘিরে বিতর্ক তুঙ্গে যোগীরাজ্যে]

উল্লেখ্য, কিছুদিন আগে অসমে বাংলাদেশি জঙ্গি ঢুকেছে বলে উদ্বেগ প্রকাশ করেন মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মা (Himanta Biswa Sarma)। যার পর থেকেই ব্যাপক ধরপাকড় শুরু হয়েছে পড়শি রাজ্যে। এখনও অবধি ৩৭ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এদের মধ্যে অনেকেই মাদ্রাসার ইমাম ও শিক্ষক। হিমন্ত বিশ্ব শর্মার দাবি, আজকের অসম জিহাদি কার্যকলাপের কেন্দ্রস্থলে পরিণত হয়েছে। সাম্প্রতিককালের পাঁচটি ঘটনায় বাংলাদেশি জঙ্গি সংগঠন আনসারুল ইসলামের (Ansarul Islam) যোগ মিলেছে বলে জানিয়েছেন তিনি। এই বিষয়ে সাধারণ মানুষকে সচেতন হতে হবে, বলেন অসমের মুখ্যমন্ত্রী। সন্দেহভাজন মনে হলেই পুলিশকে খবর দিতে বলেছেন তিনি। এরপর থেকে এই নিয়ে তিনটি মাদ্রাসা ভাঙা হল।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে