BREAKING NEWS

০৯  আষাঢ়  ১৪২৯  শনিবার ২৫ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

CAB’র প্রতিবাদে অগ্নিগর্ভ অসম, বিমানবন্দরে আটকে মুখ্যমন্ত্রী

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: December 11, 2019 4:34 pm|    Updated: December 11, 2019 5:06 pm

Army deployed in Assam amidst violent anti CAB protest

সংবাদ প্রতিদিন ব্যুরো: নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের প্রতিবাদে উত্তাল অসম, ত্রিপুরার অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতি সামলাতে এবার সেনা নামানোর সিদ্ধান্ত নিল কেন্দ্র। কাশ্মীর থেকে ২০ কোম্পানি আধাসেনাকে সরিয়ে এনে মোতায়েন করা হচ্ছে দুই রাজ্যে। আজ তাঁদের বিশেষ ট্রেনে নিয়ে আসা হচ্ছে বলে সূত্রের খবর। রাজ্যজুডে প্রতিবাদের জেরে গুয়াহাটি বিমানবন্দরে ঘণ্টাখানেক আটকে ছিলেন অসমের মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোনওয়াল। পরে তাঁকে বিশেষ নিরাপত্তারক্ষীদের দিয়ে পিছনের দরজা দিয়ে বের করে নিরাপদে নিয়ে যাওয়া হয়।

সংসদে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল পেশ করার তোড়জোড় শুরু হতেই প্রতিবাদের সলতে পাকাচ্ছিল উত্তরপূর্ব ভারত। সোমবার মাঝরাতে তা রাজ্যসভায় পেশ হতেই উত্তপ্ত হয়ে ওঠে অসম, ত্রিপুরা। নর্থ ইস্ট স্টুডেন্টস অর্গানাইজেশন বা NESO-র ডাকা বনধে মঙ্গলবার প্রায় গোটা এলাকা স্তব্ধ ছিল। কিন্তু বুধবারও তার রেশ গেল না। দোকানপাট ছিল বন্ধ। এদিন ডিব্রুগড়ের পথে বিক্ষোভ দেখাতে নেমে গুলিবিদ্ধ এক ছাত্র। বিক্ষোভ দমনে পুলিশ প্রথমে লাঠিচার্জ করে, টিয়ার গ্যাসের শেল ছোঁড়ে। পরে গুলি চালালে, পায়ে গুলি লাগে ডিব্রুগড় পলিটেকনিক কলেজের এক ছাত্রের। এ নিয়ে প্রতিক্রিয়া দিতে গিয়ে উলফা প্রধান পরেশ বড়ুয়া স্পষ্ট হুঁশিয়ারি দিয়েছেন, অসমিয়া পড়ুয়াদের গায়ে হাত তুললে, ফল ভুগতে হবে প্রশাসনকে।

[আরও পড়ুন: গুজরাট দাঙ্গায় প্রধানমন্ত্রী মোদিকে ক্লিনচিট দিল নানাবতী কমিশন]

এদিন সকাল থেকে অসম, ত্রিপুরার বিভিন্ন জায়গায় রেললাইন অবরোধ করে বিক্ষোভে নামে ছাত্র সংগঠন। যার জেরে বাতিল করে দেওয়া হয় বেশ কয়েকটি ট্রেন। শিলচর-ডিব্রুগড়, ডিব্রুগড়-গুয়াহাটি এক্সপ্রেস, গুয়াহাটি ইন্টারসিটি এক্সপ্রেস বাতিলের পাশাপাশি রাস্তায় টায়ার জ্বালিয়েও বিক্ষোভ দেখানো হয়। দিসপুরে অসম সেক্রেটারিয়েট ভবনের সামনে রাস্তা আটকে বিক্ষোভ দেখানোর সময়ে তাঁদের সঙ্গে পুলিশের খণ্ডযুদ্ধ বাঁধে।

[আরও পড়ুন: ‘দিল্লির দূষণে এমনিতেই আয়ু কমছে, তাহলে ফাঁসি কেন?’ অদ্ভুত যুক্তি নির্ভয়ার ধর্ষকের]

আরেকদিকে, অশান্তিতে উত্তপ্ত ত্রিপুরাও। রাজধানী আগরতলায় আধাসেনা নামানো হয়েছে। স্বশাসিত জেলা পরিষদ এলাকাগুলিতে বনধ পরিবেশ। রাজ্যজুড়ে ৪৮ ঘণ্টার জন্য বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে ইন্টারনেট পরিষেবা। স্পর্শকাতর এলাকায় জারি ১৪৪ ধারা। কাঞ্চনপুর, তেলিয়ামুড়া, সিপাহিজলায় বিক্ষিপ্ত হিংসা চলছে। শান্তির আবেদন জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব।

দেখুন ভিডিও: 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে