৯ মাঘ  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ২৩ জানুয়ারি ২০২০ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

৯ মাঘ  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ২৩ জানুয়ারি ২০২০ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গত ৯ আগস্ট থেকে শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যা নিয়ে নয়াদিল্লির এইমসে ভরতি থাকার পর, শনিবার দুপুর ১২টা ০৭ মিনিটে শেষনিশ্বাস ত্যাগ করেন প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি৷ বাগ্মী জেটলির মৃত্যুতে শোকাহত রাজনৈতিক মহল থেকে শুরু করে আপামর দেশবাসী৷ দীর্ঘদিনের সহযোদ্ধার মৃত্যুকে বন্ধুবিয়োগের সঙ্গে তুলনা করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি৷ তিনি বলেন, “আমি কল্পনাই করতে পারছি না যে, আমি যখন দেশ থেকে এত দূরে বাহরিনে দাঁড়িয়ে, তখন আমার বন্ধু অরুণ চলে গেল।” একই ভাবে দলের এই প্রবীণ নেতার মৃত্যুকে ব্যক্তিগত ক্ষতি বলে ব্যাখ্যা করেছেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ৷

[ আরও পড়ুন: মণিপুর থেকে বাজেয়াপ্ত ৪১০ কোটি টাকার মাদক, গ্রেপ্তার পাঁচ]

শনিবারই প্রয়াত প্রাক্তন অর্থমন্ত্রীর দেহ নিয়ে যাওয়া হয় কৈলাশ কলোনির বাসভবনে। সেখানে তাঁকে শ্রদ্ধা জানান সাধারণ মানুষ থেকে রাজনৈতিক নেতারা৷ সেখানে তাঁকে শেষ শ্রদ্ধা জানান, ইউপিএ চেয়ারপার্সন ও কংগ্রেস সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধী৷ ছিলেন রাহুল গান্ধী, বর্ষীয়ান বিজেপি নেতা লালকৃষ্ণ আডবাণী, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ৷ এছাড়া অন্যান্য রাজনৈতিক দলের নেতারা৷ যেমন, চন্দ্রবাবু নায়ড়ু, শরদ পাওয়ার, প্রফুল্ল প্যাটেল, অজিত সিং-সহ প্রমুখ৷

দুপুর ৩টে ৪০ মিনিট: গান স্যালুটের মাধ্যমে পূর্ণ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় সম্পন্ন হল প্রয়াত প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলির শেষকৃত্য৷ দিল্লির নিগম বোধ ঘাটে চোখের জলে দীর্ঘদিনের সহযোদ্ধাকে বিদায় জানালেন রাজ্যসভার চেয়ারম্যান তথা উপরাষ্ট্রপতি বেঙ্কাইয়া নায়ড়ু, অমিত শাহ, রাজনাথ সিং-সহ অন্যান্য রাজনৈতিক দলের নেতারা৷

দুপুর ২টো: প্রয়াত অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলির দেহ পৌঁছল নিগম বোধ ঘাটে। সেখানেই পূর্ণ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় সম্পন্ন হবে তাঁর শেষকৃত্য৷

দুপুর ১টা ২০ মিনিট: দীনদয়াল উপাধ্যায় মার্গ থেকে নিগম বোধ ঘাটে উদ্দেশে রওনা দিল প্রয়াত অরুণ জেটলির শববাহী শকট৷ 

[ আরও পড়ুন: লাইফ সাপোর্ট সিস্টেম থেকে ফিরেছিলেন আত্মীয়, ‘মিরাকল’-এ অটুট ভরসা ছিল জেটলির স্ত্রীর ]

দুপুর ১২টা: বিজেপির সদর দপ্তরে প্রয়াত প্রাক্তন অর্থমন্ত্রীকে শেষশ্রদ্ধা জানালেন অমিত শাহ, জেপি নেড্ডা, রাজনাথ সিং, রঘুবর দাস, সত্যপাল মালিক-সহ বিজেপি নেতারা৷

সকাল ১১টা: বিজেপির সদর দপ্তরে পৌঁছল প্রাক্তন অর্থমন্ত্রীর মরদেহ৷ ইতিমধ্যে সেখানে পৌঁছে গিয়েছেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ, কার্যকরী সভাপতি জেপি নাড্ডা-সহ বিজেপি শীর্ষ নেতা-নেত্রীরা৷ তারপর সেখান থেকে জেটলির দেহ নিয়ে যাওয়া হবে নিগম বোধ ঘাটে। সেখানেই পূর্ণ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় শেষকৃত্য সম্পন্ন হবে প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর।

সকাল ১০টা: বাড়ি থেকে অরুণ জেটলির মরদেহ নিয়ে যাওয়া হল বিজেপির সদর দপ্তরের উদ্দেশে৷ সেখানে তাঁকে শেষ শ্রদ্ধা জানাবেন বিজেপির কর্মী-সমর্থক, রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব থেকে শুরু করে সাধারণ মানুষ। 

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং