Advertisement
Advertisement
ঝাড়খণ্ড

ভোট ব্যর্থতা ভুলে ঘুরে দাঁড়ানোর ইঙ্গিত! ঝাড়খণ্ডে বিজেপিতে মিশছে আস্ত একটা দল

শক্তি বাড়ছে বিজেপির, চাপে কংগ্রেস-জেএমএম জোট সরকার!

Babulal Marandi’s Jharkhand Vikas Morcha to merge with BJP
Published by: Subhajit Mandal
  • Posted:February 14, 2020 3:59 pm
  • Updated:February 14, 2020 3:59 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মাস কয়েক আগে ভোটে রীতিমতো বিপর্যয়ের মুখে পড়তে হয়েছে। কিন্তু, সেই ব্যর্থতা ভুলে ঝাড়খণ্ডে ঘুরে দাঁড়াচ্ছে বিজেপি। ভোটের বিপর্যয়ের ব্যথা ভুলিয়ে দিয়ে গেরুয়া শিবিরের সঙ্গে মিশে যাচ্ছে আস্ত একটা রাজনৈতিক দল। তাও আবার যে সে কোনও দল নয়, গেরুয়াতে মিশছে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বাবুলাল মারান্ডির (Babulal Marandi) ঝাড়খণ্ড বিকাশ মোর্চা প্রজাতান্ত্রিক। আগামী ১৭ ফেব্রুয়ারি এক বিশাল জনসভায় প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী সদলবলে শামিল হবেন বিজেপিতে। অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ (Amit Shah), প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী রঘুবর দাস, বিজেপি সভাপতি জেপি নাড্ডা-সহ একাধিক শীর্ষস্থানীয় বিজেপি নেতা।

Babulal-Marandi
বাবুলাল মারান্ডি এবং হেমন্ত সোরেন

বেশ কিছুদিন ধরেই বাবুলাল মারান্ডির বিজেপি যোগ নিয়ে জল্পনা চলছিল। এমনকী, প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে বিজেপির সঙ্গে যোগাযোগ রাখার অভিযোগ তুলে তাঁর দল ছেড়েছেন দুই বিধায়ক। তাঁরা দিল্লিতে গিয়ে সোনিয়া গান্ধীর সঙ্গে দেখা করে কংগ্রেসে যোগ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। এই দুই বিধায়কের অনুপস্থিতিতে আপাতত ঝাড়খণ্ডে কার্যত শক্তিহীন ঝাড়খণ্ড বিকাশ মোর্চা। দলের একমাত্র বিধায়ক মারান্ডি নিজেই। তবে, প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর নিজস্ব জনপ্রিয়তা আছে। সদ্যসমাপ্ত বিধানসভা নির্বাচনে প্রায় ৬ শতাংশ ভোটও পেয়েছিল বাবুলাল মারান্ডির জেভিএম। নির্বাচনের পরে কংগ্রেস-জেএমএম জোট সরকারকে নিঃস্বার্থ সমর্থনের কথাও ঘোষণা করেন মারান্ডি।

Advertisement

[আরও পড়ুন: নির্ভয়া মামলার শুনানি চলাকালীন এজলাসেই জ্ঞান হারালেন বিচারপতি, পিছোল রায়দান]

কিন্তু, কার্যক্ষেত্রে দেখা যায় তিনি জোট সরকারকে সমর্থন করার বদলে বিজেপির সঙ্গে গোপনে যোগাযোগ রেখে চলেছেন। এই অভিযোগে তাঁর দলের অন্য দুই বিধায়ক কংগ্রেসে যোগ দিতেই সরাসরি গেরুয়া শিবিরের দিকে ঝুঁকে গিয়েছেন বাবুলাল মারান্ডি। গত ১১ ফেব্রুয়ারি জেভিএমের সাধারণ সভায় বিজেপির সঙ্গে দলকে মিশিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন তিনি। ঠিক হয় আগামী ১৭ ফেব্রুয়ারি জেপি নাড্ডা এবং অমিত শাহর উপস্থিতিতে পুনরায় বিজেপিতে শামিল হবেন বাবুলাল। ওইদিনই ঝাড়খণ্ডে নিজেদের শক্তি প্রদর্শন করবে বিজেপি। গোটা রাজ্য থেকে কয়েক হাজার বিজেপি এবং কয়েক হাজার জেভিএম কর্মী ওই বৈঠকে যোগ দেবেন। উল্লেখ্য, একসময় বিজেপিরই অংশ ছিলেন বাবুলাল মারান্ডি। মুখ্যমন্ত্রীও হন বিজেপিতে থাকাকালীনই। ১৪ বছর আগে গেরুয়া শিবির ছেড়ে জেভিএম নামের দলটি তৈরি করেন তিনি। এবার নিজেদের অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখতে ফের নতুন দলকে পুরনোর সঙ্গে মিশিয়ে দিলেন বাবুলাল মারান্ডি।

Advertisement

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ