BREAKING NEWS

২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ২১ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

‘প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরের নির্দেশেই সংসদ চলছে’, রাজ্যসভায় অধীরের ঝাঁজালো আক্রমণ

Published by: Biswadip Dey |    Posted: September 21, 2020 9:19 pm|    Updated: September 21, 2020 9:44 pm

An Images

ফাইল চিত্র

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সোমবার সংসদে রাজ্যসভার (Rajya Sabha) ডেপুটি চেয়ারম্যান হরিবংশকে আক্রমণ করল কংগ্রেস। লোকসভার কংগ্রেস নেতা অধীররঞ্জন চৌধুরী (Adhir Ranjan Chowdhury) অভিযোগ করলেন, প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরের নির্দেশে বিরোধী দলগুলির কণ্ঠরোধের চেষ্টা করছেন ডেপুটি চেয়ারম্যান।

রবিবার ৮ বিরোধী সাংসদের বিরুদ্ধে উচ্চকক্ষে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির অভিযোগ উঠেছিল। আজ, সোমবার রাজ্যসভার চেয়ারম্যান এম ভেঙ্কাইয়া নাইডু তাঁদের সাসপেন্ড করেন। এরপরই এক সাংবাদিক সম্মেলনে নিজের ক্ষোভ উগরে দেন অধীর। তিনি অভিযোগ করেন, “এই পদক্ষেপ সংসদীয় পদ্ধতির নিয়মবিরুদ্ধ”। তাঁর আরও অভিযোগ, ডেপুটি চেয়ারম্যান হরিবংশ প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরের নির্দেশেই বিরোধী দলগুলির কণ্ঠরোধের চেষ্টা করেছেন। আর তার ফলেই রাজ্যসভায় বিশৃঙ্খলা শুরু হয়। তাঁর ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া, ‘‘প্রধানমন্ত্রীর দফতরের নির্দেশে কক্ষের কার্যাবলী চলছে।’’

[আরও পড়ুন : দাঙ্গা নিয়ে ফেসবুক ইন্ডিয়াকে ‘চূড়ান্ত’ সমন পাঠাল দিল্লি বিধানসভা]

তিনি বলেন, ‘‘কৃষকদের দুর্দশা থেকে নজর সরানোর জন্যই সরকার রাজ্যসভায় বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে থাকে। আমরা কি সংসদ চালাতে জানি না, নাকি সংসদীয় রীতির সঙ্গে পরিচিত নই?’’ তিনি জানান, বিরোধী সাংসদদের উপর থেকে নিষেধাজ্ঞা তুলে না নেওয়া পর্যন্ত কংগ্রেস তাদের প্রতিবাদ চালিয়ে যাবে। এদিকে রাজ্যসভায় চেয়ারম্যান তাঁদের সাসপেন্ড করলেও পালটা প্রতিবাদ অবস্থানে বসেছেন সাসপেন্ড হওয়া বিরোধী সাংসদরা। প্রসঙ্গত, রবিবার রাজ্যসভায় কেন্দ্রীয় সরকারের পেশ করা দু’টি কৃষি বিল নিয়ে প্রতিবাদ করার সময় ওয়েলে নেমে পড়েছিলেন বিরোধী সাংসদরা। ডেপুটি চেয়ারম্যানের সামনে পৌঁছে রুলবুক ছিঁড়ে প্রতিবাদ জানান তৃণমূল সাংসদ ডেরেক ও’ব্রায়েন।

[আরও পড়ুন : দেশে করোনা সংক্রমণ কি শিখরে পৌঁছেছে? জানুন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রীর জবাব]

সোমবার ডেরেক সহ আট সাংসদকে সাসপেন্ড করার সময় রাজ্যসভার চেয়ারম্যান এম বেঙ্কাইয়া নায়ডু বলেন, “গতকাল ওয়েলে নেমে ডেপুটি চেয়ারম্যানকে রীতিমতো হুমকি দেওয়া হয়েছে। তাঁকে নিজের কাজ করতে বাধা দেওয়া হয়েছে। এটা রাজ্যসভার জন্য খুবই খারাপ দিন। আমি সাংসদের বলছি, আপনারা আত্মসমীক্ষা করুন।” প্রসঙ্গত, রাজ্যসভায় বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির জন্য ডেরেক ছাড়াও সঞ্জয় সিং, রাজু সাতাব, কে কে রাগেশ, রিপুন বোরা, দোলা সেন, সৈয়দ নাজির হুসেন ও এলামারান করিমকে এক সপ্তাহের জন্য সাসপেন্ড করা হয়েছে।  

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement