২ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

করোনা আতঙ্কে খালি করা হল বেঙ্গালুরুর ইনফোসিস অফিস, বাড়ি বসেই কাজের নির্দেশ

Published by: Sucheta Chakrabarty |    Posted: March 14, 2020 3:48 pm|    Updated: March 14, 2020 3:48 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বেঙ্গালুরুতে বন্ধ করে দেওয়া হল তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থা ইনফোসিসের একটি অফিস। কারণ, নোভেল করোনা ভাইরাসের আতঙ্ক। ইনফোসিসের এই অফিসে কর্মরত এক ব্যক্তির শরীরে করোনার লক্ষ্মণ ধরা পড়ায় আতঙ্ক ছড়ায়। তার জেরেই বন্ধ করে দেওয়া হয় বেঙ্গালুরুর এই অফিস। শুরু করা হল, ‘ওয়ার্ক ফ্রম হোম’।

কর্মীদের করোনার হাত থেকে বাঁচাতে বেঙ্গালুরুতে বন্ধ করে দেওয়া হল ইনফোসিসের অফিস। সংস্থার তরফ থেকে বিবৃতিতে বলা হয়, “কর্মীদের নিরাপত্তা দিতেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ইনফোসিসের আইআইপিএম বিল্ডিংয়ে তথ্যপ্রযুক্তি এক কর্মীর শরীরে করোনার লক্ষ্মণ মেলায় এই বিল্ডিংয় খালি করে দেওয়া হয়। বেঙ্গালুরুর এই সংস্থায় কর্মরত সকল কর্মীদের বাড়ি থেকে কাজ করা নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।” বেঙ্গালুরুতে ইনফোসিসের ডেভেলপমেন্ট সেন্টারের প্রধান গুরুরাজ দেশপাণ্ডে বলেন, “নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখে বিল্ডিংটিকে জীবাণুমুক্ত করা হবে। তবে সমস্ত কর্মীদের কাছে অনুরোধ, সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়া কোনও রকম গুজবে কান দেবেন না এবং কোনও রকম গুজব ছড়াবেন না। অত্যন্ত দায়িত্বশীলতার সঙ্গে গোটা পরিস্থিতি সামাল দিতে হবে। এ ব্যাপারে আপনাদের সকলের সহযোগিতা কাম্য।”

আপাতত ওই বিল্ডিংয়ের সমস্ত কর্মীদের বাড়ি থেকে কাজ করার নির্দেশ দেয় ইনফোসিস কর্তৃপক্ষ। জরুরি পরিস্থিতিতে সংস্থার গ্লোবাল ডেস্কের সঙ্গে যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে। প্রায় সাড়ে তিন মাস আগে চিনেই প্রথম নোভেল করোনা ভাইরাস থাবা বসায়। সেই থেকে বিশ্বের প্রায় সর্বত্রই এই ভাইরাস ছড়িয়ে গিয়েছে। ভারতও এই প্রাণঘাতী ভাইরাসের কবলে পড়েছে।

[আরও পড়ুন: মেলেনি অ্যাম্বুল্যান্স, বেলেঘাটা আইডিতে রেফারের পরও বনগাঁ হাসপাতালে বাইরে পড়ে বৃদ্ধ]

এপর্যন্ত ভারতে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৮৫। করোনায় আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারান ২ জন। কর্নাটকে এখনও পর্যন্ত ৬ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। পরিস্থিতি বিবেচনা করে রাজ্যের সমস্ত তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থাগুলির জন্য বিশেষ নির্দেশিকা জারি করেছে রাজ্য সরকার। তাতে বলা হয়েছে, যত দিন পর্যন্ত পরিস্থিতি না নিয়ন্ত্রণে আসে, তত দিন পর্যন্ত সমস্ত কর্মীদের বাড়ি থেকে কাজ করতে হবে।

[আরও পড়ুন: করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু, টানা ৩৬ ঘণ্টা দিদির দেহ আগলে বসে রইলেন ভাই]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement