BREAKING NEWS

১০ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  শুক্রবার ২৭ নভেম্বর ২০২০ 

Advertisement

এবার NRC বিরোধী প্রস্তাব পাশ বিজেপি শাসিত বিহারে! অস্বস্তিতে গেরুয়া শিবির

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: February 25, 2020 9:02 pm|    Updated: February 25, 2020 9:02 pm

An Images

ফাইল ফটো

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিধানসভা নির্বাচনের আগে বিহারে নিজের ‘খেলা’ শুরু করলেন নীতীশ কুমার (Nitish Kumar)। বিজেপিকে তোয়াক্কা না করেই, বিহার বিধানসভায় এনআরসি বিরোধী প্রস্তাব পাশ করালেন সেরাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী। মজার কথা হল, বিহারের বিজেপি বিধায়করাও এই প্রস্তাবের বিরোধিতা করেননি। ফলে, এনআরসি (NRC) বিরোধী প্রস্তাবটি বিহার বিধানসভায় বিনা বাধায় পাশ হয়ে যায়। এর পাশাপাশি এনপিআর নিয়েও একটি প্রস্তাব পাশ করা হয়েছে। যাতে বলা হয়েছে, বিহারে এনপিআর করতে হলেও, তা করা হবে দশ বছর আগে ইউপিএ সরকারের আনা ফরম্যাটে। মোদি সরকারের আনা নতুন ফরম্যাটে নয়।

Tejashwi Yadav

এই এনআরসি ইস্যুতেই প্রশান্ত কিশোরের সঙ্গে বিবাদে জড়ান নীতীশ কুমার। সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (CAA) এবং এনআরসির বিরোধিতা করার জন্য প্রশান্ত কিশোরকে দল থেকে বহিষ্কৃতও করা হয়। আবার তিনিই নিজের রাজ্যে এনআরসি বিরোধী প্রস্তাব পাশ করালেন। মঙ্গলবার বিহার বিধানসভায় ওই প্রস্তাব পেশ করেন স্পিকার বিজয় কুমার চৌধুরি। যাতে বলা হয়, বিহারে এনআরসি করার কোনও যুক্তি নেই। এই প্রস্তাবে শাসক-বিরোধী দুই শিবিরই একমত হয়। এবং তা সহজেই পাশ হয়ে যায়। এনপিআর বিরোধী প্রস্তাবটিতে বলা হয়েছে, বিহারে এনপিআর হলেও তা হবে ২০১০ সালে পাশ হওয়া ফরম্যাটে।

[আরও পড়ুন: ‘আশা করছি ভারত ঠিক সিদ্ধান্তই নেবে’, CAA নিয়ে তাৎপর্যপূর্ণ মন্তব্য ট্রাম্পের]

কিন্তু, নীতীশ কেন হঠাৎ এনআরসি বিরোধী প্রস্তাব পাশ করালেন? সূত্রের খবর, দিল্লি নির্বাচনের ফলাফল দেখে বেশ উদ্বিগ্ন নীতীশ কুমার। সংখ্যালঘু ভোট যাতে পুরোপুরি আরজেডি-কংগ্রেস জোটের দিকে না চলে যায়, তা নিশ্চিত করতে চাইছেন তিনি। অন্যদিকে, বিহারের বিজেপি নেতারাও স্থানীয় রাজনীতির কথা মাথায় রেখে এই প্রস্তাবের বিরোধিতা করতে পারলেন না। এনআরসি নিয়ে নীতীশের এই অবস্থান রীতিমতো অস্বস্তিতে ফেলছে বিজেপিকে। এর ফলে জাতীয় স্তরে ভুল বার্তা যাবে বলে মনে করছে গেরুয়া শিবির। তাছাড়া, পশ্চিমবঙ্গ, কেরালা, পাঞ্জাব, তেলেঙ্গানার মতো ৬টি রাজ্য এবং কংগ্রেসের দখলে থাকা কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল পুদুচেরি ইতিমধ্যেই এই ধরনের প্রস্তাব পাশ করিয়েছে। ফলে, এনআরসি ইস্যুতে চাপও বাড়ছে কেন্দ্রের উপর।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement