BREAKING NEWS

১০ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২৬ নভেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘১০ নভেম্বর তেজস্বী যাদবের সামনে মাথা নোয়াবেন নীতীশ কুমার’, দাবি চিরাগ পাসওয়ানের

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: November 5, 2020 3:18 pm|    Updated: November 5, 2020 6:06 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিহারের নির্বাচনে তাঁর দল তৃতীয় পক্ষ। এনডিএ বা মহাজোট, কোনও শিবিরেরই অংশ নয় এলজেপি। তবে, নিজেকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির (Narendra Modi) সৈনিক বলে দাবি করেন চিরাগ পাসওয়ান। আবার নীতীশ কুমারকে নিয়ে তাঁর বহু সমস্যা। উঠতে বসতে বিহারের মুখ্যমন্ত্রীকে কোনও কোনও ইস্যু নিয়ে কটাক্ষ করে চলেছেন। কিন্তু বৃহস্পতিবার সকালে চিরাগ পাসওয়ান যে দাবি করলেন, তা সত্যিই চাঞ্চল্যকর। এলজেপি (LJP) সুপ্রিমোর দাবি, ভোটের ফলপ্রকাশের পর নীতীশ কুমার (Nitish Kumar) নাকি ফের তেজস্বী যাদবের (Tejashwi Yadav) কাছে গিয়ে মাথা নোয়াবেন। জোড় হাত করবেন। কারণ, এনডিএতে থাকলে তিনি মুখ্যমন্ত্রী হতে পারবেন না। আর মুখ্যমন্ত্রী না হতে পারলে দুর্নীতির দায়ে তাঁকে জেলে যেতে হবে।

বৃহস্পতিবার এক সাংবাদিক বৈঠকে চিরাগ পাসওয়ান (Chirag Paswan) বলেন,”না আপনি কেন্দ্রের সঙ্গে তাল মিলিয়ে আজ করতে পারেন। না আমাদের সমস্যার সমাধান করতে পারেন। ১৫ বছর ধরে মুখ্যমন্ত্রী হয়ে বসে আছেন। কাজের কাজ কিছুই করেন না। বিহারের সবচেয়ে দুর্বল এবং দুর্নীতিগ্রস্ত মুখ্যমন্ত্রী আপনি। এখনও প্রাণপন নিজের গদি বাঁচানোর চেষ্টা করে যাচ্ছেন। একসময় যে নরেন্দ্র মোদির তীব্র সমালোচনা করতেন, এখন তাঁরই সামনে হাতজোড় করে মাথা নোয়াচ্ছেন। আপনার লোভ এত বেড়ে গেছে যে, ১০ তারিখের পর আপনি তেজস্বী যাদবের সামনে, লালুপ্রসাদ যাদবের সামনে এভাবেই হাতজোড় করবেন। মাথা নত করবেন। কারণ, আপনি জানেন মুখ্যমন্ত্রী না হতে পারলে আপনাকেও রাঁচি যেতে হবে।”

[আরও পড়ুন: ‘এভাবে কেউ কথা বলে?’, CAA ইস্যুতে যোগীকেই তোপ নীতীশের! অস্বস্তিতে NDA]

প্রশ্ন হচ্ছে, এই মন্তব্য করে কীসের ইঙ্গিত দিতে চাইছেন চিরাগ পাসওয়ান? তাহলে কি ভোটের পর নীতীশ কুমারকে সরিয়ে রেখে বিজেপি-এলজেপি জোট সরকার গঠনের পরিকল্পনা ফেঁদে ফেলেছে গেরুয়া শিবির? নীতীশকে সরানোর ইঙ্গিত পেয়েই তোপ দাগছেন রামবিলাসপুত্র? নাকি তিনি ধরেই নিচ্ছেন নির্বাচনে পরাস্ত হতে চলেছে এনডিএ জোট, পরবর্তী মুখ্যমন্ত্রী তেজস্বী যাদব হতে চলেছেন, এবং নীতীশ কুমার বিজেপির সঙ্গ ছেড়ে তাঁকেই সমর্থন করবে? আপাতত এসব প্রশ্নেরই উত্তর খুঁজছে বিহার।

এসবের মধ্যেই আবার নীতীশ কুমার ঘোষণা করে দিয়েছেন, তিনি রাজনীতি থেকে সন্যাস নিচ্ছেন। বৃহস্পতিবার এক জনসভায় বিহারের মুখ্যমন্ত্রী বলেন,”এবারের নির্বাচনই আমার শেষ নির্বাচন। এরপর আমি আর কোনও নির্বাচনে লড়ব না।” যা তাঁর রাজনৈতিক ভবিষ্যৎ নিয়ে জল্পনায় ঘৃতাহুতি দিয়েছে। 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement