BREAKING NEWS

৩ মাঘ  ১৪২৮  সোমবার ১৭ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

৭১ জন শহিদের নাম শরীরে ট্যাটু করলেন রাজস্থানের যুবক

Published by: Bishakha Pal |    Posted: February 20, 2019 9:05 pm|    Updated: February 20, 2019 9:05 pm

Bikaner Youth Tattoos The Names Of 71 Martrys

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কাশ্মীরর পুলওয়ামায় সেনা কনভয়ে হামলার পর গোটা দেশ এসে দাঁড়িয়েছে শহিদদের পরিবারের পাশে। যে যেভাবে পারছে, সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিচ্ছে। বলিউড অভিনেতা অক্ষয় কুমার ৫ কোটি টাকা দিয়েছেন শহিদদের পরিবারকে। আর যার সাধ্য কম, সে নিজের সঞ্চয় ভেঙে অর্থসাহায্য করছে, এমন নজিরও মিলেছে। কিন্তু এবার এমন একটি খবর উঠে এসেছে যা দেশপ্রেমের এক অন্য নিদর্শন দেখিয়েছে।

বিকানেরের এক যুবক, নাম গোপাল সাহরান সম্প্রতি একটি নজির সৃষ্টি করেছেন। তিনি বিকানেরের ভগৎ সিং ইয়ুথ ব্রিগেডের সদস্য। নিজের দেহে ট্যাটু করেন অনেকেই। পছন্দের ডিজাইন বা নামের অদ্যক্ষর অনেকের দেহেই শোভা পায়। কিন্তু ইনি পিঠে ট্যাটু করিয়েছেন শহিদদের নাম। ৭১ জন শহিদের নাম নিজের পিঠে উলকি করিয়েছেন তিনি। তার পাশে রয়েছে একটি রাইফেলের উপর জওয়ানদের হেলমেটের ট্যাটু। ঠিক যেমন শহিদ বেদিতে দেখা যায়। সাহরান জানিয়েছেন, শহিদদের নামের ট্যাটু করানোর পিছনে কারণ রয়েছে। এর ফলে শহিদদের নাম ভুলে যাবে না কেউ। সবাই মনে না রাখলেও তিনি ও তাঁর পারিপার্শ্বিক লোকজন নাম ভুলবে না।

পুলওয়ামার বদলা! জয়পুরের জেলে পিটিয়ে মারা হল পাকিস্তানি বন্দিকে ]

১৪ ফেব্রুয়ারি পুলওয়ামায় ভারতীয় সেনার কনভয়ে হামলা চালায় জইশ জঙ্গিরা। জম্মু-শ্রীনগর হাইওয়ের উপর সিআরপিএফের ৭৪টি গাড়ির কনভয়কে টার্গেট করে জইশ জঙ্গিরা। কনভয়ে ছিলেন কমপক্ষ ২৫০০ জন জওয়ান৷ আচমকাই ২০০ কেজি বিস্ফোরক বোঝাই একটি গাড়ি ওই কনভয়ে ঢুকে পড়ে৷ ধাক্কা মারে জওয়ানদের বাসে৷ সঙ্গে সঙ্গে তীব্র বিস্ফোরণ ঘটে। বিস্ফোরণের পর নিরাপত্তা বাহিনীকে লক্ষ্য করে জঙ্গিরা গুলি চালায় বলে দাবি জম্মু-কাশ্মীর পুলিশের। আত্মঘাতী জঙ্গি আদিল আহমেদের ভিডিও প্রকাশ করে ঘটনার দায় স্বীকার করে জইশ-ই-মহম্মদ৷ এখনও পর্যন্ত ঘটনায় ৪৯ জন শহিদ হয়েছেন। এঁদের নামও রয়েছে ওই ট্যাটুর তালিকায়।

‘যুদ্ধ শুরু করেছে পাকিস্তান, শেষ করব আমরা’, মন্তব্য প্রাক্তন সেনাকর্তার ]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে