BREAKING NEWS

১৩  আষাঢ়  ১৪২৯  মঙ্গলবার ২৮ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

‘রাজনীতি ছেড়ে বাড়িতে বসে রান্না করুন’, NCP নেত্রীকে নারীবিদ্বেষী মন্তব্য বিজেপি নেতার

Published by: Suparna Majumder |    Posted: May 26, 2022 4:15 pm|    Updated: May 26, 2022 4:15 pm

BJP Leader made misogynists remark about NCP MP Supriya Sule | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ‘রাজনীতি ছেড়ে বাড়িতে বসে রান্না করুন’, বিতর্কিত মন্তব্য করলেন মহারাষ্ট্রের বিজেপি নেতা চন্দ্রকান্ত পাটিল। এনসিপি নেত্রী সুপ্রিয়া সুলের (Supriya Sule) উদ্দেশে এই কথা বলেছেন মহারাষ্ট্র বিজেপির প্রধান (BJP Leader)। স্থানীয় নির্বাচনে ওবিসি কোটা সংরক্ষণ প্রসঙ্গে বিজেপিকে বিঁধে মন্তব্য করেছিলেন সুপ্রিয়া। সেই কথার উত্তর দিতে গিয়েই নারীবিদ্বেষী মন্তব্য করেন চন্দ্রকান্ত।

সম্প্রতি মধ্যপ্রদেশের (Madhya Pradesh) স্থানীয় নির্বাচনে অন্যান্য অনগ্রসর জাতির জন্য আসন সংরক্ষণের অনুমতি দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। সেই প্রসঙ্গে সুপ্রিয়া বলেন, “মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান দিল্লিতে এসে বিশেষ কারওর সঙ্গে দেখা করেছিলেন। তার দু’দিনের মধ্যেই মধ্যপ্রদেশে ওবিসি সংরক্ষণের অনুমতি দিয়ে দেওয়া হয়। আমি জানি না কী করে এত তাড়াতাড়ি অনুমতি পাওয়া গেল।” প্রসঙ্গত, কংগ্রেস ও শিবসেনা শাসিত মহারাষ্ট্রেও (Maharashtra) ওবিসি সংরক্ষণের দাবি জানিয়েছে বিজেপি

[আরও পড়ুন: জঙ্গিনেতা ইয়াসিন মালিকের যাবজ্জীবনে ক্ষুব্ধ পাকিস্তান, নিন্দায় মুখর শাহবাজ শরিফ]

সুপ্রিয়ার এই কথার পরেই পাটিল বলেন, “আপনি রাজনীতির ময়দানে আছেন কেন? বাড়িতে গিয়ে রান্না করুন।” আরও যোগ করেন, “দিল্লি গিয়ে হোক বা কবরস্থানে গিয়ে হোক, আমাদের ওবিসি সংরক্ষণ করে দিন।” এই মন্তব্যের তীব্র নিন্দা করেছে এনসিপি শিবির। আক্রমণের মুখে পড়ে সাফাই দিয়েছেন চন্দ্রকান্ত। তিনি বলেছেন, “আমি মহিলাদের সম্মান করি। সুপ্রিয়া দিদির সঙ্গে আমার অনেক কথা হয়। আমি আসলে বলতে চেয়েছিলাম গ্রামে গিয়ে তিনি যেন মানুষের পাশে দাঁড়ান।”

এনসিপি (NCP) শিবির থেকে বিদ্যা চৌহান পালটা দিয়ে বলেছেন, “চন্দ্রকান্তের উচিত রুটি বানানো শেখা যেন বাড়িতে স্ত্রীকে সাহায্য করতে পারেন। আমরা জানি বিজেপি মনুসংহিতা মেনে চলে। কিন্তু আমরা আর চুপ করে থাকব না।” মহারাষ্ট্রের উপ মুখ্যমন্ত্রী, সুপ্রিয়ার ভাই অজিত পাওয়ার বলেছেন, “এইভাবে কথা বলার অধিকার নেই ওঁর।” সুপ্রিয়ার স্বামী সদানন্দ সুলে বলেছেন, “আমার স্ত্রী একজন মা, গৃহবধূ এবং সফল রাজনীতিবিদ। আমি ওঁকে নিয়ে গর্বিত। বিজেপি সবসময় নারীবিদ্বেষী আচরণ করে এবং মহিলাদের হেনস্থা করে।”

[আরও পড়ুন: দক্ষিণ ভারতে বাড়ছে ‘অনার কিলিং’, এবার কর্ণাটকে খুন হিন্দু যুবক]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে