৩১ ভাদ্র  ১৪২৬  বুধবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: জোরে কথা বলা নিয়ে অনেকদিন ধরেই দুই প্রতিবেশীর মধ্যে ঝামেলা চলছিল। এর জেরে শেষপর্যন্ত প্রাণ হারাতে হল দিল্লির এক যুবককে। মৃত যুবকের নাম মোহিত কুমার (৩১)। তিনি একজন ব্যবসায়ী বলে জানা গিয়েছে। শনিবার ঘটনাটি ঘটেছে দিল্লির করোল বাগের কাছে অবস্থিত বাপানগর এলাকায়। এই ঘটনায় মৃতের প্রতিবেশী কমল চৌহান (৩২)-কে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

[আরও পড়ুন- বিবাহিত মহিলাদের ধর্ষণ ধর্ষণই নয়! আজব যুক্তি যোগীর মন্ত্রীর]

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, প্রতিবেশী হওয়ার পাশাপাশি মোহিত এবং কমলের মধ্যে বন্ধুত্বের সম্পর্কও ছিল। তবে বেশ কিছুদিন ধরে একে অপরের পরিবারের বিরুদ্ধে বাড়িতে জোরে কথা বলার অভিযোগ করছিলেন তাঁরা। এই নিয়ে বেশ কয়েকবার দুই পরিবারের সদস্যদের মধ্যে ঝগড়াও হয়। অভিযোগ, শনিবার মদ্যপ অবস্থায় বাড়ি ফিরে মোহিতের সঙ্গে ফের এই বিষয় নিয়ে অশান্তি শুরু করে কমল। আর কথা কাটাকাটির মাঝে আচমকা
মোহিতকে লক্ষ্য করে গুলি চালিয়ে দেয়। সঙ্গে সঙ্গে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিসকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

এপ্রসঙ্গে দিল্লি (সেন্ট্রাল)-র অ্যাডিশনাল ডিএসপি অমিত শর্মা বলেন, “মোহিত ও কমলের বাড়ি একদম পাশাপাশি জায়গায়। কিছুদিন ধরে জোরে কথা বলা নিয়ে তাঁদের মধ্যে গন্ডগোল চলছিল। শনিবার তা চরম আকার ধারণ করে। মদ্যপ অবস্থায় থাকা কমলের গুলিতে মৃত্যু হয় মোহিতের। এরপর রবিবার নিজের গাড়িতে করে ঝাড়খণ্ড পালিয়ে যাচ্ছিল কমল। কিন্তু, দিল্লির নারেলা এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।”

[আরও পড়ুন- পোশাক খুলে নাচার দাবি-মহিলাদের মারধর, অসমে ইদের অনুষ্ঠান ঘিরে তুলকালাম]

পুলিশের জেরায় কমল জানিয়েছে, ঘটনার সময় সে মদ্যপ অবস্থায় ছিল। তাই মোহিতের সঙ্গে গন্ডগোল শুরু হওয়ার পর কী হয়েছে তার মনে নেই।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং