BREAKING NEWS

১৫ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  বুধবার ২ ডিসেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায় কোনও হেরফের বরদাস্ত নয়’, চিনকে হুঁশিয়ারি রাওয়াতের

Published by: Paramita Paul |    Posted: November 6, 2020 2:07 pm|    Updated: November 6, 2020 3:23 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পূর্ব লাদাখ সীমান্তে উত্তেজনা কমার কোনও ইঙ্গিত নেই। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ফের বৈঠকে বসছে ভারত-চিন। তবে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায় (LAC) কোনও রকম পরিবর্তন বরদাস্ত করা হবে না বলে জানিয়ে দিলেন ভারতের চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ (CDS) বিপিন রাওয়াত।

শুক্রবার লাদাখের চুসুলে ভারত ও চিনের মধ্যে অষ্টম দফার কর্পস কমান্ডার স্তরের বৈঠক হওয়ার কথা। তার আগেই ভারত-চিন সম্পর্ক নিয়ে মুখ খুললেন ভারতের চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ। ডিফেন্স ন্যাশনাল কলেজের হীরক জয়ন্তীর অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে রাওয়াত (Bipin Rawat) বলেন, “প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা নিয়ে ভারতীয় সেনাবাহিনী দ্ব্যর্থহীন মনোভাব পোষণ করে। তাঁরা প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায় স্থিতাবস্থা ফেরাতে চান।” রাওয়াতের হুঁশিয়ারি, LAC-তে কোনও হেরফের বরদাস্ত করবে না ভারতীয় সেনা (Indian Army)।

[আরও পড়ুন : কাশ্মীরে ফের সেনা-জঙ্গি গুলির লড়াই, পুলওয়ামায় খতম জেহাদি-সহ ২]

লাদাখ সেক্টরে এখনও যথেষ্ট উত্তেজনা রয়েছে বলে জানিয়েছেন চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ বিপিন রাওয়াত। চিনের (China) ক্রমাগত বিতর্কিত পদক্ষেপের জেরে এই উত্তেজনা তৈরি হচ্ছে বলে মত তাঁর। রাওয়াতের কথায়, “চিনের সঙ্গে বড়সড় সংঘর্ষ হওয়ার সম্ভাবনা ক্ষীণ। তবে সীমান্ত নিয়ে ক্রমাগত দ্বন্দ্ব ও উসকানিমূলক সামরিক পদক্ষেপ সেই সংঘর্ষে আবহ তৈরি করছে।” তিনি আরও বলেন, “চিনা বাহিনী লাদাখে নিজেদের কৃতকর্মের ফল ভুগেছে। ভারতের বাহিনীর কড়া জবাব অপ্রত্যাশিত ছিল ওদের কাছে।” 

[আরও পড়ুন : করোনা মোকাবিলায় ব্যর্থ ট্রাম্প! ‘বন্ধু’র পরাজয়ের ইঙ্গিত মিলতেই সুরবদল নাড্ডার]

একইসঙ্গে পাকিস্তানকেও সতর্ক করেছেন তিনি। ভারতের চিফ অব ডিফেন্স স্টাফের মতে, “জম্মু-কাশ্মীরে পাকিস্তানের ক্রমাগত ছায়াযুদ্ধ দু’দেশের সম্পর্কের আরও অবনতি ঘটাচ্ছে। বালাকোট এয়ার স্ট্রাইক বা সার্জিকাল স্ট্রাইক ইসলামাবাদকে বুঝিয়ে দিয়েছে জঙ্গি অনুপ্রবেশকে মেনে নেবে না ভারত। কড়া জবাব দেওয়া হবে।” একইসঙ্গে পাকিস্তানকে সন্ত্রাসের আতুঁরঘর বলেও কটাক্ষ করেন রাওয়াত। তাঁর কথায়, “পাকিস্তান এখনও ইসলাম কট্টরপন্থা ও সন্ত্রাসবাদের ভরকেন্দ্র। গত তিন দশক ধরে ভারত বিরোধী কার্যকলাপে মদত দিয়ে চলেছে তারা।”

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement