Advertisement
Advertisement
MSP

ভোটে ধাক্কার পরেই ‘অন্নদাতা’দের কল্যাণ মোদির! ১৪ শস্যের MSP বাড়াল কেন্দ্র

তিন রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনের কথা ভেবেই কি সিদ্ধান্ত?

Central Government approved MSP for 14 crops

প্রতীকী ছবি।

Published by: Anwesha Adhikary
  • Posted:June 19, 2024 9:47 pm
  • Updated:June 19, 2024 9:47 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভোটের পর কৃষকদের জন্য বড়সড় ঘোষণা করল কেন্দ্র। বুধবার ক্যাবিনেট বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়, ১৪টি শস্যের ন্যূনতম সহায়ক মূল্য বাড়িয়ে দেওয়া হবে। উল্লেখ্য, দীর্ঘদিন ধরেই এই সহায়ক মূল্য বাড়ানোর দাবিতে বিরাট আন্দোলন করছেন উত্তর ভারতের কৃষকরা। তার জেরে ওই রাজ্যগুলোতে বিজেপির ফলাফল খারাপ হয়েছে বলে মত ওয়াকিবহাল মহলের।

এদিন বিশেষ বৈঠকে বসেছিলেন মন্ত্রিসভার সদস্যরা। তার পরেই সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব জানান, “প্রধানমন্ত্রী বারবার কৃষকদের প্রাধান্য দিয়েছেন। তৃতীয়বার সরকার গঠনের পরে প্রথম সিদ্ধান্তও নেওয়া হয়েছে কৃষকদের জন্যই। এদিন ক্যাবিনেট বৈঠকেও কৃষকদের উন্নতির জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। খারিফ শস্যের মরশুম শুরু হয়েছে। তার জন্য ক্যাবিনেট সিদ্ধান্ত নিয়েছে যে ১৪টি শস্যের ন্যূনতম সহায়ক মূল্য বাড়ানো হবে।”

Advertisement

[আরও পড়ুন: মুখ্যমন্ত্রী থেকে বিরোধী দলনেতা, আড়াই দশক পর ওড়িশায় ‘কুরসি বদল’ নবীন পট্টনায়েকের

জানা গিয়েছে, ধানের সহায়ক মূল্য কুইন্টাল প্রতি ১১৭ টাকা বাড়ানো হয়েছে। এছাড়াও তুলো, মিলেট, জোয়ার, বাজরা, রাগি, মুগডাল, তুর ডাল, উরাদ ডালের সহায়ক মূল্যও বাড়বে। ওয়াকিবহাল মহলের মতে, এই পদক্ষেপের ফলে কৃষকদের ৩৫ হাজার কোটি টাকা লাভ হবে।

Advertisement

উল্লেখ্য, তৃতীয়বার প্রধানমন্ত্রী হয়েই ‘অন্নদাতা’দের কথা ভাবছেন নরেন্দ্র মোদি (Narendra Modi)। শপথ নেওয়ার পরে প্রথম দিনই সাউথ ব্লকে নিজের দপ্তরে গিয়ে ফাইল কিষাণ নিধির ফাইলে সই করেন তিনি। এই প্রকল্পের মাধ্যমে বরাদ্দ করা ২০ হাজার কোটি টাকা বণ্টন করা হবে ৯.৩ কোটি কৃষকের মধ্যে। প্রসঙ্গত, চলতি বছরের শুরু থেকে আবারও কৃষক বিদ্রোহে উত্তাল হয়েছিল জাতীয় রাজনীতি। দিল্লির একাধিক সীমানায় বসে লাগাতার বিক্ষোভ চালিয়ে যান কৃষকরা।

সেই আন্দোলনের বড়সড় ছাপ পড়েছে লোকসভা নির্বাচনে। কৃষক বিদ্রোহের অন্যতম প্রাণকেন্দ্র হরিয়ানায় পাঁচটি আসন বিজেপির হাতছাড়া হয়েছে। তার পরেই ফের কৃষক কল্যাণের বার্তা দিল সরকার। চলতি বছরেই ঝাড়খণ্ড, মহারাষ্ট্র, হরিয়ানার মতো রাজ্যগুলোতে বিধানসভা নির্বাচন রয়েছে। সেই কথা মাথায় রেখেও সরকার (Central Government) সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে মত বিশেষজ্ঞদের।

[আরও পড়ুন: অস্ট্রেলিয়ার ডেপুটি হাই কমিশনার ও রাজ্যের ৩ মন্ত্রীর বৈঠকে ‘বাধা’, কেন্দ্রের বিরুদ্ধে সরব তৃণমূল

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ