Advertisement
Advertisement
Nyaya Sanhita Central Government

দণ্ড সংহিতা প্রত্যাহার কেন্দ্রের, তালিকায় আরও দুই বিল

প্রথম থেকেই এই বিলের সমালোচনা করেছে বিরোধী দলগুলো।

Central Government withdraws Nyaya Sanhita along with two other bills | Sangbad Pratidin
Published by: Anwesha Adhikary
  • Posted:December 12, 2023 11:05 am
  • Updated:December 12, 2023 11:05 am

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সংসদে পেশ হওয়ার পরেও প্রত্যাহার করা হল ভারতীয় ন্যায় সংহিতা (Nyaya Sanhita)। এছাড়াও তুলে নেওয়া হয়েছে ভারতীয় সাক্ষ্য বিল ও ভারতীয় নাগরিক সুরক্ষা সংহিতা। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ (Amit Shah) জানান, বেশ কয়েকটি রদবদল করার পরে ফের এই তিনটি বিল পেশ করা হবে সংসদে। উল্লেখ্য, প্রথম থেকেই এই তিনটি বিল নিয়ে প্রতিবাদ করেছে তৃণমূল কংগ্রেস-সহ একাধিক বিরোধী দল। বিল পাশ করাতে এত তাড়াহুড়ো কেন, সেই প্রশ্ন ধেয়ে এসেছে কেন্দ্রের দিকে।

ইন্ডিয়ান পেনাল কোড বা ভারতীয় দণ্ডবিধির ১২৪(ক) ধারা বদলে ফেলার উদ্যোগ নিয়েছে কেন্দ্র। ইন্ডিয়ান পেনাল কোড, কোড অফ ক্রিমিন্যাল প্রসিডিউর বা সিআরপিসি, এবং ভারতীয় সাক্ষ্য আইন বা ইন্ডিয়ান এভিডেন্স অ্যাক্ট এই তিন আইনের বদলের জন্য বিল পেশ হয়েছে সংসদে। ১৮৬০ সালের ইন্ডিয়ান পেনাল কোড বা ভারতীয় দণ্ডবিধি এবার হতে চলেছে ভারতীয় ন্যায় সংহিতা। সিআরপিসি (CrPC) বদলে গিয়ে হবে ভারতীয় নাগরিক সুরক্ষা সংহিতা। এবং এভিডেন্স অ্যাক্ট বদলে হবে ভারতীয় সাক্ষ্য আইন।

Advertisement

[আরও পড়ুন: ‘মুখ্যমন্ত্রীর গুণ্ডারা শারীরিক নিগ্রহ করতে চেয়েছে’, বিস্ফোরক কেরলের রাজ্যপাল]

বাদল অধিবেশনে পেশ হয়েছিল এই তিনটি বিল। তবে প্রথম থেকেই তিনটি বিলের বিরোধিতা করে এসেছে একাধিক দল। অমিত শাহকে চিঠি লিখে এই বিল নিয়ে প্রতিবাদ জানিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর মতে, এই তিনটি বিল নিয়ে সকল পক্ষের আলোচনা হওয়া দরকার। আমজনতার মতও নেওয়ার পক্ষে সওয়াল করেন তিনি। বিলটি পেশ হওয়ার পর নানা মহলে সমালোচনার ঝড় উঠতেই সংসদের স্ট্যান্ডিং কমিটিতে পাঠানো হয়।

Advertisement

সেই কমিটির সুপারিশ মেনেই সোমবার বিল প্রত্যাহারের কথা ঘোষণা করে কেন্দ্র। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, সংসদীয় কমিটি বেশ কয়েকটি সুপারিশ করেছে তিন বিল নিয়ে। সেগুলো যুক্ত করে আবার নতুন রূপে বিলটি পেশ করা হবে লোকসভায়। সূত্রের খবর, লিঙ্গ নির্বিশেষে পরকীয়াকে দণ্ডযোগ্য অপরাধ বলে গণ্য করার সুপারিশ করেছে কমিটি। ডিজিটাল প্রমাণগুলোকেও গুরুত্ব দেওয়ার সুপারিশ রয়েছে।

[আরও পড়ুন: মুখ্যমন্ত্রী কে? রাজমাতা বেঁকে বসায় রাজস্থানে ফাঁপরে বিজেপি

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ