BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

ভারতীয় সেনার পরিকাঠামো উন্নয়নে ৭২ কোটি টাকা বরাদ্দ কেন্দ্রের

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: August 2, 2018 10:49 am|    Updated: August 2, 2018 11:31 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির স্বপ্নের ‘মেক ইন ইন্ডিয়া’ প্রকল্পকে উৎসাহিত করে ভারতীয় সেনার পরিকাঠামোর উন্নয়নে গুরুত্ব বাড়াল কেন্দ্র৷ বিগত বছরগুলির তুলনায় আগামী অর্থবর্ষে সব থেকে বেশি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে বলে কেন্দ্রের তরফে জানানো হয়েছে৷

[বাড়ির পিছনের গর্তে উদ্ধার একই পরিবারের ৪ জনের দেহ, কালাজাদুর আশঙ্কা পুলিশের]

সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী, আগামী আর্থিক বর্ষে ৭২.২ কোটি টাকা খরচের লক্ষ্যমাত্রা দিয়েছে কেন্দ্র৷ গতবছর ভারতীয় সেনার পরিকাঠামো উন্নয়নে খবর করা হয়েছিল ৬৯.২ কোটি টাকা৷ চলতি বছর ৬৯.৪ কোটি টাকা খরচ করার লক্ষ্য নিয়েছে কেন্দ্র৷ মূলত, মোদির মেক ইন ইন্ডিয়া প্রকল্পের মাধ্যমে সেনার পরিকাঠামো উন্নয়ন ও সেনার সম্পত্তির মূল্য নির্ধারণ করে সম্পদের সঠিক ব্যবহারের উপর গুরুত্ব বাড়ানো হবে বলে জানা গিয়েছে৷ গত চারবছরেও একাধিক ক্ষেত্রে অন্তত দু‌’লক্ষ ৬৬ হাজার ৭০০ কোটি টাকা খবর করে ফেলেছে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক৷ জানা গিয়েছে, চলতি অর্থবর্ষে সেনার পরিকাঠামো উন্নয়নে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে ১২৮টি বড় প্রকল্পের কাজ চলছে৷ প্রায় এক লক্ষ ১৯ হাজার টাকা ব্যয় করা হচ্ছে বলে সংসদে জানিয়েছেন প্রতিমন্ত্রী সুভাস বর্মা৷ তবে, কোটি কোটি টাকা খরচ করা হচ্ছে বলেও কেন্দ্রীয় মন্ত্রী দাবি করলেও এখনও পরিকাঠামো-সহ একাধিক সমস্যায় ভুগছেন ভারতীয় জওয়নরা৷ খাবার-জল থেকে শুরু করে বারাক নিয়ে রয়েছে ক্ষোভ৷

[বাড়ির অমতে বিয়ের শাস্তি, নবদম্পতিকে বিবস্ত্র করে খাওয়ানো হল প্রস্রাব]

কেমন আছেন ভারতীয় জওয়ানরা? খাবারের মানই বা কী? সেই প্রথম সোশ্যাল মিডিয়ায় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর জওয়ান তেজ বাহাদুর যাদবের ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়তেই তোলপাড় হয়েছিল গোটা দেশ৷ ভিডিওতে তিনি অভিযোগ জানিয়েছিলেন, জওয়ানদের অত্যন্ত নিম্নমানের খাবার দেওয়া হয়। তারপরই শুরু হয় বিতর্ক। এখানেই শেষ নয়। যাদব জানিয়ে ছিলেন, সেনাদের জন্য মজুত খাবার কম দামে বাইরেও বিক্রি করে দেওয়া হয়। এমন অভিযোগের জন্য বিএসএফ-এর তরফে যে তাঁর বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে, ভিডিওতে সে আশঙ্কাও প্রকাশ করেছিলেন তিনি। তবে যাদবের অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে দাবি করে বিএসএফ। ভারতীয় সেনার ভাবমূর্তি নষ্ট করছে বলে অভিযোগ ওঠে তাঁর বিরুদ্ধে। সেনাবাহিনীর আচরণ বিধি ভেঙে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে অভিযোগ না জানিয়ে ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করায় তেজ বাহাদুরকে শাস্তির মুখে পড়তে হয়। তাঁকে অপেক্ষাকৃত কম গুরুত্বপূর্ণ পদে সরিয়ে দেওয়া হয়৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement