১১ মাঘ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ২৫ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

পাঞ্জাবে নিরাপত্তায় গলদে বাকি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের সামনে মোদির কাছে দুঃখপ্রকাশ চান্নির

Published by: Kishore Ghosh |    Posted: January 13, 2022 9:55 pm|    Updated: January 13, 2022 10:06 pm

Channi expresses regret during meeting with Modi on PM security breach | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পাঞ্জাব সফরে প্রধানমন্ত্রী নিরাপত্তায় যে সমস্যা হয়েছে তার জন্য দুঃখিত পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী চরণজিৎ সিং চান্নি (Charanjit Singh Channi)। বৃহস্পতিবার কোভিড (Covid) পরিস্থিতি নিয়ে সব রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠক করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (PM Narendra Modi)। সেখানেই অন্য রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের সামনেই দুঃখপ্রকাশ করলেন চান্নি।

যদিও পাঞ্জাবের প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তার গলদ প্রসঙ্গে এর আগে চান্নি বলেছিলেন, সেদিন নিরাপত্তার কোনওরকম গাফিলতি হয়নি। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের কড়া বিবৃতির পরেও একই কথা বলেছিলেন পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী। এদিন ভোল বদলে নরম সুর দেখা গেল চান্নির গলায়। মোদির সঙ্গে বৈঠকের শুরুতেই বললেন, “জো হুয়া উসকে লিয়ে মুঝে খেদ হ্যায়” (যা হয়েছে তার জন্য আমি দুঃখিত)।

[আরও পড়ুন: পাঞ্জাব সরকারই কৃষকদের বলেছিল মোদির কনভয় আটকাতে! বিস্ফোরক হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রী ]

এদিকে পাঞ্জাবে প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তার গলদ নিয়ে পাঞ্জাব সরকার তথা মুখ্যমন্ত্রী চান্নির বিরুদ্ধে তোপ দেগেছেন একাধিক রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী। উত্তরাখণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী পুষ্কর সিং ধামির (Pushkar Singh Dhami) বক্তব্য, গোটা ঘটনাটি আসলে পূর্বপরিকল্পিত। চান্নির বিরুদ্ধে সরাসরি তোপ দেগেছেন অসমের মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মা (Himanta Biswa Sarma) । তিনি ঘটনার জন্য চান্নিকে দায়ী করে তাঁর গ্রেপ্তারির দাবি জানিয়েছেন।

মোদির পাঞ্জাব সফরে নিরাপত্তার গলদ নিয়ে বিতর্ক বাড়িয়েছেন হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রী মনোহর লাল খট্টরও (Manohar Lal Khattar)। তাঁর বিস্ফোরক দাবি, পাঞ্জাব সরকারই (Punjab Government) কৃষকদের রাস্তা আটকে বিক্ষোভ দেখাতে বলেছিল সেদিন। তাঁর কথায়, “পাঞ্জাব সরকারই কৃষক নেতাদের প্রধানমন্ত্রীর রাস্তা আটকানোর নির্দেশ দিয়েছিল। এই ভাবে পথ আটকে প্রধানমন্ত্রীকে বিপদের মুখে ঠেলে দেওয়া হয়েছিল।”

[আরও পড়ুন: মোদির নিরাপত্তায় ‘গলদে’র জের! পাঞ্জাবের পুলিশ প্রধানকে সরিয়ে দিল কংগ্রেস সরকার]

প্রসঙ্গত, প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তার গলদের বিষয়টি নিয়ে ইতিমধ্যে উচ্চ পর্যায়ের তদন্ত কমিটি গড়েছে সুপ্রিম কোর্ট (Supreme Court)। যার শীর্ষে রয়েছেন সুপ্রিম কোর্টেরই একজন অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি। এইসঙ্গে শীর্ষ আদালতের নির্দেশে স্থগিত হয়েছে পাঞ্জাব সরকার ও কেন্দ্রের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তদন্ত।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে