BREAKING NEWS

১২  আষাঢ়  ১৪২৯  সোমবার ২৭ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

Bhupesh Baghel: ব্রাহ্মণদের নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য, জেলে যেতে হল ছত্তিশগড়ের মুখ্যমন্ত্রীর বাবাকে

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: September 7, 2021 6:26 pm|    Updated: September 7, 2021 7:48 pm

Chhattisgarh CM Bhupesh Baghel's father Nand Kumar Baghel sent to 15 days custody | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বয়স ৮৬ বছর। ছেলে মুখ্যমন্ত্রী। তবুও ছাড় পেলেন না ছত্তিশগড়ের মুখ্যমন্ত্রী ভুপেশ বাঘেলের (Bhupesh Baghel) বাবা নন্দ কুমার বাঘেল। ব্রাহ্মণদের নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করায় শেষ পর্যন্ত জেলেই যেতে হল ছত্তিশগড়ের মুখ্যমন্ত্রীর বাবাকে। আগামী ২১ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত নন্দকুমার বাঘেলকে বিচারবিভাগীয় হেফাজতে পাঠিয়েছে আদালত। ফলে ১৫ দিন জেলে কাটাতে হবে তাঁকে।

সম্প্রতি একটি ভাইরাল ভিডিওয় ভুপেশ বাঘেলের বাবা নন্দ কুমারকে (Nand Kumar Baghel) বলতে শোনা যায়, ‘ব্রাহ্মণদের বয়কট করার ডাক দিন। ওঁদের গ্রামে ঢুকতে দেবেন না। ওঁরা নদীর তীরে থাকুন। ওঁরা বিদেশি। ওঁরা আমাদের অচ্ছ্যুত বলে মনে করে। আমি এই নিয়ে সব সম্প্রদায়ের সঙ্গে কথা বলব।’ নন্দ কুমারের এই মন্তব্যে রীতিমতো ক্ষোভ জমা শুরু করে রাজ্যের ব্রাহ্মণ সম্প্রদায়ের মধ্যে। তড়িঘড়ি নিজের বাবার বিরুদ্ধেই পদক্ষেপ করেন কংগ্রেস শাসিত রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী ভুপেশ বাঘেল।

Chhattisgarh CM Bhupesh Baghel's father Nand Kumar Baghel sent to 15 days custody

[আরও পড়ুন: প্রয়োজনে সময়ের আগেই নেওয়া যাবে করোনা ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় ডোজ! নির্দেশ কেরল হাই কোর্টের]

নিজের বাবার বিরুদ্ধে FIR দায়ের করার নির্দেশ দেন মুখ্যমন্ত্রী। ছত্তিশগড় পুলিশ তাঁর বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ১৫৩-এ এবং ৫০৫-এ ধারায় নন্দকুমারের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়। মুখ্যমন্ত্রী বাঘেলের সাফ কথা ছিল, “আইনের চোখে সবাই সমান। সে ৮৬ বছর বয়সি মুখ্যমন্ত্রীর বাবা হলেও। একজন মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে রাজ্যের সব সম্প্রদায়ের মধ্যে সম্প্রীতি বজায় রাখা আমার কর্তব্য। যদি কেউ কোনও ভুল মন্তব্য করে, তাহলে আমি দুঃখিত তাঁকে শাস্তি পেতেই হবে।”

[আরও পড়ুন: Jharkhand Assembly-তে নমাজ পড়ার জন্য আলাদা ঘর! হেমন্ত সোরেনের সিদ্ধান্তে তীব্র বিতর্ক]

পরে টুইটে তিনি বলেন, ছেলে হিসাবে আমি ওঁকে অনেক শ্রদ্ধা করি। কিন্তু মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে শান্তি বিঘ্নিত করে এমন কোনও ভুল আমি ক্ষমা করতে পারবে না।” কোনও রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর বাবার এই ধরনের শাস্তি হওয়ার নজির সত্যিই বিরল।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে