BREAKING NEWS

২ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

কৈলাস পর্বতের কাছে ক্ষেপণাস্ত্র মোতায়েন লালফৌজের, ‘ড্রাগনে’র কীর্তি ফাঁস উপগ্রহ চিত্রে

Published by: Paramita Paul |    Posted: August 23, 2020 10:25 am|    Updated: August 23, 2020 11:57 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: চিনের নজর এবার কৈলাসে (Mt. Kailash)। কৈলাস পর্বতের আশপাশেই মিসাইল মোতায়েন করছে চিন (China)। সেই উদ্দেশ্যে একাধিক নির্মাণও করছে তাঁরা।  সম্প্রতি এক উপগ্রহ চিত্রে (Satellite Image) এমনই ছবি উঠে এসেছে। এপ্রিল মাসে এই নির্মাণকাজ শুরু করেছিল ড্রাগনের দেশ। সম্প্রতি তা শেষ করেছে তারা। এই উপগ্রহ চিত্র সামনে আসতেই নতুন করে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। 

কৈলাস পর্বত, মানস সরোবর ও সংলগ্ন এলাকাগুলি হিন্দু ও বৌদ্ধ ধর্মালম্বীদের কাছে পবিত্র পীঠস্থান। প্রতি বছর বহু ধর্মপ্রাণ মানুষ এই এলাকাগুলিতে তীর্থ করতে যান। আসেন পর্যটকরাও। কিন্তু ক্রমশ এই তীর্থস্থানকে রণাঙ্গনে পরিণত করছে চিন। প্রসঙ্গত, লাদাখ ও ফাইভ ফিঙ্গার নিয়ে চিনের সঙ্গে ভারতের টানাপোড়েন চলছেই। এমন পরিস্থিতিতে লিপুলেখ এলাকায় ভারতের রাস্তা তৈরির পদক্ষেপ বিতর্কে ঘি ঢেলেছে। তবে ১৭ হাজার ফুট উঁচুতে ভারতের এই ৮০ কিলোমিটারের স্ট্র্যাটেজিক রোড মানস সরোবর, কৈলাস পর্বত, গৌরীকুণ্ড ও রাক্ষসতালের পথ সুগম করেছে। এরপরই কৈলাস সংলগ্ন চিনের এলাকায় ব্যাপক নির্মাণকাজ শুরু করে চিন। যার মূল উদ্দেশ্য লালফৌজকে (PLA) ঘাঁটি গাড়তে সাহায্য করা। 

[আরও পড়ুন: রাফালে বিমানঘাঁটি উড়িয়ে দেওয়ার হুমকি, নিরাপত্তা বাড়ল আম্বালায়]

১৬ আগস্ট একটি উপগ্রহ চিত্র প্রকাশ্যে আসে। যেখানে দেখা গিয়েছে, ভারতীয় সীমান্ত থেকে মাত্র ৯০ কিলোমিটার দূরেই লালফৌজ রণসজ্জার প্রস্তুতি নিচ্ছে।  ভূমি থেকে আকাশের (Surface to Air Missile or SAM) মাঝারি পাল্লার মিসাইল রাখার জন্য ছাউনি নির্মাণ করেছে চিন।  উপগ্রহ চিত্র দেখে ওয়াকিবহাল মহল জানিয়েছে, চারটি মাঝারি পাল্লার ক্ষেপনাস্ত্র, তিনটি রাডার রাখার ব্যবস্থা করা হয়েছে। আরও খানিকটা দূরে আরও তিনটি রাডার রাখার জায়গা তৈরি করা হয়েছে। HQ-9 SAM সিস্টেম নজরে আসে। সেগুলি তাঁবুর নিচে ঢাকা। সামনে আসে ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়ার লঞ্চারও। এদিকে, ভারতীয় এলাকায় নজরদারি চালাতে সীমান্ত লাগোয়া অঞ্চলে সেনাছাউনি তৈরি করেছে চিনা সেনা। সূত্রের খবর, এপ্রিল মাসের ১১ তারিখ থেকে এই নির্মাণ কাজ শুরু হয়েছিল। চলতি সপ্তাহে তা শেষও করে ফেলেছে চিন। সূত্রের খবর, গোটা বিষয়টির উপর নজর রাখছে ভারতীয় বায়ুসেনা। 

[আরও পড়ুন: মিটেও মিটছে না সীমান্ত সমস্যা! প্যাংগং থেকে সেনা সরাতে ভারতকে ‘শর্ত’ দিল চিন]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement