৭ ফাল্গুন  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনে রাষ্ট্রপতি সিলমোহর দেওয়ার পর কেটে গিয়েছে বেশ কয়েকদিন। তবে তাতে আন্দোলনের আঁচ এখনও কমেনি। দিন যত যাচ্ছে ততই যেন চড়ছে ক্ষোভের পারদ। এই পরিস্থিতিতে CAA বিরোধীদের আক্রমণ করতে গিয়ে বিতর্ক উসকে দিলেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন বিরোধী আন্দোলনকে দ্রৌপদীর বস্ত্রহরণের প্রেক্ষাপটের সঙ্গে তুলনা করলেন তিনি।

রবিবার গোরখপুরে এক অনুষ্ঠানে যোগ দিতে গিয়েছিলেন যোগী আদিত্যনাথ। সেই অনুষ্ঠানে বক্তব্যের সিংহভাগ জুড়েই ছিল CAA বিরোধী আন্দোলনকারীরা। তাঁদের আক্রমণ করতে গিয়ে যোগী বলেন, “দ্রৌপদীর যখন বস্ত্রহরণ করা হচ্ছিল তখন ভীষ্ম আর দ্রোণাচার্য ছাড়া কেউই রুখে দাঁড়াননি। সবাই মুখ বুজে সেই বস্ত্রহরণ দেখছিলেন। আজ জাতির এভাবেই বস্ত্রহরণ করা হচ্ছে। বিরোধীরা আদতে দ্রৌপদীর মতো গোটা দেশের বস্ত্রহরণের চেষ্টায় মেতে উঠেছেন।” সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন সম্পর্কে গোটা দেশের মানুষকে ভুল তথ্য দেওয়া হচ্ছে বলেও মন্তব্য উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রীর। তিনি বলেন, “দেশের মানুষকে এই আইনের বিরোধিতা করার জন্য উসকানি দেওয়া হচ্ছে। বিরোধীরা দেশের মানুষকে CAA ইস্যুতে ভুল তথ্য দিয়ে দেশে অশান্তি ছড়ানোর চেষ্টা করছেন।”

[আরও পড়ুন: নির্ভয়ার ধর্ষককে বাঁচাতে আদালতে জাল নথি! আইনজীবীকে নোটিস বার কাউন্সিলের]

শাহিনবাগের মতোই দেশের বিভিন্ন প্রান্তে মহিলারাও CAA বিরোধী আন্দোলনে শামিল হয়েছেন। সেই ইস্যুতে এদিন মুখ খোলেন যোগী আদিত্যনাথ। তিনি বলেন, “বিক্ষোভকারীরা দেশের ভাবমূর্তি নষ্ট করতে মহিলাদের প্রতিবাদ সভায় টেনে আনছে।” দেশের সাম্প্রতিক পরিস্থিতি দূষিত করা ছাড়া বিক্ষোভকারীদের কোনও কাজ নেই বলেও তোপ দাগেন তিনি।

যদিও রাজনৈতিক ইস্যুতে দ্রৌপদীকে টেনে আনা মোটেও ভাল চোখে দেখছেন না বিশিষ্টরা। যোগীর মন্তব্যের বিরোধিতায় সুর চড়িয়েছেন তাঁরা।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং