BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

উত্তরপ্রদেশ কংগ্রেসের রাশ ধরলেন প্রিয়াঙ্কা, বাংলার পর্যবেক্ষক পদ থেকে সরলেন গৌরব

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: September 11, 2020 10:14 pm|    Updated: September 11, 2020 10:14 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফের বড়সড় রদবদল কংগ্রেসে। এবার উত্তরপ্রদেশে দলের রাশ ধরলেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী। এদিকে, পশ্চিমবঙ্গের পর্যবেক্ষক পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হল অসমের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তরুণ গগৈর পুত্র গৌরব গগৈকে। তাঁর জায়গায় বাংলার পর্যবেক্ষক পদে বদলেন জিতিন প্রসাদ।

[আরও পড়ুন: কাশ্মীরের সোপোরে ধৃত পুলিশ ফাঁড়িতে গ্রেনেড হামলাকারী আল বদর জঙ্গি-সহ ৩]

শনিবারের এই সিদ্ধান্ত সাফ করে দিল যে নবীন-প্রবীণ দ্বন্দ্বে জর্জরিত দল। আর এই লড়াইয়ে আপাতত রাহুল গান্ধীর ‘যুবা ব্রিগেড’ই মজবুত অবস্থানে রয়েছে। এছাড়া, উত্তরপ্রদেশের বিদায়ী সাধারণ সম্পাদক গুলাম নবি আজাদ কংগ্রেসে বিক্ষুব্ধ গোষ্ঠীর অন্যতম মুখ হয়ে ওঠায় তাঁকে এই পদ থেকে সরিয়ে প্রিয়াঙ্কাকে বসানো হয়েছে বলেও জল্পনা রাজনৈতিক মহলে। তবে শুধু আজাদ নন, পদ খুইয়েছেন মতিলাল ভোরা, অম্বিকা সোনি, মল্লিকআর্জুন খড়গের মতো প্রবীণ নেতারও। ফলে এখন থেকেই আগামী লোকসভা নির্বাচনের কথা মাথায় রেখে দলের ধমনীতে তাজা রক্ত ঢালতেই উদ্যোগী কংগ্রেস।

উল্লেখ্য, কয়েকদিন আগে প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর (Priyanka Gandhi) বিরুদ্ধে তোপ দেগেছিলেন উত্তরপ্রদেশের ৭ কংগ্রেস নেতা। বেশকিছুদিন আগেই তাঁদের দল থেকে বহিষ্কার করেছিলেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধীই। কংগ্রেসে পরিবারতন্ত্র, নেতৃত্ব নিয়ে কয়েকদিন ধরেই টানাপোড়েন চলছে। ২৩ জন বিক্ষুব্ধ প্রবীণ নেতা কংগ্রেস সভানেত্রীকে চিঠি দিয়েছিলেন তাঁরা। তারপর সেই একই ইস্যুতে চিঠি লেখেন উত্তরপ্রদেশের প্রাক্তন বিধায়ক সন্তোষ সিং, প্রাক্তন মন্ত্রী সত্যদেব ত্রিপাঠি, প্রাক্তন বিধায়ক বিনোদ চৌধুরি, ভূধর নারায়ণ মিশ্র, নেকচন্দ মিশ্র, স্বয়ম প্রকাশ গোস্বামী এবং সঞ্জীব সিং। এবার পদ খুইয়ে আজাদ যে খুব খুশি হবেন না, তা বলাই বাহুল্য। ফলে লখনউয়ের নবাবী মেজাজ প্রিয়াঙ্কা কীভাবে সমলবেন তা দেখার।

এদিকে, সদ্য পশ্চিমবঙ্গে প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি হয়েছেন সোনিয়া গান্ধীর বিশ্বস্ত সৈনিক বহরমপুরের সাংসদ, লোকসভায় কংগ্রেসের দলনেতা অধীর রঞ্জন চৌধুরি (Adhir Ranjan Cjhowdhury)। তারপরই আজ রাজ্যের পর্যবেক্ষকের পদ থেকে ছেঁটে ফেলা হল গৌরব গগৈকে। তাঁর জায়গা নিচ্ছেন জিতিন প্রসাদ। তাৎপর্যপূর্ণভাবে, বিক্ষুব্ধদের দলে জিতিনও ছিলেন। কিন্তু রাহুল ঘনিষ্ট এই তরুণ নেতাতেই আপাতত আস্থা রেখেছে দলের হাই কমান্ড।

[আরও পড়ুন: মাস্কেই কেল্লাফতে! বন্দুক উঁচিয়ে সোনার দোকান থেকে গয়নাগাটি হাতিয়ে উধাও দুষ্কৃতী]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement