BREAKING NEWS

১৫ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  বুধবার ২ ডিসেম্বর ২০২০ 

Advertisement

কৃষি আইন নিয়ে বিক্ষোভ, অথচ নিজের রাজ্যে বঞ্চিত কৃষকরা! কংগ্রেসকেই আক্রমণ সিধুর

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: October 20, 2020 10:06 am|    Updated: October 20, 2020 10:45 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:‌ দেশজুড়ে কৃষি আইনের (Farm Law 2020) বিরুদ্ধে ‘জেহাদ’ শুরু করেছে কংগ্রেস। যার এপিসেন্টার পাঞ্জাব। খোদ রাহুল গান্ধী (Rahul Gandhi) পাঞ্জাবে ‘খেতি বাঁচাও’ র‍্যালি করেছেন। অথচ সেই পাঞ্জাবেই নাকি কৃষকরা বঞ্চিত। সেখানকার কংগ্রেস সরকারই নাকি কৃষকদের ফসল ন্যূনতম সমর্থন মুল্য দিয়ে কিনছে না। সেখানেই নাকি ফসল সংরক্ষণের উপযুক্ত পরিকাঠামো নেই। একথা কোনও বিরোধী নেতা বলছেন না। বলছেন, কংগ্রেসেরই অত্যন্ত প্রভাবশালী নেতা তথা রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী নভজ্যোত সিং সিধু (Navjot Singh Sidhu)। যা রীতিমতো অস্বস্তি বাড়িয়েছে কংগ্রেসের (Congress)।

সিধুর অভিযোগ, পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী ক্যাপ্টেন অমরিন্দর সিং বিতর্কিত এই কৃষি আইনের বিরুদ্ধে লড়ছেন ঠিকই। কিন্তু তিনি নিজের রাজ্যেই কৃষকদের বহু ক্ষেত্রে বঞ্চিত করছেন। পাঞ্চাবের কৃষকদের সমস্যা শুধু এই তিনটি কৃষি আইন নয়। পাঞ্জাবের কৃষকদের সমস্যা আরও বৃহত্তর। তিনি বলছেন,”আজ পাঞ্জাব সরকারের ফসল কেনার সুনির্দিষ্ট কোনও পদ্ধতি নেই। ধান আর গম ছাড়া অন্য কোনও ফসল মজুত রাখার পরিকাঠামো নেই। আমরা শুধু ৩ বছরের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছি। তারপর কী হবে ভাবছি না।” কংগ্রেস নেতার অভিযোগ, “পাঞ্জাবের কৃষকদের সমস্যা যদি শুধু এই তিনটি কৃষি আইন হত, তাহলে বছরের পর বছর এভাবে হাজার হাজার কৃষক আত্মহত্যা করতেন না।” সিধু বলছেন, আজকের দিনে ন্যূনতম সমর্থন মূল্যের চেয়েও গুরুত্বপূর্ণ ফসল বিক্রির গ্যারান্টি। সরকারের উচিত ন্যূনতম সমর্থন মূল্যের পাশাপাশি তৈলবীজ, ডাল, সবজি এবং ফল বিক্রির নিশ্চয়তা দেওয়া।

[আরও পড়ুন: কাশ্মীরের জঙ্গিদের সঙ্গে যোগাযোগই লক্ষ্য, নিয়ন্ত্রণরেখায় মোবাইল টাওয়ার বসাচ্ছে পাকিস্তান]

দলের নেতার এই বক্তব্যে রীতিমতো অস্বস্তিতে কংগ্রেস। বিজেপি বলা শুরু করে দিয়েছে, নিজেদের রাজ্যেই যারা কৃষকদের কথা ভাবছে না, তাঁরা আবার গোটা দেশের কৃষকদের চিন্তা কীভাবে করবে? এদিকে, সিধুর এই অভিযোগকে পাত্তা না দিয়েই আজ বড়সড় সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে পাঞ্জাবের কংগ্রেস সরকার। বিধানসভায় নতুন আইন পাশ করিয়ে, এই আইন কার্যকর না করার সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে তাঁরা। সেটা নিয়েও বিক্ষোভ কম হয়নি। আম আদমি পার্টির অভিযোগ, নতুন আইনের খসড়া তাঁদের দেখানো হয়নি। সেই খসড়া দেখার দাবিতে রাতভর বিধানসভাতেই অবস্থান করেছেন তাঁরা।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement