৮ ফাল্গুন  ১৪২৬  শুক্রবার ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিজেপিকে সমর্থন করতে রাজি না হওয়ার জেরেই বোর্ডের চুক্তি থেকে বাদ পড়তে হয়েছে মহেন্দ্র সিং ধোনিকে। এতদিন এই তত্ত্ব ঘুরছিল সোশ্যাল মিডিয়ায়। এবার সেই তত্ত্বকে হাতিয়ার করেই বিজেপিকে আক্রমণ শানাল কংগ্রেস। তাঁদের প্রশ্ন,” সত্যিই কি ধোনির বাদ যাওয়ার পিছনে বিজেপির হাত আছে? তা যদি থেকেই থাকে, তাহলে এর থেকে লজ্জার কিছু হয় না।”

উল্লেখ্য, ঝাড়খণ্ডের বিধানসভা নির্বাচনের আগে ধোনির (MS Dhoni) বিজেপি যোগ নিয়ে জোর জল্পনা ছড়িয়েছিল। জনশ্রুতি অনুযায়ী, বিজেপি নেতারা নাকি ধোনির সঙ্গে যোগাযোগ করেছিলেন, তাঁকে দলে টানার উদ্দেশ্যে। কিন্তু, ধোনি তাতে রাজি হননি। টিম ইন্ডিয়ার প্রাক্তন অধিনায়ক নিতান্তই বিজেপিতে যোগ দিতে রাজি না হওয়ায়, তাঁকে গেরুয়া শিবিরের হয়ে ভোটপ্রচার করার প্রস্তাব দেওয়া হয়। কিন্তু, মাহি তাতেও রাজি হননি। কংগ্রেসের অভিযোগ, এর জেরেই ক্ষুব্ধ বিজেপি নেতৃত্ব বিসিসিআইয়ের উপর প্রভাব খাটিয়ে ধোনিকে বোর্ডের কেন্দ্রীয় চুক্তি থেকে বাদ দিয়েছে। কংগ্রেস নেতা তথা প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী শাকিল আহমেদ (Shakeel Ahmad) রবিবার টুইট করে প্রশ্ন তুলছেন, “এটা কি ঠিক যে দেশকে বিশ্বকাপ জেতানো এবং অনেক সাফল্যের মালিক ধোনির চুক্তি শুধু বিজেপিকে সমর্থন না করায় বাতিল করা হয়েছে? এটা যদি হয়ে থাকে তাহলে এর থেকে লজ্জাজনক কিছু হয় না।”

[আরও পড়ুন: মুম্বইয়ে হারের মধুর প্রতিশোধ, ব্যাটে-বলে দুরন্ত পারফর্ম করে অজি বধ কোহলিদের]

আসলে ঘুরপথে কংগ্রেসের অভিযোগ, ভারতীয় ক্রিকেটে পুরোদস্তুর রাজনীতির অনুপ্রবেশ ঘটেছে। এই অভিযোগ অবশ্য নতুন কিছু নয়। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহর ছেলে জয় শাহ (Jay Shah) বোর্ডের সচিব হওয়ার পর থেকেই এই অভিযোগে সরব হয়েছে কংগ্রেস। এবার সেই মাত্রা আরও বাড়িয়ে দিলেন শাকিল আহমেদ। বোর্ডের তরফে অবশ্য ধোনির চুক্তি থেকে বাদ যাওয়া নিয়ে সরাসরি কোনও মন্তব্য করা হয়নি। বোর্ড প্রেসিডেন্ট সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় এ নিয়ে মন্তব্য করতে রাজি হননি। তবে ওয়াকিবহাল মহলের দাবি, যে সময়কালের জন্য বিসিসিআই নতুন কেন্দ্রীয় চুক্তিবদ্ধ ক্রিকেটারদের তালিকা ঘোষণা করেছে, সেই সময় ধোনি দেশের হয়ে একটিও আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেললেনি। তাই, তাঁর বাদ যাওয়াটা অস্বাভাবিক কিছু নয়।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং