BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

মৃতের তালিকায় করোনায় আক্রান্তের নামও! খোদ চিকিৎসকের কাণ্ডে স্তম্ভিত দেশবাসী

Published by: Paramita Paul |    Posted: April 26, 2020 7:14 pm|    Updated: April 26, 2020 7:14 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন তিনি। চিকিৎসকদের হাতযশে অনেকটাই সুস্থও হয়ে উঠেছেন।এমন সময় মৃত্যু সংবাদ। শনিবার সকালে হাসপাতালের শয্যায় বসে সংবাদপত্রের পাতা খুলতেই চক্ষু চড়কগাছ! রাজ্যে করোনায় মৃতদের তালিকায় জ্বলজ্বল করছে ওই ষাটোর্ধ্ব ব্যক্তির নাম। মহামারি পরিস্থিতিতে মধ্যপ্রদেশের উজ্জ্বয়িনীর এক বেসরকারি হাসপাতালের এমন কাণ্ডজ্ঞানহীন আচরণে ক্ষোভের পারদ চড়ছে। যদিও ওই চিকিৎসককে তৎক্ষণাৎ শোকজ করেছে জেলা মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক।

গোটা বিশ্বে অব্যাহত নোভেল করোনা ভাইরাসের দাপট। পুরনো রেকর্ড ছাপিয়ে মৃত্যুর হার বেড়েছে মার্কিন মুলুকে। ভারতের রক্তচাপ বাড়াচ্ছে নয়া পরিসংখ্যান। রবিবার সকালেই আক্রান্তের সংখ্যা ২৭ হাজার ছুঁইছুঁই। মৃত্যু হয়েছে ৮২৬ জনের। সুস্থ হয়েছেন ৫৮০৪ জন। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের নির্দেশ মেনে শর্তসাপেক্ষে বিভিন্ন রাজ্যে খুলেছে দোকানপাট। যদিও মধ্যপ্রদেশে আগের মতোই লকডাউন চলবে বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। দিল্লি, কলকাতা, ইন্দোর-সহ একাধিক শহরের করোনা পরিস্থিতি সরেজমিনে খতিয়ে দেখতে কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দল পাঠিয়েছে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক। করোনায় ত্রস্ত রাজ্যগুলির মধ্যে তালিকার উপরদিকেই নাম রয়েছে মধ্যপ্রদেশের। সেই রাজ্যের রাজধানী থেকে ১৯০ কিলোমিটার দূরে উজ্জ্বয়িনীতে ঘটে গেল এমন ঘটনা। আরও ভয়ংকর বিষয় হল, রাজ্যের অন্যতম হটস্পট এই এলাকা।

[আরও পড়ুন : করোনা আবহে দেশে মুসলিম হেনস্তায় ক্ষুব্ধ, মুখ্যমন্ত্রীদের চিঠি শতাধিক প্রাক্তন আমলার]

ওই আক্রান্ত ব্যক্তির বক্তব্যের একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। সেই ভিডিওতে ওই ব্যক্তিকে বলতে শোনা যায়, “দুদিন আগে আরডি গারডি হাসপাতালে আমি ভরতি হই। শনিবার সকালে সংবাদপত্রে আমি পড়ি, আমাকে মৃত বলে ঘোষণা করা হয়েছে। এদিকে আমি তো বহাল তবিয়তে সুস্থ  আছি।” বিষয়টি নজরে আসতেই তড়িঘড়ি ব্যবস্থা নেন জেলার স্বাস্থ্যকর্তা।

উজ্জ্বয়িনীর মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক ডা. অনুসূইয়া ঘাওয়ালি সিনহা জানান, “বৃহস্পতিবার এই এলাকায় এক ষাট বছরের বৃদ্ধের মৃত্যু হয়। তালিকায় তাঁর নামের বদলে ওই ব্যক্তির নাম লেখা ছিল। নোডাল অফিসার নিজের ভুলের কথা মেনে নিয়েছেন। তিনি জানিয়েছেন, নাম ও ঠিকানা নিয়ে বিভ্রান্তির কারণেই এমনটা ঘটেছে।” মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক আরও জানান, “আমি ওই চিকিৎসককে শোকজ করেছি। তাঁর ও তাঁর হাসপাতালের বিরুদ্ধে কেন ব্যবস্থা নেওয়া হবে না, তা জানতে চেয়েছি।” তবে একজন দিব্য সুস্থ মানুষকে মৃত ঘোষণা করে দেওয়া স্তম্ভিত রাজ্যবাসী।

[আরও পড়ুন : লকডাউন মিটলে ফেরানো হবে আটক ভারতীয়দের, সিদ্ধান্ত বিদেশ মন্ত্রকের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement