২২ আষাঢ়  ১৪২৭  মঙ্গলবার ৭ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

দলবল নিয়ে শ্যালিকার বিয়েতে করোনা আক্রান্ত জামাইবাবু, চরম আতঙ্কে নিমন্ত্রিতরা

Published by: Bishakha Pal |    Posted: June 1, 2020 10:47 pm|    Updated: June 1, 2020 11:11 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: শরীরে কোনও উপসর্গ ছিল না। তাই করোনাকে খুব একটা আমল দেননি মধ্যপ্রদেশের এক যুবক। সতর্কতার কারণে তাঁর শারীরিক পরীক্ষা হয়েছিল। কিন্তু উপসর্গ নেই বলে রিপোর্ট পাওয়ার অপেক্ষাও করেননি। শালির বিয়ের কাজ করছিলেন। কিন্তু সব বানচাল করে দিল সোয়াব টোস্টের রিপোর্ট। জামাইবাবুর শরীরে সন্ধান মিলেছে করোনা ভাইরাসের। আর তার জেরে লাটে ওঠার জোগাড় শালির বিয়ে। বর ও কনে-সহ বিয়েবাড়ির ১০৫ জনকে পাঠানো হয়েছে কোয়ারেন্টাইনে।

ঘটনাটি ঘটেছে মধ্যপ্রদেশের ছিদোয়ারাতে। কিছুদিন আগে সতর্কতার কারণে সোয়াব পরীক্ষা করা হয়েছিল ওই ব্যক্তির। তাঁর শরীরের কোনও করোনার উপসর্গ ছিল না। তাই নিশ্চিন্ত হয়েই শালির বিয়ের কাজ করছিলেন ওই ব্যক্তি। কিন্তু সোমবার সোয়াব পরীক্ষার রিপোর্ট আসে। তখনই জানা যায় তিনি করোনা পজিটিভ। সঙ্গে সঙ্গেই একটি মেডিক্যাল টিম বিয়ে বাড়িতে পৌঁছয়। কিন্তু সেখানে গিয়ে টিমের কর্তারা অবাক। রীতিমতো সবার সঙ্গে মিশে কাজ করছেন ওই ব্যক্তি। সামাজিক দূরত্বের বালাই নেই। ফলে বিয়েবাড়িতে উপস্থিত ১০৫ জনকে পাঠানো হল কোয়ারেন্টাইনে। বাদ গেলেন না বর ও কনেও।

[ আরও পড়ুন: পরিযায়ী শ্রমিকদের বাড়ি ফেরাতে উদ্যোগ ১২ বছরের নয়ডা কিশোরীর, দান সঞ্চয়ের ৪৮ হাজার টাকা ]

এখানেই শেষ নয়। দেশজুড়ে যখন লকডাউন চলছে তার মধ্যে এভাবে জমায়েত করে বিয়েবাড়ি এমনিতেই আইনবিরুদ্ধ। এক্ষেত্রে তিনি অনুমতি পেলেন কী করে, তা নিয়ে উঠছে প্রশ্ন। যদিও এ নিয়ে এখনও কোনও মামলা দায়ের হয়নি। কিন্তু ওই ব্যক্তির দায়িত্বজ্ঞান সম্পর্কে প্রশ্ন উঠছে। আমন্ত্রিতরাউ প্রশ্ন তুলছেন, যখন তাঁর করোনা পরীক্ষা হয়েছে, তাহলে তিনি কেন তার মধ্যেই বিয়েবাড়িতে এলেন।

[ আরও পড়ুন: রাজ্যসভার ১৮টি আসনে ভোটগ্রহণের নির্ঘণ্ট প্রকাশ নির্বাচন কমিশনের ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement