BREAKING NEWS

২৮ চৈত্র  ১৪২৭  রবিবার ১১ এপ্রিল ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

চিন্তা বাড়াচ্ছে দেশের কোভিড গ্রাফ, দৈনিক সংক্রমণ বৃদ্ধি, কমল সুস্থতার হার

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: March 12, 2021 10:01 am|    Updated: March 12, 2021 10:11 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গত কয়েকমাসে দেশে করোনা (Coronavirus)সংক্রমণ বেশ কিছুটা নিয়ন্ত্রণে আসার পরও নিশ্চিন্ত হওয়া যাচ্ছে না কিছুতেই। বসন্তের মাঝামাঝিতে আচমকাই বেড়ে গেল সংক্রমণ। বৃহস্পতি ও শুক্রবার – পরপর দু’দিন লাফিয়ে বাড়ল দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা। স্বাস্থ্যমন্ত্রকের সাম্প্রতিকতম বুলেটিন অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে নতুন করে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ২৩ হাজার ২৮৫। বৃহস্পতিবার এই সংখ্যা ছিল ২২ হাজারের কিছু বেশি। শুক্রবার তা আরও বাড়ল। গত ২৪ ঘণ্টায় মারণ ভাইরাসের বলি ১১৭ জন। সুস্থ হয়ে ফিরেছেন ১৫,১৫৭ জন।

বিশ্বজুড়ে মহামারী থাবা বসিয়েছিল প্রায় এক বছর আগে। ভারতও তার কামড় থেকে রক্ষা পায়নি। পরিস্থিতি সামলা দিতে গত বছরের বেশ কয়েকমাস ধাপে ধাপে লকডাউন ও আনলক পর্যায়ের মধ্যে দিয়ে যেতে হয়েছে দেশবাসীকে। নতুন বছরের শুরুতে দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি জোড়া প্রতিষেধক দিয়ে গণটিকাকরণ শুরু হওয়ার পর পরিস্থিতির খানিকটা উন্নতি হয়। ইতিমধ্যে দেশের ২ কোটি ৬১ লক্ষ ৬৪ হাজার ৯২০ জনের টিকাকরণ সমাপ্ত। 

[আরও পড়ুন:  বঙ্গের নির্বাচনে ব্যস্ত, লোকসভায় দলনেতার দায়িত্ব থেকে অস্থায়ীভাবে সরলেন অধীর]

তবে সম্প্রতি ফের নয়া বিলিতি স্ট্রেন নিয়ে আতঙ্ক ছড়ায়। জানা গিয়েছে, অরুণাচলে ফের করোনা আক্রান্তের হদিশ মিলেছে। সবচেয়ে খারাপ অবস্থা মহারাষ্ট্রের। নাগপুর শহরে ১৪ তারিখ থেকে ২১ তারিখ পর্যন্ত সম্পূর্ণ লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। কেন্দ্রের তরফেও সতর্কবার্তা দিয়ে বলা হয়েছে, করোনার দাপট এখনও জারি রয়েছে। সাবধান না হলে ফের বিপদ বাড়বে।

[আরও পড়ুন: মুখ্যমন্ত্রী কীভাবে জখম হলেন? নন্দীগ্রামের ঘটনায় বিস্তারিত রিপোর্ট চাইল নির্বাচন কমিশন]

এই মুহূর্তে দেশে অ্যাকটিভ করোনা রোগীর সংখ্যা ১ লক্ষ ৯৭ হাজার ২৩৭। কোভিড-১৯ (COVID-19) জীবাণুর কবল থেকে মুক্ত হয়েছেন মোট  ১ কোটি ৯ লক্ষ ৫৩  হাজার ৩০৩ জন। সেদিক থেকে ভারতের  করোনা পরিস্থিতির উন্নতি অনেকটাই। কিন্তু মহারাষ্ট্র-সহ ৮ রাজ্যের সাম্প্রতিক পরিস্থিতি উদ্বেগজনক। তাই টিকাকরণ হলেও সাবধানতা অবলম্বনের কথা বারবার বলছেন স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement