BREAKING NEWS

১০ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২৬ নভেম্বর ২০২০ 

Advertisement

নতুন সপ্তাহে চিন্তা বাড়াল দেশের করোনা গ্রাফ, দৈনিক সংক্রমণের নিরিখে কমল সুস্থতার হার

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: November 9, 2020 9:46 am|    Updated: November 9, 2020 9:54 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা (Coronavirus)যুদ্ধে ভারতের বেশ খানিকটা এগিয়ে থাকার ধারাবাহিকতা সামান্য ধাক্কা খেল। নতুন সপ্তাহের প্রথম দিন দৈনিক সংক্রমণ সামান্য বাড়ল। স্বাস্থ্যমন্ত্রকের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে নতুন করে ৪৫, ৯০৩ জনের শরীরের মিলেছে করোনার জীবাণু। যদিও কমেছে মৃত্যু। ২৪ ঘণ্টায় করোনার বলি ৪৯০ জন। সুস্থতার হার অবশ্য আক্রান্তের তুলনায় বেশি। পরিসংখ্যান বলছে, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাজয় করে বাড়ি ফিরেছেন ৪৮,৪০৫জন। তবে সুস্থতার এই হার গত সপ্তাহের তুলনায় কিছুটা হলেও কম।

রবিবার দেশের দৈনিক করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ৪৫, ৬৭৪। তুলনায় নতুন সপ্তাহে তা খানিকটা বাড়ল। তবে দৈনিক মৃত্যুর সংখ্যায় তুলনায় কম, রবিবার যা ছিল ৫৫৯, সোমবার তা নেমে এসেছে ৪৯০এ। এ নিয়ে দেশে করোনার মোট বলি এখনও পর্যন্ত ১ লক্ষ ২৬ হাজার ৬১১। আর মোট করোনা রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৮৫ লক্ষ ৫৩ হাজার ৬৫৭। এই মুহূর্তে অ্যাকটিভ রোগীর সংখ্যা যদিও কম – ৫ লক্ষ ৯ হাজার ৬৭৩জন। সুস্থতার হার গত সপ্তাহের তুলনায় চলতি সপ্তাহে কিছুটা কমল। সেটাই নতুন করে চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়াল আপাতত।

[আরও পডুন: অজানা ব্যক্তির নির্দেশে বাবার ফোনে অ্যাপ ডাউনলোড ছেলের, গায়েব ৯ লক্ষ টাকা]

শীতের শুরুতে দেশের করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের আশঙ্কার কথা শুনিয়েছিলেন বিশেষজ্ঞরা। চলতি বছর নির্ধারিত সময়ের কিছুটা আগেই দেশে শীতের আবহ। অন্যান্য বছরের তুলনায় তাপমাত্রা এবার অনেক আগেই নিম্নমুখী। সেই কারণেই কি নভেম্বরের দ্বিতীয় সপ্তাহে করোনা সংক্রমণ খানিকটা বাড়ল? এই প্রশ্ন উঠছেই। তবে কারণ যাই-ই হোক, দৈনিক জীবনযাপনে সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বনই করোনাযুদ্ধের এক ও একমাত্র শক্তিশালী হাতিয়ার হয়ে উঠতে পারে। জনসাধারণের উদ্দেশে এই বার্তাই বারবার দিচ্ছেন চিকিৎসকরা।

[আরও পডুন: ৯০ ঘণ্টার লড়াই শেষ, ঘরে ফেরা হল না গভীর কুয়োয় আটকে পড়া তিন বছরের প্রহ্লাদের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement