১৪ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বুধবার ১ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

বিতর্কের পরও ১০ লক্ষ প্যাকেট করোনিল বিকোচ্ছে প্রতিদিন, দাবি রামদেবের

Published by: Paramita Paul |    Posted: August 6, 2020 7:35 pm|    Updated: August 6, 2020 7:35 pm

Coronil demand at 10 lakh packs a day: Baba Ramdev

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বাবা রামদেবের পতঞ্জলি সংস্থার বিতর্কিত ওষুধ করোনিলের (Coronil) চাহিদা নাকি তুঙ্গে! ফি দিন বিকোচ্ছে কয়েক লক্ষ প্যাকেট করোনিল। এমনটাই দাবি করেছে পতঞ্জলি সংস্থা। তাঁদের কথায়, চাহিদা অনুযায়ী ওষুধ সরবরাহ করতে হিমশিম খাচ্ছে সংস্থা।

প্রথমদিন থেকেই এই ওষুধকে ঘিরে তুঙ্গে উঠেছে বিতর্ক। পতঞ্জলির (Patanjali) তরফে প্রথমে বলা হয়েছিল, করোনা রুখে দেবে এই আয়ুর্বেদিক ওষুধ। রামদেব (Ramdev) এমনও বলেন যে, দেশীয় আয়ুর্বেদিক উপাদান যথা তুলসী, অশ্বগন্ধা, গুলঞ্চ ইত্যাদির সংমিশ্রণে তৈরি করোনিল করোনা রোগীদের উপরে প্রয়োগ করে দেখা হয়েছে সংক্রমণ কমছে সাতদিনের মধ্যেই। কোনও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াও নেই। এরপরই বিতর্ক দানা বাধে। তা ধামাচাপ দিতে তড়িঘড়ি সংস্থার তরফে জানানো হয়, করোনা (Corona Virus) সারানোর ওষুধ নয়, করোনিল শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে কার্যকর। কিন্তু করোনা আবহে সেই করোনিল বিক্রিরই রমরমা। বাবা রামদেবই দাবি করেছেন, করোনিলের দৈনিক চাহিদা ১০ লক্ষ প্যাকেট।

[আরও পড়ুন : একদিনে নতুন আক্রান্ত প্রায় ৫৬ হাজার, দেশে করোনায় মৃত্যু পেরল ৪০ হাজারের গণ্ডি]

এক প্যাকেট করোনিলের দাম ৫০০ টাকা। বাবা রামদেবের কথায়, “আমাদের কাছে এখন প্রতিদিন ১০ লক্ষ প্যাকেট করোনিলের চাহিদা রয়েছে। কিন্তু আমরা এক লক্ষ উৎপাদন করতে পারছি।” তিনি আরও বলেন, “করোনা পরিস্থিতিতে আমরা যদি এর দাম ৫ হাজার টাকা রাখতাম তাহলে সহজেই ৫ হাজার কোটি টাকা আয় করতে পারতাম। কিন্তু আমরা সেটা করিনি।”  বণিক সংস্থা অ্যাসোচেম আয়োজিত ‘আত্মনির্ভর ভরত – ভোকাল ফর লোকাল’ শীর্ষক আলোচনা চক্রে যোগ দেন যোগগুরু রামদেব। ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে হওয়া সেই আলোচনা চক্রেই করোনিলের এমন চাহিদার দাবি করেন তিনি। এত বিতর্কের পরও দেশের আমজনতা পজঞ্জলির এই ওষুধ কিনছে দেখে, হতবাক অনেকেই। 

[আরও পড়ুন : লকডাউনে ধাক্কা খাচ্ছে অর্থনীতি, মেনে নিয়েও রেপো রেট অপরিবর্তিত রাখল RBI]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে