BREAKING NEWS

২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২২ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

‘আমার বুক চিরে দেখুন, মোদিজিকে পাবেন’, নিজেকে ভক্ত ‘হনুমান’ ঘোষণা চিরাগ পাসোয়ানের

Published by: Biswadip Dey |    Posted: October 16, 2020 9:05 pm|    Updated: October 16, 2020 9:05 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: তিনি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির (PM Modi) ‘হনুমান’। এভাবেই শুক্রবার নিজেকে বর্ণনা করলেন লোক জনশক্তি পার্টির(LJP) সভাপতি চিরাগ পাসওয়ান (Chirag Paswan)। সংবাদ সংস্থা এএনআইকে তিনি জানান, ‘‘প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির কোনও ছবি আমার লাগবে না। উনি আমার হৃদয়ে থাকেন। ঠিক রামের প্রতি হনুমানের যেমন ভক্তি, আমারও বুক চিরে দেখলে আপনারা একমাত্র মোদিজিকে পাবেন।’’

বিহার বিধানসভা নির্বাচনের কাউন্ট ডাউন শুরু হয়ে গেছে। ভোটের আগে এনডিএ জোট ছেড়ে বেরিয়ে গেছে এলজেপি। চিরাগ জানিয়ে দিয়েছেন, নীতীশ কুমারের (Nitish Kumar) জেডি(ইউ)-এর সঙ্গে আদর্শগত বিভেদ থাকার কারণে তাঁরা আগামী বিধানসভা নির্বাচনে এনডিএ থেকে সরে যাচ্ছেন। তবে চিরাগ স্পষ্ট জানিয়েছেন, তিনি বিহারে বিজেপি শাসিত সরকারের পক্ষে। বিজেপি সভাপতি জেপি নাড্ডাকে লেখা এক চিঠিতে চিরাগ পরে অভিযোগ করেন, নীতীশ কুমার অপমান করেছিলেন তাঁর বাবা সদ্যপ্রয়াত রামবিলাস পাসওয়ানকে। পাশাপাশি তাঁর আরও অভিযোগ, প্রবীণ রামবিলাস অসুস্থ হয়ে পড়ার পরে প্রধানমন্ত্রী-সহ শীর্ষস্থানীয় নেতারা ঘনঘন তাঁর স্বাস্থ্যের খোঁজ নিলেও নীতীশ কুমার একবারের জন্যও কোনও খোঁজ নেননি।

[আরও পড়ুন : খাদ্য ও কৃষি সংগঠনের ৭৫ বছর পূর্তি উপলক্ষে ৭৫ টাকার স্মারক মুদ্রা প্রকাশ প্রধানমন্ত্রীর]

যদিও বিহার নির্বাচনে এনডিএ’র আসন বণ্টনের বিষয়ে ঘোষণার দিনই বিজেপি জানিয়ে দিয়েছে, বিহারে নীতীশ কুমারের দলের সঙ্গে তাদের জোট ‘অবিচ্ছেদ্য’। তারা আরও জানিয়েছে, তারা নির্বাচন কমিশনের কাছে আরজি জানাবে, যেন এলজেপি তাদের প্রচারে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ছবি ব্যবহার না করতে পারে। চিরাগের এদিনের মন্তব্যে সেই প্রসঙ্গেরই যোগসূত্র পাওয়া যাচ্ছে।

এদিন এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের কাছে চিরাগ আরও দাবি করেন, নীতীশ কুমার এবার মুখ্যমন্ত্রী হতে পারবেন না। এলজেপিই সরকার গড়বে বিজেপির সঙ্গে জোট করে। তিনি অভিযোগ করেন, রাজ্যের মানুষ নীতীশ কুমারের উপরে ক্ষুব্ধ। তাঁরা পরিবর্তন চান। বিজেপি নেতা প্রকাশ জাভড়েকর অবশ্য চিরাগ ও তাঁর দলের বিরুদ্ধে মানুষকে বিভ্রান্ত করার অভিযোগ এন‌েছেন। তিনি এলজেপিকে ‘ভোট কাটার’ পার্টি বলে অভিযুক্তও করেছেন।

[আরও পড়ুন : কারচুপি রুখতে কড়া পদক্ষেপ, বড় বদল আসছে রান্নার গ্যাস সিলিন্ডার সরবরাহের নিয়মে]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement