২১ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বুধবার ৮ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

আধার লিঙ্কের নামে প্রতারণার শিকার এবার খোদ সাংসদ

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: December 20, 2017 6:02 am|    Updated: August 29, 2019 6:08 pm

Cyber-crooks dupe MP on pretext of Aadhaar linking

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: যেমন তেমন নেতা নন, পাঞ্জাব কংগ্রেসের প্রধান ছিলেন। এখন আবার রাজ্যসভার সাংসদ। তাও রেয়াত পেলেন না সামশের সিং দুল্লো। আধার লিঙ্কের নামে তাঁর থেকে ২৭ হাজার টাকা হাতিয়ে নিল প্রতারক। তাও আবার চোখের পলক পড়তে না পড়তেই। দিল্লি পুলিশে অভিযোগ দায়ের করেছেন সাংসদ।

[‘মোদি বৃদ্ধ হয়েছেন, ওঁর এবার রাজনীতি থেকে অবসর নেওয়া উচিত’]

জানিয়েছেন, সোমবার দিল্লির ডা. বি ডি মার্গের বাড়িতে ছিলেন তিনি। সেই সময়ই একটি ফোন আসে তাঁর কাছে। প্রতারক নিজেকে স্টেট ব্যাঙ্ক অফ খান্নার ম্যানেজার বলে পরিচয় দেয়। সেখানে সাংসদের একটি অ্যাকাউন্ট রয়েছে। প্রতারক জানায়, বিশেষ গ্রাহক বলে তাঁকে বাড়িতে বসেই আধার লিঙ্কের সুযোগ দেওয়া হচ্ছে ব্যাঙ্কের তরফ থেকে। এর জন্য তাঁর আধার নম্বর প্রয়োজন। নিজের আধার নম্বরটি দিয়েও দেন সাংসদ। এরপর প্রতারক জানায় তাঁর মোবাইলে একটি ওয়ান-টাইম পাসওয়ার্ড (OTP) আসবে সেটি জানাতে। সরল বিশ্বাসে তাও জানিয়ে দেন তিনি। সঙ্গে সঙ্গেই ফোন কেটে যায়। সাংসদের মোবাইলে এসএমএস আসে ২৭ হাজার টাকা তুলে নেওয়া হয়েছে তাঁর অ্যাকাউন্ট থেকে।

[‘পাকিস্তান কখনও ষড়যন্ত্র করে না’, মোদির অভিযোগ খারিজ ফারুক আবদুল্লার]

পুলিশকে সাংসদ এও জানান, প্রতারক তাঁর কাছে আধার নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেছিল। জানিয়েছিল, সরকারের এ পদক্ষেপে সে একেবারেই খুশি নয়। দায়িত্বশীল নাগরিক হিসেবে তিনি তাঁকে আধারের মাহাত্ম্যও বুঝিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু টাকা খোয়া যেতেই টের পান পুরোটাই প্রতারণা ছিল। সাংসদের অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত শুরু করেছে দিল্লি পুলিশ। জানা গিয়েছে, সোশ্যাল মিডিয়া থেকেই সাংসদের সম্পর্কে তথ্য সংগ্রহ করেছিল প্রতারক। আধার ও OTP নম্বর পেতেই সে টাকা হাতিয়ে নেয়।  ঘটনা প্রকাশ্যে আসতেই বিভিন্ন মহলে প্রশ্ন উঠছে, সাংসদেরই যদি এই হাল হয় তাহলে সাধারণ মানুষের উপার্জনের নিরাপত্তা কোথায়?

[বিরাটের বিরুদ্ধে দেশদ্রোহিতার বিস্ফোরক অভিযোগ বিজেপি নেতার]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে