BREAKING NEWS

১২ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  শনিবার ২৮ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

ফের কেন্দ্র-রাজ্য সংঘাত, সাধারণতন্ত্র দিবসের কুচকাওয়াজে থাকছে না বাংলার ট্যাবলো

Published by: Paramita Paul |    Posted: January 2, 2020 9:36 am|    Updated: January 3, 2020 11:37 am

Defence Ministry rejected WB’s tableau for the Republic Day parade

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফের সংঘাতের পথে হাঁটছে কেন্দ্র-রাজ্য । দিল্লিতে সাধারণতন্ত্র দিবসের কুচকাওয়াজ থেকে বাদ পড়ল পশ্চিমবঙ্গের ট্যাবলো। এর আগে ২০১৮-এর কুচকাওয়াজ থেকে বাংলার ট্যাবলো বাদ পড়েছিল। প্রতিরক্ষা মন্ত্রক সূত্রে খবর, দু’দফায় আলোচনার পরও পশ্চিমবঙ্গের প্রস্তাব খারিজ করে দিয়েছে বিশেষজ্ঞ কমিটি। বুধবার রাজ্যকে সরকারিভাবে এ কথা জানিয়ে দেওয়া হয়েছে।

 সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (CAA) এবং NRC নিয়ে কেন্দ্রের সঙ্গে রাজ্যের সংঘাত চলছেই। এই পরিস্থিতিতে দিল্লিতে সাধারণতন্ত্র দিবসের কুচকাওয়াজ থেকে বাংলার ট্যাবলো বাদ পড়ায় সেই সংঘাত আরও বাড়বে বলেই মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল।

জানা গিয়েছে, এ বছর দিল্লির সাধারণতন্ত্র দিবসের কুচকাওয়াজে মোট ২২টি ট্যাবলো অংশ নেবে বলে কমিটির বৈঠকে নির্ধারিত হয়েছে। এর মধ্যে ১৬টি রাজ্যের ও বাকি ছ’টি বিভিন্ন মন্ত্রক ও দপ্তরের। অংশগ্রহণের জন্য ৩২টি রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল এবং ২৪টি মন্ত্রক ও দফতর কেন্দ্রের কাছে আবেদন করেছিল। তার মধ্যে থেকে কেন্দ্র-রাজ্য এবং মন্ত্রক-দপ্তর মিলিয়ে মোট ২২টি ট্যাবলোকে বেছে নেওয়া হয়েছে। জানা গিয়েছে, কুচকাওয়াজের সময় কমাতেই এবার ট্যাবলোর সংখ্যা কম রাখা হয়েছে।বুধবার প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের তরফে জারি করা বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘বিশেষজ্ঞ কমিটির পরপর দু’টি বৈঠকে পশ্চিমবঙ্গের ট্যাবলো নিয়ে আলোচনা হয়। কিন্তু তারপর আর কথা এগোয়নি।’ সূত্রের খবর ‘কন্যাশ্রী’, ‘সেভ গ্রিন, স্টে ক্লিন’, ‘জল ধরো, জল ভরো’, এই তিন ট্যাবলোর প্রস্তাব পাঠিয়েছিল রাজ্য। কেন্দ্রেরও প্রায় একই রকম প্রকল্প আছে। এই যুক্তি দেখিয়ে রাজ্যের প্রস্তাব খারিজ করেছে কেন্দ্র।

[আরও পড়ুন: CAA বিরোধী আন্দোলন চলছেই, বছরের প্রথম দিনই বন্ধ থাকল দিল্লির ৫ মেট্রো স্টেশন]

যদিও ট্যাবলো বাতিল হওয়ার খবর লিখিতভাবে কেন্দ্রের তরফে জানানো হয়নি বলেই দাবি করেছে রাজ্য প্রশাসন। ২০১১ সালে বাংলার মুখ্যমন্ত্রীর দায়িত্ব নেওয়ার পরে দিল্লিতে সাধারণতন্ত্র দিবসের কুচকাওয়াজে বাংলার অংশগ্রহণের বিষয়ে বিশেষ উদ্যোগী হন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁরই উৎসাহে দীর্ঘ ১২ বছর পরে ২০১২ সালে দিল্লিতে প্রজাতন্ত্র দিবসের প্যারেডে যোগ দিয়েছিল রাজ্য। সে বার বাংলার প্যারেডের থিম ছিল পুরুলিয়ার ছৌ নৃত্য। ২০১২ সালে পশ্চিমবঙ্গের ট্যাবলো প্রথম স্থান অধিকার করে। 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে