১৪  আশ্বিন  ১৪২৯  সোমবার ৩ অক্টোবর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

নেপথ্যে চিনা জুজু! জরুরি ভিত্তিতে সেনার অস্ত্র কেনার ক্ষমতার মেয়াদ বাড়াল কেন্দ্র

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: November 12, 2021 5:56 pm|    Updated: November 12, 2021 5:56 pm

Defense Ministry Extends Emergency Powers Granted to Army to Buy Ammunition| Sangbad Pratidin

ফাইল ফোটো

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: চিন (China) ও পাকিস্তান (Pakistan) সীমান্তে এখনও উত্তেজনা রয়েছে। বিশেষত প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায় (LAC) চিন নিয়ে ভারতের অস্বস্তি অব্যাহত। কারণ চিনের লাগাতার আগ্রাসন। ক’ দিন আগেই মার্কিন প্রতিরক্ষা দপ্তরের রিপোর্টে উঠে এসেছিল চাঞ্চল্যকর তথ্য। জানা গিয়েছিল, অরুণাচলের সীমান্তে আস্ত একটা গ্রাম বানিয়ে ফেলেছে চিন। এমন পরিস্থিতিতে ভারতীয় সেনা (Indian Army) বাহিনীর তিন শাখা- স্থলসেনা, নৌসেনা এবং বায়ুসেনাকে প্রয়োজনে অস্ত্র এবং গোলাবারুদ কেনার যে বিশেষ আর্থিক ক্ষমতা দেওয়া হয়েছিল, সেই ক্ষমতার মেয়াদ আরও একবার বাড়াল কেন্দ্রীয় সরকার।

প্রতিরক্ষা মন্ত্রক সূত্রে খবর, প্রয়োজনে তিন বাহিনীর এই বিশেষ ক্ষমতাকে আরও শক্তিশালী করা হতে পারে। এইসঙ্গে জানা গিয়েছে, আপাতত স্থলসেনা, নৌসেনা ও বায়ুসেনা এই বিশেষ আর্থিক ক্ষমতার মেয়াদ নতুন করে তিন মাস বাড়িয়ে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত করা হয়েছে। সীমান্তে উত্তেজনার ভিত্তিতে ভারতীয় সেনাবাহিনীর তিন শাখার এই জরুরি আর্থিক ক্ষমতা তৃতীয়বার বাড়ানো হল। এর আগে ২০২০ সালের ডিসেম্বর মাস থেকে ২০২১ সালের মার্চ পর্যন্ত মেয়াদ বাড়ানো হয়েছিল। পরে আগস্ট পর্যন্ত বাড়ানো হয় সময়সীমা। এবার চলতি বছরের ৩১ ডিসেম্বর অবধি বাড়ানো হল সেনার জরুরি ভিত্তিতে অস্ত্র কেনার আর্থিক ক্ষমতা ।

[আরও পড়ুন: মাথার দাম ছিল ৫০ লক্ষ, গ্রেপ্তার কুখ্যাত মাওবাদী নেতা প্রশান্ত বসু]

উল্লেখ্য, গত বছরে লাদাখের প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায় চিন-ভারত সঙ্ঘাতের সময়ে সশস্ত্র বাহিনীর তিন শাখাকে জরুরি ভিত্তিতে অস্ত্র কেনার ক্ষমতা দিয়েছিল ভারত সরকারের প্রতিরক্ষা মন্ত্রক। সেই সময়েই ৫০০ কোটি টাকা পর্যন্ত অস্ত্র কিংবা বিভিন্ন ধরনের সামরিক সরঞ্জাম কেনার ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছিল কেন্দ্রের তরফে।

[আরও পড়ুন: গত ৭ বছরে দেশে ১৯ গুণ বেড়েছে ডিজিটাল লেনদেন’, জানালেন প্রধানমন্ত্রী]

প্রতিরক্ষা মন্ত্রক সূত্রে খবর, তিন বাহিনীর জন্য অস্ত্র কেনার ক্ষেত্রে পদ্ধতিগত কিছু পরিবর্তনও আনতে চাইছে কেন্দ্রীয় সরকার। জানা গিয়েছে, একই ধরনের সুপারিশ করেছেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিংও (Rajnath Singh)।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে