BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

শাহিনবাগের বিক্ষোভকারী দলে কেন? চরম অসন্তোষ দিল্লি বিজেপির অন্দরে

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: August 22, 2020 11:34 am|    Updated: August 22, 2020 11:34 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:‌ সপ্তাহখানেক আগেই গোটা দেশের রাজনৈতিক মহলকে রীতিমতো চমকে দিয়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন শাহিনবাগের (Shaheen Bagh) বিক্ষোভকারীদের নেতা শাহজাদ আলি। শুধু তাই নয়, যোগ দিয়েই তিনি রীতিমতো ঘোষণা করে দেন, ‘‌বিজেপি মুসলিমদের শত্রু নয়।’‌কিন্তু শাহজাদের এই যোগদান দিল্লি বিজেপির একাংশ একেবারেই ভালভাবে নেয়নি। তাঁদের দাবি, সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ওই নেতা দলে যোগ দেওয়ায় আসলে বিজেপির উপকারের থেকে ক্ষতি বেশি হয়েছে। রাজ্য নেতৃত্বের এই সিদ্ধান্ত রীতিমতো ‘বিপর্যয়’ ডেকে আনবে।

উল্লেখ্য, গতবছর সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (Citizenship Amendment Act) পাশ হওয়ার পর দেশজুড়ে বহু মানুষ এর বিরোধিতায় সরব হন। আর CAA বিরোধী সেই আন্দোলনের পথিকৃৎ ছিল শাহিনবাগ। ডিসেম্বর থেকে চলতি বছর মার্চ মাস পর্যন্ত সিএএ বিরোধী আন্দোলনে চলেছে রাজধানীর ওই অঞ্চলে। শাহিনবাগে হাজার হাজার সংখ্যালঘু মহিলা অনির্দিষ্টকালের জন্য ধরনাতেও বসেন। শেষমেশ করোনা পরিস্থিতির জন্য সেই ধরনা প্রত্যাহার করা হয়। কিন্তু প্রতীকী আন্দোলন এখনও চলছে। শাহিনবাগ আন্দোলনকে কেন্দ্র করে রাজধানী দিল্লির (Delhi) বুকে হিংসার আগুনও জ্বলেছে।

[আরও পড়ুন: বরাত পাওয়ার দৌড়ে চিনা সংস্থা! ৪৪টি সেমি হাই স্পিড ট্রেনের টেন্ডার বাতিল রেলের]

অথচ, সেই শাহিনবাগ আন্দোলনেরই অন্যতম নেতা এখন বিজেপিতে। দলের একাংশ মনে করছে, এতে বিজেপির লোকসানই বেশি। গেরুয়া শিবিরের এক নেতা সংবাদসংস্থা পিটিআইকে জানিয়েছেন,”এই যোগদানের ফলে দল দোটানায় পড়ে গিয়েছে। শুধু CAA বিরোধী আন্দোলনের জন্য নয়। ফেব্রুয়ারিতে ওই এলাকায় দাঙ্গাও হয়েছিল। সেটাও মনে রাখা দরকার। দলের কর্মীরা এতে অসন্তুষ্ট।” আরেক বিজেপি নেতার আবার দাবি, এই যোগদানের ফলে দলের কেন্দ্রীয় নেতৃত্বও অখুশি। তাঁরা দিল্লির রাজ্য নেতাদের ডেকে পাঠিয়ে ভবিষ্যতে এই ধরনের রাজনৈতিক বিপর্যয় ডেকে আনার আগে পরামর্শ নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। যদিও প্রকাশ্যে এই অসন্তোষের কথা কেউই স্বীকার করতে চাননি। 

[আরও পড়ুন: সাইকেল চালাতে গিয়ে পড়েই গেলেন বাবা রামদেব, নেটদুনিয়ায় ভিডিও ভাইরাল]

রাজনৈতিক মহলের পর্যবেক্ষণ, শাহিনবাগের বিক্ষোভকারী নেতা যোগ দেওয়ায় শাখের করাত হয়েছে বিজেপির। একদিকে যেমন গেরুয়া শিবিরের হিন্দুত্ববাদী ভাবমূর্তিতে ধাক্কা লেগেছে, অন্যদিকে তেমনি আপের হাতে চলে এসেছে নতুন অস্ত্র। তাঁরা ইতিমধ্যেই শাহিনবাগের বিক্ষোভকে সাজানো ঘটনা বলে প্রচার শুরু করেছে। 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement