BREAKING NEWS

৯ আষাঢ়  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ২৪ জুন ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

বাড়ছে সংক্রমণ, এবার ব্ল্যাক ফাঙ্গাসকে মহামারী ঘোষণা দিল্লি সরকারের

Published by: Abhisek Rakshit |    Posted: May 27, 2021 9:00 pm|    Updated: May 27, 2021 9:00 pm

Delhi Government notifies Black Fungus as a disease under the Epidemic Diseases Act | Sangbad Pratidin

প্রতীকী ছবি।

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রাজস্থান, তেলেঙ্গানা, পাঞ্জাব, পশ্চিমবঙ্গ-সহ একাধিক রাজ্যের দেখানো পথেই এবার হাঁটল দিল্লিও (Delhi)। বৃহস্পতিবারই সে রাজ্যেও মিউকোরমাইকোসিস (Mucormycosis) বা ব্ল্যাক ফাঙ্গাসকে মহামারী (Epidemic) ঘোষণা করা হল। নির্দেশিকা জারি করলেন দিল্লির উপ-রাজ্যপাল অনিল বৈজল।

 

করোনার পাশাপাশি দেশে আতঙ্ক ছড়াচ্ছে মিউকোরমাইকোসিস (Mucormycosis) বা ব্ল্যাক ফাঙ্গাস। দেশের বিভিন্ন রাজ্যে ইতিমধ্যে একাধিক আক্রান্তের হদিশও মিলেছে। বাংলাতেও বেশ কয়েকজন এই রোগে আক্রান্ত এই পরিস্থিতিতে রাজস্থান, তেলেঙ্গানা, পশ্চিমবঙ্গ-সহ একাধিক রাজ্য আগেই এই রোগকে মহামারী আইনের অন্তর্ভুক্ত করেছিল। এবার সেই তালিকায় নাম লেখাল দিল্লিও। এদিন উপ-রাজ্যপাল রাজ্যের সরকার মহামারী আইন, ১৮৯৭ অনুসারে ব্ল্যাক ফাঙ্গাসের সংক্রমণকে ‘মহামারী’ বলে ঘোষণা করে। প্রসঙ্গত, বর্তমানে দিল্লিতে এই রোগে ৬০০-রও বেশি মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন বলে খবর। ঠিক কী এই মিউকরমাইকোসিস? জানা যাচ্ছে কালো ছত্রাক নামে পরিচিত এই ছত্রাকটি বাসা বাঁধছে করোনায় (Coronavirus) আক্রান্ত রোগীদের ফুসফুসে। রোগ প্রতিরোধ কমে যাওয়ার দরুনই এই বিপত্তি। এর আগেও অবশ্য বহু রোগীর প্রাণ কেড়েছে এই ছত্রাক। ফুসফুস প্রতিস্থাপন কিংবা আইসিইউয়ে থাকা রোগীর ক্ষেত্রে ঘাতকের ভূমিকায় দেখা গিয়েছে তাকে। করোনা পর্বে সে নতুন করে বিপদ বাড়াচ্ছে।

[আরও পড়ুন: স্রেফ সোশ্যাল মিডিয়ায় জনপ্রিয়তা পেতে পোষা কুকুরকে বেলুনে বেঁধে উড়িয়ে গ্রেপ্তার ইউটিউবার!]

এদিকে, দেশে কিছুটা হলেও কমেছে করোনায় দৈনন্দিন আক্রান্তের সংখ্যা। বৃহস্পতিবার সকালে স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রকের (Ministry of Health and Family Welfare) দেওয়া পরিসংখ্যান বলছে, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ২ লক্ষ ১১ হাজার ২৯৮ জন করোনা (Coronavirus) আক্রান্ত হয়েছেন। সবমিলিয়ে এই মুহূর্তে দেশে অ্যাকটিভ কেস ২৪ লক্ষ ১৯ হাজার ৯০৭ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়ে ফিরেছেন ২ লক্ষ ৮৩ হাজার ১৩৫ জন, যা দৈনিক আক্রান্তের তুলনায় অনেকটাই বেশি। এই পরিস্থিতিতে আগামী ৩০ জুন পর্যন্ত করোনা রুখতে নয়া গাইডলাইন প্রকাশ করল কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক। তবে নির্দেশিকায় কোনও বিশেষ পরিবর্তন করা হয়নি। পূর্বে জারি করা নির্দেশিকাই মেনে চলতে বলা হয়েছে। তবে এর পাশাপাশি স্থানীয় স্তরে সংক্রমণ রুখতে রাজ্য প্রশাসনকে বিশেষ জোর দেওয়ার পরামর্শও দিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক।

 

[আরও পড়ুন: করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে প্রথমবারের মতো ক্ষতির মুখে পড়েনি ভারতের অর্থনীতি, দাবি রিজার্ভ ব্যাংকের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement