Advertisement
Advertisement
নির্বাচনের আগের রাতে প্রকাশ্যে খুন মহিলা এসআই

ফের দিল্লিতে গুলি, নির্বাচনের আগের রাতে প্রকাশ্যে খুন মহিলা পুলিশ কর্মী

জাফরাবাদের CAA বিরোধী আন্দোলনস্থলেও চলল গুলি।

Delhi woman cop shot dead while walking home from metro station.
Published by: Paramita Paul
  • Posted:February 8, 2020 9:06 am
  • Updated:February 8, 2020 9:06 am

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফের গুলি চলল দিল্লিতে। জামিয়ার পড়ুয়া, শাহিনবাগের আন্দোলনকারীদের পর এবার নিশানায় এক মহিলা পুলিশ কর্মী। বিধানসভা নির্বাচনের আগের রাতে, শুক্রবার দুষ্কৃতীদের গুলিতে প্রকাশ্যে খুন হলেন এক মহিলা সাব ইন্সপেক্টর। তাকে লক্ষ্য করে পরপর তিনবার গুলি চালায় দুষ্কৃতী। গোটা ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। তার আগে সন্ধ্যেবেলা জাফরাবাদে CAA বিরোধী আন্দোলনস্থলের কাছে  শূন্যে গুলি চালায় কয়েকজন দুষ্কৃতী। তবে কেউ জখম হননি। এদিনের ঘটনা দিল্লিতে মহিলাদের নিরাপত্তা ব্যবস্থাকে আরও একবার বেআব্রু করে দিল বলেই মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল। আমজনতার প্রশ্ন, যে শহরে একজন পুলিশ কর্মীই সুরক্ষিত নন, সেখানে আম আদমীর কী হবে!

স্থানীয় সূত্রে খবর, রাত সাড়ে ন’টা নাগাদ অফিস থেকে ফিরছিলেন মহিলা পুলিশ কর্মী প্রীতি অহলাট। রোহিনি এলাকার মেট্রো স্টেশন থেকে বেরানোর পরই তাঁকে লক্ষ্য করে গুলি চালায় দুষ্কতীরা। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, পরপর তিনবার গুলি চালানো হয়। ঘটনাস্থলেই লুটিয়ে পড়েন প্রীতি। গুলির আওয়াজ শুনে সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন পুলিশ কর্মীরা। প্রীতিকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলেও তাকে বাঁচানো যায়নি। সিসিটিভি ফুটেজ দেখে দুষ্কৃতীকে চিহ্নিত করা গিয়েছে বলে খবর। তবে এখনও তার হদিশ মেলেনি। কে বা কারা, কেন প্রীতিকে খুন করল তা নিয়েও উঠছে প্রশ্ন।

Advertisement

[আরও পড়ুন : আইআরসিটিসি টিকিটের কালোবাজারি, আয়ের অধিকাংশ যাচ্ছে সন্ত্রাসবাদীদের হাতে]

জানা গিয়েছে, ২০১৮ সালে কাজে যোগ দেওয়া প্রীতি প্রতাপগঞ্জ শিল্পাঞ্চল এলাকায় কর্তব্যরত ছিলেন। কিন্তু কেন তাঁকে এভাবে খুন করা হল, তা নিয়ে পুলিশের তরফে কিছুই জানানো হয়নি। এদিকে নির্বাচনের আগের রাতেই প্রকাশ্যে পুলিশ কর্মীর খুনের ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। অথচ নির্বাচনের কথা মাথায় রেখে গোটা রাজধানী নিরাপত্তায় মুড়ে ফেলা হয়েছে। বিভিন্ন এলাকায় চলছে নাকা চেকিং। তারমধ্যেই কীভাবে এই ঘটনা ঘটল তা নিয়ে উঠছে প্রশ্ন। এদিকে শুক্রবার সন্ধ্যেয় জাফরাবাদের আন্দোলনস্থল থেকে মাত্র ৪০০ মিটার দূরে কেউ বা কারা গুলি চালায়। প্রতিবাদীদের দাবি, ভয় দেখাতে বাইকে চেপে আসে গুলি চালায় দুষ্কৃতীরা। যদিও পুলিশের দাবি, ব্যক্তিগত শত্রুতার জেরে কেউ গুলি চালিয়েছে।

Advertisement

[আরও পড়ুন : নির্বাচনের আগে ইষ্টনাম জপ, শেষবেলায় মন্দিরে কেজরিওয়াল-মনোজ]

প্রসঙ্গত, দিল্লিতে পরপর গুলি চলার ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। ইতিপূর্বে জামিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়াদের মিছিল লক্ষ্য করে গুলি চালিয়েছিল এক নাবালক। এর ২৪ ঘণ্টার মধ্যে শাহিনবাগে আন্দোলনকারীদের লক্ষ্য করে গুলি ছোঁড়ে এক যুবক। যার রাজনৈতিকর পরিচয় নিয়ে তুঙ্গে উঠেছে তরজা। এরপর ফের জামিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের পাঁচ নম্বর গেটের কাছে গুলি চালানো হয়। পরপর এধরণের ঘটনায় কার্যত আতঙ্কে ভুগছেন দিল্লিবাসী। 

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ