BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

এবার মহারাষ্ট্রেও ‘অপারেশন কমল’? অমিত শাহ-ফড়ণবিস বৈঠক ঘিরে জল্পনা

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: July 18, 2020 2:05 pm|    Updated: July 18, 2020 3:43 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মধ্যপ্রদেশে ইতিমধ্যেই সফল হয়েছে ‘অপারেশন কমল’। রাজস্থানেও টালমাটাল অবস্থা কংগ্রেস সরকারের। এবার কি লক্ষ্য মহারাষ্ট্র? রাজস্থানের রাজনৈতিক ডামাডোলের মধ্যে মহারাষ্ট্রের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফড়ণবিস (Devendra Fadnavis) এবং স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহর একটি বৈঠক ঘিরে এই জল্পনা উসকে গিয়েছে। বৈঠক শেষ ফড়ণবিসের একটি মন্তব্য জল্পনায় খানিকটা ঘৃতাহুতি দিয়েছে। অমিত শাহর সঙ্গে বৈঠক শেষে মহারাষ্ট্রের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বলছেন, “মহারাষ্ট্রের মহা বিকাশ আগাড়ির এই সরকার এমনিই পড়ে যাবে।”

জন্মলগ্ন থেকেই মহারাষ্ট্রের মহাজোটের সরকার নড়বড়ে। বিজেপিকে (BJP) ক্ষমতা থেকে দূরে সরিয়ে রাখার জন্য রাজনৈতিকভাবে সম্পূর্ণ বিপরীত মেরুতে থাকা শিব সেনার (Shiv Sena) সঙ্গে জোট করে সরকার গঠন করেছিল কংগ্রেস (Congress) এবং এনসিপি (NCP)। মুখ্যমন্ত্রী হয়েছিলেন উদ্ধব ঠাকরে। কিন্তু তারপর থেকে ছোটখাটো ইস্যুতে জোটসঙ্গীদের মধ্যে কোন্দল লেগেই আছে। অনেক ক্ষেত্রেই কংগ্রেসকে অপেক্ষাকৃত বড় সঙ্গীদের বিরুদ্ধে বঞ্চনার অভিযোগ করতে দেখা গিয়েছে। আবার অভিযোগ উঠেছে মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব হলেও তাঁকে নিয়ন্ত্রণ করছেন শরদ পওয়ার। খুব সম্প্রতি জোটসঙ্গীদের মধ্যে কোন্দলের খবর শোনা গিয়েছে বিধান পরিষদের নির্বাচন নিয়ে। কিছু সচিব এবং পুলিশ প্রশাসন স্তরে রদবদল নিয়েও বিবাদের খবর পাওয়া গিয়েছে।

[আরও পড়ুন: গেহলট সরকারের বিরুদ্ধে চাঞ্চল্যকর অভিযোগ, সিবিআই তদন্তের দাবি বিজেপির]

এসবের মধ্যে আচমকাই ফড়ণবিস এবং অমিত শাহর (Amit Shah) বৈঠকে জল্পনা ছড়ানোটাই স্বাভাবিক। তবে, মহারাষ্ট্রের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী এই বৈঠককে সম্পূর্ণ অরাজনৈতিক বলে দাবি করেছেন। তিনি বলছেন, “বৈঠকে কোনও রাজনৈতিক আলোচনা হয়নি। এটা করোনার বিরুদ্ধে লড়াই করার সময়। আমরা রাজ্যের সরকার ফেলতে আগ্রহী নই। তাছাড়া আমরা তো আগেই বলেছি, এই সরকার এমনি নিজেদের শরিকি কোন্দলের জন্যই পড়ে যাবে।” ‘সরকার ফেলতে আগ্রহী নই’, বলার পরও ফড়ণবিস যেভাবে এই সরকার ‘শরিকি কোন্দলে’ পড়ে যাবে বলে দাবি করলেন, তাতেই সিঁদুরে মেঘ দেখছে মহারাষ্ট্রের শাসক শিবির। কারণ, বিজেপির অতীত রেকর্ড বলছে, তাঁরা সরকার ফেলতে ওস্তাদ।

তাৎপর্যপূর্ণভাবে শনিবারই শিব সেনার মুখপত্র ‘সামনা’য় ফড়ণবিসের ঢালাও প্রশংসা করা হয়েছে। ‘সামনা’য় বলা হয়েছে, ‘দেবেন্দ্র ফড়ণবিস তরুণ এবং বুদ্ধিদীপ্ত। বিরোধী নেতা হিসেবে খুব ভাল কাজ করছেন।’ 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement