BREAKING NEWS

৬ মাঘ  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ২০ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

“৫০-৫০ ফর্মুলা ভুলে যান, বিজেপির নেতৃত্বেই সরকার হবে”, দাবি ফড়ণবিসের

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: October 27, 2019 1:47 pm|    Updated: October 27, 2019 1:47 pm

Devendra Fadnavis says BJP-led alliance will provide a stable government

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মহারাষ্ট্রে এনডিএ-র দুই শরিকের মধ্যে তিক্ততা বাড়ছে। মুখ্যমন্ত্রী পদ নিয়ে বিবাদ মিটছে না দুই শরিকের। নির্বাচনে বিজেপির আসন কমায় নিজেদের মুখ্যমন্ত্রিত্বের দাবি জোরাল করেছে শিব সেনা। ভোটের আগে ঠিক হওয়া ৫০-৫০ ফর্মুলা মেনে আড়াই বছরের জন্য শিব সেনা থেকে মুখ্যমন্ত্রী করার দাবিতে সরব হয়েছে উদ্ধব ঠাকরের দল।

আসলে উদ্ধব নিজের ছেলে আদিত্য ঠাকরেকে আড়াই বছরের জন্য মুখ্যমন্ত্রী করতে চাইছেন। সেনার সেই প্রস্তাব যে মানা হবে না, তা সাফ জানিয়ে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফড়ণবিস। তিনি বলছেন, মহারাষ্ট্রের মানুষ বিজেপি জোটের পক্ষে জনমত দিয়েছে, আর বিজেপি জোটের নেতৃ্ত্বেই সরকার হবে।

[আরও পড়ুন: ছেলে জোটে আসতেই গারদের বাইরে বাবা, তিহার জেল থেকে মুক্ত অজয় চৌটালা]

২৮৮ আসন বিশিষ্ট মহারাষ্ট্র বিধানসভায় বিজেপি পেয়েছে ১০৫টি আসন। যা জাদু সংখ্যার চেয়ে অনেকটাই কম। শিব সেনার হাতে ৫৬ বিধায়ক। যৌথভাবে এই দুই দলের সরকার গড়তে কোনও সমস্যা হওয়ার কথা নয়। কিন্তু, একক বৃহত্তম দল বিজেপি শিব সেনার মুখ্যমন্ত্রিত্বের দাবি মানতে নারাজ। ফড়ণবিস বলছেন, “জনাদেশ পরিষ্কার বিজেপি-শিব সেনা, আরপিআই, আরএসপি, শিব সংগ্রাম জোটের পক্ষে। এই জনাদেশকে সম্মান করতে হবে। এই জনাদেশ অনুযায়ী বিজেপিই একক বৃহত্তম দল। আমরা দিওয়ালির পরই বিধানসভার দলনেতা নির্বাচন করব এবং তার পরপরই শপথগ্রহণ অনুষ্ঠান হবে। বিজেপি নেতৃত্বাধীন সরকার শক্তিশালী ও স্থায়ী হবে। তাছাড়া আগেরবারের তুলনায় আমাদের স্ট্রাইক রেট অনেক বেশি। আগেরবার আমরা ২৬০ আসনে লড়ে ১২২টি পেয়েছিলাম। এবার মাত্র ১৫০ আসনে লড়ে ১০৫টি জিতেছি।”

[আরও পড়ুন: তিন দশকে প্রথম, সঞ্চিত সোনা বেচে লাভের টাকা কেন্দ্রকে দিচ্ছে রিজার্ভ ব্যাংক]

মুখ্যমন্ত্রী ফড়ণবিসের এই মন্তব্যেই পরিষ্কার, শিব সেনার মুখ্যমন্ত্রিত্বের দাবি কোনওভাবেই মানতে নারাজ বিজেপি। যদি বিজেপি তাদের দাবি না মানে তাহলে অবশ্য বিকল্প পথ খোলা রাখছে সেনা। সেক্ষেত্রে সরকার গড়ার জন্য এনসিপি’র সঙ্গে জোট বাঁধতে পারে তারা। কিন্তু সেই জোট কংগ্রেস মানবে কিনা সে বিষয়ে সন্দেহ রয়েছে। শুক্রবারই শিব সেনার সাংসদ একটি ব্যঙ্গচিত্র পোস্ট করে বুঝিয়ে দিয়েছেন, শরদ পওয়ারের হাত ধরতে তাদের আপত্তি নেই।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে