BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘হাতে টাকা নেই’, লকডাউন উপেক্ষা করে প্রতিবাদে নামল কয়েকশো ঠিকা শ্রমিক

Published by: Paramita Paul |    Posted: April 12, 2020 2:54 pm|    Updated: April 12, 2020 7:07 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ‘জান’ বাঁচাতে দেশজুড়ে লকডাউন জারির দাওয়াই দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। ২১ দিন ধরে ঘরবন্দী দেশবাসী। ফলে কোনও কাজ নেই, নেই হাতে টাকাও। সরকার সাহায্যের আশ্বাস দিয়েছে। কিন্তু অনেক ক্ষেত্রেই তার সুবিধা তৃণমূলস্তর পর্যন্ত মিলছে না বলে অভিযোগ উঠছে। এবার লকডাউনের মাঝে প্রয়োজনীয় সামগ্রী কেনার টাকা না পেয়ে আন্দোলনে নামলেন পরিযায়ী শ্রমিকরা। রবিবার সকাল থেকে তামিলনাড়ুর মাদুরাইয়ের ইয়াগাপ্পা নগরের এমজিআর স্ট্রিটের রাস্তা জড়ো হয়েছেন কয়েক শো ঠিকা শ্রমিক। চলছে আন্দোলন। গোটা এলাকা পুলিশ ঘিরে রেখেছে বলে খবর।

করোনা সংক্রমণে ত্রস্ত গোটা বিশ্ব। ভারতও তার করাল গ্রাস থেকে রেহাই পায়নি। দেশে আক্রান্ত বেড়ে দাঁড়িয়েছে প্রায় আট হাজার। মৃত্যুও বাড়ছে। এমন পরিস্থিতিতে সংক্রমণ এড়াতে ভরসা একমাত্র সামাজিক দূরত্ব (Social Distancing) বজায় রাখা। লকডাউন মেনে চলতে আবেদন জানাচ্ছে প্রশাসন। জরুরি পরিষেবা ছাড়া বন্ধ আর সবই। ফলে সব কল-কারখানায় উৎপাদন বন্ধ। কাজ হারিয়েছেন বহু ঠিকা শ্রমিক। নগদের জোগানে টান পড়েছে। অনেক ক্ষেত্রেই খেতে পাচ্ছেন না তাঁরা। এই পরিস্থিতির প্রতিবাদেই আন্দোলনে নেমেছে ঠিকা শ্রমিকরা।

[আরও পড়ুন : সংক্রমণ ছড়াতে পারেন পরিযায়ী শ্রমিকরা, রিপোর্টে আশঙ্কা প্রকাশ বিশ্ব ব্যাংকের]

প্রসঙ্গত, এমজিআর স্ট্রিট এলাকাকে কনটেইনমেন্ট জোন (Containment Zone) হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। সতর্কতামূলক পরিস্থিতি হিসেবে সিল করে দেওয়া হয়েছে গোটা এলাকা। তারমধ্যে এদিন ঠিকা শ্রমিকদের আন্দোলনের জেরে বিপদ আরও বেড়েছে। এদিকে আন্দোলনরত শ্রমিকদের অভিযোগ, “লকডাউনের জেরে কল-কারখানা বন্ধ। রোজগার বন্ধ হয়ে রয়েছে। এদিকে পরিবার চালাতে হিমশিম খেতে হচ্ছে আমাদের।” তাই আর্থিক সাহায্যের দাবিতে এদিন সংক্রমণের ভয় উপেক্ষা করে রাস্তায় নামলেন তাঁরা।  

[আরও পড়ুন : করোনায় আক্রান্ত থানের পুলিশ আধিকারিক, কোয়ারেন্টাইনে আরও ৩৫]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement