BREAKING NEWS

১৩ ফাল্গুন  ১৪২৭  শুক্রবার ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

‘নিজেদের সময়ে কী করেছিলেন?’, কংগ্রেসকে বিঁধে কৃষি আইনের পক্ষে সওয়াল অমিত শাহর

Published by: Biswadip Dey |    Posted: January 17, 2021 4:25 pm|    Updated: January 17, 2021 5:00 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিতর্কিত কৃষি আইন (Farm Laws) নিয়ে সরকার এবং কৃষকদের মধ্যে ৯ দফা বৈঠক হয়েছে। আরও এক দফা বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে শিগগিরি। কিন্তু এখনও মেলেনি কোনও রফাসূত্র। ক্রমশ ক্ষোভের সুর চড়াচ্ছেন কৃষকরা। এরই মধ্যে রবিবার নতুন কৃষি আইনের পক্ষে সওয়াল করলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ (Amit Shah)। তাঁর দাবি, নয়া আইনের ফলে কৃষকদের রোজগার দ্বিগুণ হবে। সেই সঙ্গে কংগ্রেসকেও কটাক্ষ করতে শোনা গেল তাঁকে।

দু’দিনের কর্ণাটক (Karnataka) সফরে গিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। এদিন রাজ্যের বাগালকোটে এক জনসভায় এভাবেই কেন্দ্রের হয়ে নতুন করে বিতর্কিত কৃষি আইনের পক্ষে সওয়াল করলেন তিনি। বরাবরের মতো মোদি সরকারের বক্তব্যের সুরই শোনা গেল তাঁর গলায়। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দাবি, কৃষকদের রোজগার দ্বিগুণ করাই মোদি সরকারের প্রধান লক্ষ্য। তাঁর কথায়, ”মোদি সরকার কৃষকদের কল্যাণের জন্য দায়বদ্ধ। নতুন কৃষি আইন কৃষকদের নানাভাবে উপকৃত করবে। এখন কৃষকরা দেশ তথা বিশ্বের যে কোনও জায়গায় গিয়ে তাঁদের কৃষিপণ্য বেচতে পারবেন।” এরই পাশাপাশি কংগ্রেসের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়ে তিনি বলেন, ”কৃষকদের হয়ে কথা বলছেন যে কংগ্রেস নেতারা তাঁদের বলতে চাই, বার্ষিক ৬ হাজার টাকার ‘প্রধানমন্ত্রী ফসল বিমা যোজনা’ আপনারা আনতে পারলেন না কেন যখন ক্ষমতায় ছিলেন? আসলে আপনাদের উদ্দেশ্যই তো ঠিক ছিল না।”

[আরও পড়ুন : ‘প্রধানমন্ত্রী পদের মর্যাদা রাখতে PM CARES-এর হিসাব দিন’, মোদিকে চিঠি ১০০ প্রাক্তন আমলার]

প্রসঙ্গত, গত শুক্রবারই দিল্লিতে লেফটেন্যান্ট গভর্নর অনিল বৈজলের বাসভবনের সামনে বিক্ষোভ দেখিয়েছিলেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী (Rahul Gandhi) ও প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর মতো শীর্ষস্থানীয় কংগ্রেস নেতানেত্রীরা। দাবি জানান, অবিলম্বে তিন বিতর্কিত কৃষি আইন প্রত্যাহার করে নিতে হবে। দিনটিকে ‘কিষাণ অধিকার দিবস’ হিসেবে পালন করেছিল কংগ্রেস। কৃষি আইন নিয়ে পুরোদস্তুর ঝাঁপানোর পরিকল্পনা নিয়েছে কংগ্রেস। এবার সেই বিষয়কে মাথায় রেখেই সম্ভবত রবিবার বৃহত্তম বিরোধী দলকে এভাবে আক্রমণ করলেন অমিত শাহ। এদিকে কৃষক সংগঠনের নেতারা মনে করছেন, আলোচনার প্রক্রিয়া দীর্ঘায়িত করে সরকার কৃষকদের ঐক্যে চিড় ধরাতে চাইছে। অল ইন্ডিয়া কিষাণ সভার (All India Kisan Sabha) নেতা হান্নান মোল্লা রবিবার এমনই দাবি করেন।

[আরও পড়ুন: ‘NIA-কে দিয়ে কৃষকদের ভয় দেখানো হচ্ছে’, বিজেপিকে তোপ প্রাক্তন জোটসঙ্গী অকালি দলের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement