BREAKING NEWS

১ আশ্বিন  ১৪২৭  শুক্রবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

লেজার গানে ছাই হয়ে যাবে দুশমন, ‘স্টার ওয়ার্স’-এর আদলে অস্ত্র তৈরির প্রস্তুতি ভারতের

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: September 14, 2020 2:02 pm|    Updated: September 14, 2020 2:02 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: হলিউডের ‘স্টার ওয়ার্স’ সিরিজের ছবিগুলির জনপ্রিয়তা আজও তুঙ্গে। লেজার গান, মারাত্মক রশ্মি তলোয়ার ও হাই-টেক মহাকাশযানের গায়ে কাঁটা দেওয়া লড়াইয়ে বেশ আঁকা হয়েছে ভিবিষ্যতের সেনাবাহিনীর ছবি। তবে কাল্পনিক ওই বাহিনী ও হাতিয়ারগুলির থেকেই অনুপ্রেরণা নিয়ে এবার উচ্চক্ষমতাসম্পন্ন লেজার ও মাইক্রোওয়েব হাতিয়ার তৈরি করার পরিকল্পনা নিয়েছে প্রতিরক্ষা গবেষণা ও উন্নয়ন সংস্থা (DRDO)।

[আরও পড়ুন: ফের ‘ব্যর্থ’ সামরিক আলোচনা, প্যাংগংয়ের দক্ষিণ প্রান্তে ঢিল ছোঁড়া দূরত্বে ভারত-চিনের সেনা]

রশ্মি ও তরঙ্গ নির্ভর এই হাতিয়ারগুলি মূলত ‘directed energy weapons’ (DEWs) ক্যাটাগরির। এই হাতিয়ারগুলি থেকে শত্রুপক্ষের মিসাইল, ট্যাংক বা যে কোনও হাতিয়ারে লেজারের মতো তীব্র রশ্মি ফেলে তা ধ্বংস করে দেওয়া সম্ভব। এছাড়া, উচ্চক্ষমতাসম্পন্ন মাইক্রোওয়েব বিস্ফোরণ ঘটিয়ে শত্রুপক্ষের অত্যাধুনিক কম্পিউটার সিস্টেম খতম করে দেওয়া সম্ভব। এর ফলে যুদ্ধবিমান থেকে রাডার সিস্টেম সবই অকেজো হয়ে যাবে। এই হাতিয়ারগুলিতে বারুদ বা গোলা ব্যবহার না হওয়ায় অতিরিক্ত বোঝা বহন করার প্রয়োজন পড়ে না। এবং ধামাকা না হওয়ায় অত্যন্ত গোপনভাবে হামলা চালানো সম্ভব।

জানা গিয়েছে, দেশীয় অস্ত্র নির্মাণকারী সংস্থাগুলির সঙ্গে মিলিতভাবে ১০০ কিলোওয়াট ক্ষমতার DEW হাতিয়ার তৈরি করার পরিকল্পনা করছে DRDO। সূত্রের খবর, ‘কালি’ নামের এক রহস্যময় লেজার গান তৈরি করছে ভারতীয় সেনা। এছাড়াও, একাধিক গোপন হাতিয়ার নিয়ে পরীক্ষানিরীক্ষা চলছে। তবে সেগুলিকে যুদ্ধক্ষেত্রে কার্যক্ষম করতে এখনও সময়ের প্রয়োজন। আগামী ১০ বছরের মধ্যে বায়ুসেনার জন্য ১০টি লেজার সিস্টেম তৈরির পরিকল্পনা রয়েছে। ক্ষুদ্র ড্রোন ও বিমান ধ্বংস করতে এগুলিকে ব্যবহার করা হবে। প্রথম অবস্থায় এই হাতিয়ার ৬ থেক ৮ কিলোমিটার পর্যন্ত আঘাত হানতে সক্ষম হবে। তারপর ধাপে ধাপে সেই ক্ষমতা ১৫ কিলোমিটারের বেশি বাড়ানো হবে।

উল্লেখ্য, : ভারতকে কোণঠাসা করতে পাকিস্তানের (Pakistan)সঙ্গে ভয়ংকর ষড়যন্ত্র রচনা করছে চিন (China)। হাড়হিম করা এক রিপোর্ট মতে ভারতের বিরুদ্ধে হাতে হাত মিলিয়ে জৈব অস্ত্রের ভাণ্ডার গড়ে তুলছে দুই পড়শি দেশ। ইতিমধ্যে পাকিস্তানকে জৈব অস্ত্র নির্মাণে বেশ কিছু মারাত্মক ভাইরাস দিয়েছে চিনের ইউহানের গবেষণাগার। সেগুলি মধ্যে সবথেকে ঘাতক হচ্ছে Bacillus Anthracis (অ্যানথ্রাক্স) ও acillus Thuringiensis (অ্যানথ্রাক্স-এর সঙ্গে মিল থাকা) নামের দু’টি জীবাণু। এহেন পরিস্থিতিতে দ্রুত সেনাবাহিনীকে আরও আধুনিক করে তোলার চেষ্টা করফচয়ে ভারত।

[আরও পড়ুন: নজরে চিন-নেপাল, উত্তরাখণ্ডের সীমান্তবর্তী তিন জেলায় এবার বসবে এয়ার ডিফেন্স সিস্টেম]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement