BREAKING NEWS

২৯ চৈত্র  ১৪২৭  সোমবার ১২ এপ্রিল ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

মাসে ১০০ কোটির তোলাবাজি! মহারাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর পদত্যাগের দাবিতে সরব বিজেপি

Published by: Paramita Paul |    Posted: March 21, 2021 10:16 am|    Updated: March 21, 2021 10:16 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: তোলাবাজির অভিযোগের ধাক্কায় বিপাকে মহারাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অনিল দেশমুখ (Anil Deshmukh)। তাঁর বিরুদ্ধে মাসে ১০০ কোটি তোলাবাজি করার অভিযোগ এনেছেন খোদ মহারাষ্ট্রের প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার পরমবীর সিংহ। মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরেকে চিঠি লিখে এই অভিযোগ জানিয়েছেন তিনি। জানিয়েছেন, আম্বানির বাড়ির কাছে বিস্ফোরক রাখার ঘটনায় ধৃত ওয়াজেকে দিয়ে এই তোলাবাজি করাতেন দেশমুখ। তবে প্রাক্তন পুলিশ আধিকারিকের অভিযোগ অস্বীকার করে মানহানির মামলা করলেন মহারাষ্ট্রের (Maharashtra) স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। এদিকে তাঁর পদত্যাগের দাবিতে সরব হয়েছেন মহারাষ্ট্রের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফড়ণবিশ।

মুকেশ আম্বানির বাড়ির কাছে বিস্ফোরক ভরতি গাড়ি উদ্ধার হয়েছিস। সেই ঘটনার তদন্ত করছিলেন পরমবীর। কিন্তু নিরাপত্তায় গাফিলতির অভিযোগ তুলে পরমবীরকে সরিয়ে দিয়েছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী দেশমুখ। এর কয়েকদিনের মধ্যে চিঠি লিখে অনিল দেশমুখের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ আনলেন পরমবীর। জানালেন, ধৃত ওয়াজেকে ব্যবহার করে মাসে ১০০ কোটি টাকা তোলাবাজির ব্যবস্থা করেছিলেন তিনি। মূল্য হোটেল-রেস্তরাঁ-ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান থেকে মাসে ৪০ কোটি টাকা তোলার ব্যবস্থা হয়েছিল। বাকি ৬০ কোটি অন্য উপায়ে জোগার হত বলে জানিয়েছেন পরমবীর। তাঁর দাবি, খোদ ওয়াজে তাঁকে একথা জানিয়েছিলেন। তিনি আর আগেও উদ্ধব ও শরদ পওয়ারকে চিঠি দিয়ে গোটা বিষয়টি জানিয়েছিলেন। এবার ফের একবার দেশমুখের বিরুদ্ধে সরব হলেন তিনি।

[আরও পড়ুন : ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনা আক্রান্ত ৪৩ হাজার, অ্যাকটিভ কেস ৩ লক্ষেরও বেশি]

এদিকে এই ঘটনায় রাজনৈতিক উত্তাপও বাড়ছে মহারাষ্ট্রে। তোলাবাজির অভিযোগ সামনে আসতেই অনিল দেশমুখের পদত্যাগ দাবি করেছেন বিজেপি নেতা দেবেন্দ্র ফড়ণবিশ। দলের অন্দরেও দেশমুখের উপর চাপ তৈরি হয়েছে বলে খবর। যদিও দেশমুখের পালটা দাবি, নিরাপত্তায় গাফিলতির অভিযোগে দেশমুখকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছিল। সে দিক থেকে নজর ঘোরাতেই এসব করছেন তিনি। মানহানির মামলাও করেছেন পরমবীরের বিরুদ্ধে। পুলিশ সূত্রে খবর, ইমেলটি পরমবীরের রেজিস্ট্রার্ড আইডি থেকে পাঠানো হয়নি। এমনকী, সেখানে তাঁর স্বাক্ষরও ছিল না। ফলে চিঠির সত্যতা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। সবমিলিয়ে রাজ্যের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বিরুদ্ধে তোলাবাজির অভিযোগ ঘিরে সরগরম আরব সাগরের তীরের রাজ্যটি।

[আরও পড়ুন : মন খারাপ দেশের! ‘খুশির তালিকা’য় ১৩৯তম স্থানে ভারত]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement